India-China Talk: একের পর এক প্রস্তাব খারিজ, চিনের চরম অসহযোগিতায় ব্যর্থ সেনাস্তরীয় বৈঠক

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

Updated on: Oct 11, 2021 | 10:59 AM

India-China Talk Fails: বিবৃতিতে আরও জানানো হয়েছে, রবিবারের আলোচনা ব্যর্থ হলেও দুই দেশই নিয়মিত যোগাযোগ বজায় রাখা ও পূর্ব লাদাখে শান্তি বজায় রাখতে সহমত হয়েছে।

India-China Talk: একের পর এক প্রস্তাব খারিজ, চিনের চরম অসহযোগিতায় ব্যর্থ সেনাস্তরীয় বৈঠক
ভারত - চিন সীমান্তে জওয়ানদের টহল। ফাইল চিত্র।

নয়া দিল্লি: ব্যর্থ হল ভারত-চিনের মধ্য়ে ১৩ দফার সেনা স্তরীয় বৈঠক (13th India-China Commander Meeting)। পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা (Line of Actual Control) ও গোগরা (Gogra), হট স্প্রিং(Hot Spring)-র মতো সংঘর্ষস্থল থেকে সেনা সরানোর লক্ষ্যেই রবিবার মল্ডোয় সেনাস্তরীয় বৈঠকে বসেছিল দুই দেশ। ভারতীয় সেনা সূত্রে দাবি, চিনের তরফে কিছুতেই সেনা প্রত্যাহারের প্রস্তাব মানা হচ্ছিল না এবং আগামিদিনে আলোচনা সম্ভব, এমন কোনও প্রস্তাবও দেওয়া হয়নি।

সেনা বাহিনীর তরফে প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “বৈঠক চলাকালীন ভারতের পক্ষ থেকে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা ও তার সংলগ্ন সংঘর্ষস্থলগুলি নিয়ে সমাধানের জন্য একাধিক প্রস্তাব দেওয়া হলেও চিনা পক্ষ সেই প্রস্তাব মানতে অস্বীকার করে। পূর্ব লাদাখের বাকি থাকা সংঘর্ষস্থলগুলি নিয়ে আলোচনায় কোনও সমাধান সূত্র না মেলায় এই আলোচনাকে ব্যর্থ বলেই গণ্য করা হচ্ছে।”

বিবৃতিতে আরও জানানো হয়েছে, রবিবারের আলোচনা ব্যর্থ হলেও দুই দেশই নিয়মিত যোগাযোগ বজায় রাখা ও পূর্ব লাদাখে শান্তি বজায় রাখতে সহমত হয়েছে। ভারতীয় সেনার তরফে বলা হয়, “আমরা আশা করছি চিন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে মাথায় রাখবে এবং আগামিদিনে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি ও প্রোটোকল মেনেই এই সমস্যাগুলির সমাধানের জন্য শীঘ্রই এগিয়ে আসবে।”

গত বছর মে মাসে পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার দখল নেওয়া ঘিরে সংঘর্ষ বাধে। জুন মাসে গালওয়ান উপত্য়কায় তা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আকার নেয়। ভারতের ২০ জন সেনা জওয়ান শহিদ হন। চিনের তরফে প্রথমে অস্বীকার করলেও পরে জানানো হয় যে, গালওয়ানের সংঘর্ষে তাদের পক্ষেরও বেশ কিছু জওয়ান নিহত হয়েছিলেন।  এরপরে এক বছর কেটে গেলেও সীমান্ত  সমস্যা এখনও মেটেনি।

দুই পক্ষের তরফেই সেনা প্রত্যাহারের জন্য উদ্য়োগ নেওয়া হয় এবং ১২ দফায় সেনা ও কূটনৈতিক স্তরের বৈঠক করা হয়। এখনও অবধি লাদাখের প্যাংগং হ্রদ সহ কয়েকটি জায়গা থেকে সেনা প্রত্যাহার করা হলেও গোগরা, হট স্প্রিং, দেপস্যাংয়ের মতো বেশ কয়েকটি সংঘর্ষস্থলে এখনও সেনা মোতায়েন রয়েছে।

আরও পড়ুন: Karnataka: ‘আধুনিক মেয়েরা বিয়ে করতে চান না, সন্তান চান না’, বেফাঁস মন্তব্যে এবার বির্তকে কর্নাটকের স্বাস্থ্যমন্ত্রী

এর আগের বৈঠক হয়েছিল প্রায় দুই মাস আগে। সেই সময়ের বৈঠকের পর গোগরা এলাকা থেকে লাল ফৌজ সরিয়ে নিয়েছিল চিন। ত্রয়োদশ দফার এই বৈঠকে হটস্প্রিংয়ে সংঘর্ষস্থল থেকে সেনা প্রত্যাহার নিয়েই দুই দেশের মধ্যে আলোচনা হয়। ভারতের অভিযোগ, সীমান্ত সমস্যা মেটাতে দু’দেশের বিদেশ মন্ত্রীর মধ্যে যে আলোচনা হয়েছিল, সেই আলোচনা অনুযায়ী চিন পর্যাপ্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। সীমান্ত সমস্যা সমাধানে ভারত সম্পূর্ণ সহযোগিতা করলেও চীন নানা ক্ষেত্রে সহযোগিতা করছে বলে অভিযোগ করেছে ভারত। আরও পড়ুন: মনিপুর: আদিবাসী নেতাকে ‘অপহরণ’, যৌথ অভিযানে খতম চার কুকি জঙ্গি

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla