করোনার সেকেন্ড ওয়েভের আশঙ্কা? প্রধানমন্ত্রীর দফতরে বসল জরুরি বৈঠক

করোনার (COVID19) নয়া স্ট্রেনে জেরবার দেশের একাধিক রাজ্য। কোথাও কোথাও নতুন করে বিধি-নিষেধ চালু করা হচ্ছে।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 19:02 PM, 23 Feb 2021
করোনার সেকেন্ড ওয়েভের আশঙ্কা? প্রধানমন্ত্রীর দফতরে বসল জরুরি বৈঠক
প্রধানমন্ত্রীর দফতরে বসল জরুরি বৈঠক

নয়া দিল্লি: করোনা ভাইরাসের (COVID19) আতঙ্ক ছড়িয়েছে নতুন করে। এক দিকে বিদেশ থেকে এসেছে কিছু নয়া স্ট্রেন , অন্য দিকে ফের সংখ্যা বাড়ছে আক্রান্তের। বেশ কয়েকটি রাজ্যে নতুন করে লকডাউন বা নাইট কার্ফুর মতো বিধিও চালু করতে হয়েছে। যদিও ভ্যাকসিন (Vaccine) দেওয়ার প্রক্রিয়া এগিয়েছে অনেকটাই, তবুও চিন্তা বাড়ছেই। এই পরিস্থিতি সামাল দিতেই এবার জরুরি বৈঠক বসল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দফতরে।

এ দিনের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণ। কোভিডের একাধিক নয়া স্ট্রেন এসে হাজির হওয়ার জন্যই নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। মহারাষ্ট্র ছাড়াও কেরল, মধ্য প্রদেশ, ছত্তীসগঢ় ও পঞ্জাবেও আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে। ভাইরাসের স্ট্রেন বোঝার জন্য পঞ্জাব ও বেঙ্গালুরু থেকে বেশ কিছু নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত এরকম ৬০০০ নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আগামিদিনে ভারতে যদি করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আসে, সে ক্ষেত্রে কী ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে সেই বিষয়ে আলোচনা করতেই এই বৈঠক।

এই মুহূর্তে ভারতে যা আক্রান্তের সংখ্যা, তার মধ্যে বেশির ভাগই নয়া স্ট্রেনের কিনা, তা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা রয়েছে। এখনও পর্যন্ত ১৮৭ জন আক্রান্তের ক্ষেত্রে ইউকে স্ট্রেন পাওয়া গিয়েছে। ৬ জন দক্ষিণ এশিয়ার স্ট্রেনে আক্রান্ত ও একজন ব্রাজিলের স্ট্রেনে।

মঙ্গলবারের সকালে পাওয়া স্বাস্থ্য মন্ত্রকের রিপোর্ট অনুযায়ী, এই মুহূর্তে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা (অ্যাকটিভ কেস) ১.৪৭ লক্ষ। এর মধ্যে মহারাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা লক্ষণীয়ভাবে বেশি। করোনা পর্বের শুরুর দিকের ছবিটার কথা মাথায় রেখেই আগাম সতর্কতা নিয়েছে মহারাষ্ট্রের প্রশাসন। মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিয়েছেন, আগামী ১৫ দিনে করোনা গ্রাফ নিম্নমুখী না হলে ফের রাজ্যে সম্পূর্ণ লকডাউন জারি করা হবে। সেইসঙ্গে সংক্রমণে রাশ টানতে সোমবার থেকে ওই রাজ্যে সবরকম সামাজিক, ধর্মীয় এবং রাজনৈতিক সমাবেশ নিষিদ্ধ করার কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: গলছে বরফ, ব্রিকসে যোগ দিতে ভারতে আসতে পারেন জিনপিং

বাংলাকে নিয়েও আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। পরিসংখ্যান বলছে, গত ৮ ফেব্রুয়ারি শতাংশের বিচারে যতটা কমেছিল আক্রান্তের সংখ্যা, সেটা গত কয়েক দিনে আবার বেড়েছে। মৃতের সংখ্যাও বাড়ছে। সেকেন্ড ওয়েভ নিয়েও আতঙ্কিত প্রশাসন। আশঙ্কা প্রকাশ করে স্বাস্থ্য অধিকর্তা অজয় চক্রবর্তী জানিয়েছেন, এই পরিস্থিতিতে টীকাকরণ বাধ্যতামূলক। পাশাপাশি সাধারণ মানুষকেও সতর্ক করা হয়েছে।