‘ওর সঙ্গে হাঁটতে যেতাম… সে দিন আমাকে বাড়িতে ডাকল’, সেই রহস্যময়ীর নাম জানালেন চোকসি

কী ভাবে ডমিনিকায় ধরা পড়লেন মেহুল চোকসি? অভিযোগ পত্রে পুরো ঘটনার বর্ণনা দিলেন ভারতের এই হীরে ব্যবসায়ী।

'ওর সঙ্গে হাঁটতে যেতাম... সে দিন আমাকে বাড়িতে ডাকল', সেই রহস্যময়ীর নাম জানালেন চোকসি
ফাইল ছবি
tannistha bhandari

|

Jun 07, 2021 | 8:47 PM

অ্যান্টিগুয়া: দীর্ঘ দিন ধরেই পলাতক পিএনবি কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত মেহুল চোকসি সম্প্রতি উঠে আসেন সংবাদ শিরোনামে। তিনি ডমিনিকায় ধরা পড়ার পর থেকেই উঠে আসছিল এক মহিলার নাম, যাঁকে চোকসির গার্লফ্রেন্ড বলেই উল্লেখ করছিলেন অনেকেই। অবশেষে সেই মহিলার নাম সামনে আনলেন মেহুল চোকসি। অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করলেন সে দিনের ঘটনা। জানালেন, ওই মহিলা তাঁকে মার খেতে দেখেও সাহায্য করেননি। তিনিই চোকসিকে ধরিয়ে দিয়েছেন বলে সন্দেহ ব্যবসায়ীর।

অভিযোগ পত্রে মেহুল চোকসি জানিয়েছেন, বেশ কিছুদিন ধরেই বারবারা জাবারিকা নামে ওই মহিলার সঙ্গে মেলামেশা করছিলেন তিনি। তাঁর ও তাঁর স্টাফদের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করতেন বারবারা। একসঙ্গে হাঁটতেও যেতেন দু’জনে। কিন্তু ২৩ মে যে ঘটনা ঘটল, তাতে তিনি অবাক। ওই দিন রাতে তাঁকে বাড়িতে ডেকেছিলেন বান্ধবী বারবারা। তাঁকে গাড়ি করে নিয়ে যেতে বলেছিলেন তিনি। সেই মতো তাঁর বাড়িতে পৌঁছে যান চোকসি। বারবারা তাঁকে অপেক্ষা করতে বলে নিজের ওয়াইনের গ্লাস শেষ করছিলেন। কয়েক মিনিট পরই তিনি দেখেন ঘরের মধ্যেই তাঁকে বেশ কয়েকজন ঘিরে ফেলেছেন। এঁদের অনেকের চেহারা সেনাবাহিনীর জওয়ানদের মত শক্তপোক্ত ছিল।

নিজেকে ছাড়ানোর চেষ্টা করলে তাঁকে বন্দুক দেখিয়ে থামানো হয় বলে অভিযোগ চোকসির। তাঁকে মারধরও করা হয়। তারপর তাঁর হাত পা বেঁধে একটি হুইল চেয়ারে বসিয়ে দেন ওই ৮-১০ জন লোক। ওখান থেকে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয়। চোকসির দাবি, এ সব চোখের ঘটতে দেখেও চুপ করেছিলেন বারবারা, পুলিশকে ডাকার কোনও উদ্যোগ নেননি। মুখে কাপড় দিয়ে বেঁধে দেওয়া হয় চোকসিকে। তারপর মুখ ঢেকে হুইল চেয়ারে বসা অবস্থাতেই তোলা হয় একটি ছোট নৌকায়।

মেহুল চোকসি জানিয়েছেন, যাঁরা তাঁকে অপহরণ করেন তাঁদের মধ্যে অনেকেই ছিলেন ভারতীয়। তাঁকে একটি বড় নৌকায় তোলা হয়। আর সেখানেই নাকি ভারতীয় এজেন্টদের দেখতে পান তিনি। মেহুল চোকসির দাবি তারপর ওই নৌকায় করে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় ডমিনিকায়। সেখানে তাঁকে কয়েকদিন ধরে সঙ্গে অত্যাচার করা হয়। ইলেকট্রিক শক দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: ভয়ঙ্কর ঘটনা, ভোটের বুথের কাছে ছুড়ে ফেলা হল ধড়হীন মাথা

সম্প্রতি, কিউবা যাওয়ার পথে ডমিনিকায় ধরা পড়েন মেহুল চোকসি। বর্তমানে একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি। তাঁর আইনজীবীদের দাবি, তাঁকে তুলে আনার সময় আহত হয়েছেন চোকসি। হাসপাতাল থেকেই প্রত্যর্পণের মামলার শুনানিতেও তিনি অংশ নিয়েছেন ভিডিও কনফারেন্সিং-এর মাধ্যমে। চোকসিকে ভারতের হাতে তুলে দিতে চায় ডমিনিকাও। ভারত থেকে বিশেষ টিমও ডমিনিকা গিয়েছিল তাঁকে আনতে। কিন্তু আপাতত মেহুল চোকসিকে ফেরানো সম্ভব হয়নি ভারতে। তাঁকে আনতে ভারতীয় অফিসারদের যে টিম ডমিনিকায় পাঠানো হয়েছিল, শুক্রবার সেই টিম ভারতে ফিরে আসে। তাঁর মামলা আপাতত স্থগিত হয়ে গিয়েছে ক্যারিবিয়ান হাই কোর্টে। আগামী জুলাইতে আছে সেই মামলার শুনানি।

Latest News Updates

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla