Monkeypox: মাঙ্কিপক্স নিয়ে আগাম সতর্কতা কেন্দ্রের, রাজ্যে রাজ্যে এসে গেল স্বাস্থ্য মন্ত্রকের নির্দেশিকা

Monkeypox: মঙ্গলবার, মাঙ্কিপক্স মহামারি রুখতে নির্দেশিকা জারি করল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে নজরদারি এবং সনাক্তকরণের উপর জোর দিতে বলা হয়েছে।

Monkeypox: মাঙ্কিপক্স নিয়ে আগাম সতর্কতা কেন্দ্রের, রাজ্যে রাজ্যে এসে গেল স্বাস্থ্য মন্ত্রকের নির্দেশিকা
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Amartya Lahiri

Jun 01, 2022 | 12:58 AM

নয়া দিল্লি: মঙ্গলবার, বহুচর্চিত মাঙ্কিপক্স ভাইরাস মহামারি রুখতে নির্দেশিকা জারি করল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। এই নির্দেশিকা’-তে, স্বাস্থ্য মন্ত্রক মাঙ্কিপক্স রোগের প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণে রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে মুখ্য জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থা হিসাবে নজরদারি এবং সংক্রমণ দ্রুত সনাক্তকরণের উপর জোর দিতে বলেছে। পাশাপাশি মানব থেকে মানবে সংক্রমণের ঝুঁকি কমানোর কথাও বলা হয়েছে। সরকারি নির্দেশিকায় আরও বলা হয়েছে, কোনও জেলায় মাঙ্কিপক্স সংক্রমণের একটি ঘটনাকেও প্রাদুর্ভাব হিসাবে বিবেচনা করতে হবে। সেই সঙ্গে সমন্বিত নজরদারি কর্মসূচির মাধ্যমে সেই সংক্রমণের বিষয়ে বিশদ অনুসন্ধান করতে হবে।

প্রসঙ্গত, মাঙ্কিপক্স সংক্রমণ বর্তমানে উত্তর আমেরিকা ও ইউরোপে ব্যাপকভাবে ছড়ালেও, ভারতের কোথাও থেকে এখন পর্যন্ত মাঙ্কিপক্সের একটি সংক্রমণেরও রিপোর্ট করা হয়নি। তবে, এই ক্ষেত্রে আগে থেকেই তৈরি থাকতে চাইছে কেন্দ্র। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘দেশে এখনও পর্যন্ত মাঙ্কিপক্স ভাইরাস সংক্রমণের কোনও ঘটনা না পাওয়া গেলেও, এন্ডেমিক দেশগুলির (যে সব দেশে মাঙ্কিপক্স সংক্রমণ আঞ্চলিক রোগে পরিণত হয়েছে) বাইরে সংক্রমণের ক্রমবর্ধমান রিপোর্টের পরিপ্রেক্ষিতে ভারতকে প্রস্তুত থাকতে হবে’।

সংক্রমণ রোধে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে আক্রান্তদের দ্রুত বিচ্ছিন্ন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে সংক্রমণের ক্লাস্টার এবং সংক্রমণের উত্সগুলিকে দ্রুত সনাক্ত করার জন্য একটি নজরদারি কৌশল তৈরি রাখার কথা বলা হয়েছে। আরও বলা হয়েছে পলিমারাইজ চেইন রিঅ্যাকশন বা পিসিআর পদ্ধতিতে এবং জিনোম সিকোয়েন্সিং পদ্ধতিতেই মাঙ্কিপক্স সংক্রমণের ঘটনা সম্পর্কে নিশ্চিত হতে হবে। সন্দেহভাজন মাঙ্কিপক্স আক্রান্তদের ক্লিনিকাল নমুনাগুলি ইন্টিগ্রেটেড ডিজ়িজ় সার্ভেল্যান্স প্রোগ্রাম বা আইডিএসপি নেটওয়ার্কের মাধ্যমে পুনের জাতীয় ভাইরোলজি কেন্দ্রের পরীক্ষাগারে পাঠাতে হবে। কোনও নিশ্চিত মাঙ্কিপক্স আক্রান্তের সংস্পর্ষে আসা ব্যক্তিদের উপর নজর রাখতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আক্রান্তের শরীরে রোগের লক্ষণগুলি প্রকাশ হওয়ার পর থেকে ২১ দিন পর্যন্ত প্রতিদিন অন্তত একবার করে তাঁর সংস্পর্ষে আসা ব্যক্তিদের সঙ্গে যোগাযোগ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে স্থানীয় প্রশাসনকে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক আরও জানিয়েছে, মাঙ্কিপক্স প্রাদুর্ভাবের পরিস্থিতির উপর তারা নজর রাখছে।

চলতি মাসে ৩০০-এর বেশি মাঙ্কিপক্স সংক্রমণের ঘটনা রিপোর্ট করা হয়েছে। এর অধিকাংশই রিপোর্ট করা হয়েছে ইউরোপিয় দেশগুলি থেকে। ক্যামেরুন, লাইবেরিয়া, নাইজেরিয়া, কঙ্গো-সহ মধ্য ও পশ্চিম আফ্রিকার বেশ কিছু দেশে দীর্ঘদিন ধরেই এই রোগের প্রাদুর্ভাব রয়েছে। এই দেশগুলিতে বর্তমানে মাঙ্কিপক্স স্থানীয় রোগে পরিণত হয়েছে। তবে, বর্তমানে এই দেশগুলির বাইরে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাল রোগ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, বেলজিয়াম, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, নেদারল্যান্ডস, পর্তুগাল, স্পেন, সুইডেন, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, অস্ট্রিয়া, ইসরায়েল, সুইজারল্যান্ড সহ বেশ কয়েকটি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস। তবে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এখনও মনে করছে এই রোগ অতিমারি রোগে পরিণত হবে না। তবে একই সঙ্গে তারা জানিয়েছে, এই বিষয়ে নিশ্চিতভাবে কিছু বলার মতো প্রয়োজনীয় তথ্য এখনও তাদের হাতে নেই।

Latest News Updates

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla