Nestle: বাড়তে চলেছে ম্যাগি, কফি, মিল্কিবারের দাম! ঘোষণা নেসলে-র

Nestle India: গত ছয় থেকে আট মাসে ক্রমান্বয়ে বেড়েছে দুধ ও কফির দাম। তাই তাদের বিভিন্ন পণ্যের দাম বাড়াতে চলেছে নেসলে ইন্ডিয়া।

Nestle: বাড়তে চলেছে ম্যাগি, কফি, মিল্কিবারের দাম! ঘোষণা নেসলে-র
পণ্যের দাম বাড়াচ্ছে নেসলে। প্রতীকী চিত্র
TV9 Bangla Digital

| Edited By: সৈকত দাস

Sep 21, 2021 | 12:39 PM

দেশ: গত ছয় থেকে আট মাসে ক্রমান্বয়ে বেড়েছে দুধ ও কফির দাম। তাই তাদের বিভিন্ন পণ্যের দাম বাড়াতে চলেছে নেসলে ইন্ডিয়া (Nestle India)। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, ২০২২ সালের মধ্যেই একাধিক প্রোডাক্টের দাম বাড়াবে তারা।

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই মূল্যবৃদ্ধির কারণ দেখিয়ে তাদের একাধিক পণ্য়ের দাম ১ থেকে ৩ শতাংশ বাড়িয়েছে নেসলে। তবে ফের দাম বৃদ্ধির ইঙ্গিত দিলেন সংস্থার প্রধান সুরেশ নারায়ণন। তিনি বলেন, কাঁচামাল ও পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির দিকে খেয়াল রেখে ফের তাঁরা কয়েকটি পণ্যের দাম বাড়াতে বাধ্য হবেন। ২০২২ সালের মাঝামাঝি থেকেই ওইসব পণ্যের নতুন দাম নির্ধারণ করা হবে বলে ঘোষণা করেন নারায়ণন।

সোমবার নেসলে ইন্ডিয়া-র প্রধান সুরেশ নারায়ণন বলেন ২০২২ সাল খুবই কঠিন বছর হতে চলেছে তাদের পক্ষে। যেহেতু উৎপাদনের খরচ বাড়ার ফলে একাধিক পণ্যের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিতে চলেছেন তাঁরা। এতে নেসলের ব্যবসায় প্রভাব পড়ার আশঙ্কাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না তিনি।

প্রসঙ্গত, এফএএমসিজি (FMCG) বাজারে নেসলে-র একটি বড় বাজার রয়েছে। এই সংস্থার কয়েকটি পণ্যের মধ্যে রয়েছে ম্যাগি (Maggi), মিল্কিবার (Milkybar), দুধ, কফি, কোকোয়া, ভোজ্য তেল। যার চাহিদাও ব্যাপক। ২০২২ সাল থেকেই ম্যাগি, মিল্কিবার, কফি ইত্যাদির দাম বাড়তে পারে বলে আভাস দিলেন সংস্থার প্রধান।

তিনি জানান, গত ৬ থেকে ৮ মাসে নেসলের বেশ কয়েকটি পণ্যের দাম গড়ে ১ থেকে ৩ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। নারায়ণনের মতে, ২০২১ সালের প্রথমার্ধ তুলনামূলকভাবে বেশি সুরক্ষিত এবং পণ্যমূল্যের দিক থেকে নিয়ন্ত্রিত ছিল। কারণ, প্যাকিং উপকরণ এবং অপরিশোধিত তেল ছাড়া মোটের উপর, দুধ এবং গমের দাম স্থিতিশীল ছিল। কিন্তু সব হিসাব ওলট-পালট করে দিয়েছে করোনাভাইরাস। এই ভাইরাসের তাণ্ডবে কমবেশি সব সংস্থাই কমবেশি প্রভাবিত হয়েছে। বাদ যায়নি নেসলের মতো সংস্থাও। তাছাড়া এর মধ্যে বাজারে কাঁচামালের দামও উর্ধ্বমুখী। এমনকি কফির দামও বেড়ে গিয়েছে। ভিয়েতনামের মতো দেশ যেখান থেকে সবচেয়ে বেশি কফি আনা হত করোনার জন্য তাতেো প্রভাব পড়েছে। তাই কফি, ম্যাগি ইত্যাদি পণ্যের দাম না বাড়িয়ে আর কোনও উপায় দেখতে পাচ্ছেন না তাঁরা।

আর করোনা উদ্ভুত পরিস্থিতিতে বাজারে বড় ট্রেন্ডের কথা বলেছেন নারায়ণন। তাঁর দাবি, এখনও মধ্যবিত্ত এবং শহুরে ক্রেতারা পরিচিত ব্রান্ড ও পণ্যেইই আস্থা রেখেছে। নিউট্রিশন ও ইমিউনিটি বাড়ানোর দিকে খেয়াল করছেন তাঁরা। এদিকে করোনার কারণে মাসকাবারি বাজারের তালিকাতেও প্রভাব পড়েছে। সব মিলিয়ে একটা কোণঠাসা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

তবে এই উৎসবের মরসুমে অবস্থা কিছুটা পরিবর্তন হবে বলে আশাবাদী নেসলের প্রধান। বলেন, ‘এই দিওয়ালিতে আমারা বেশ কিছু প্রত্যাশা রাখছি। আশা করি বাজার ভাল হবে। অন্তত গত বছরের চেয়ে তো বটেই।’

উল্লেখ্য, নেসলে ইন্ডিয়া এখন গ্রামীণ ভারতীয় এলাকাগুলিতে ব্যবসা বাড়ানোয় জোর দিচ্ছে। তাদের টার্গেট দেশের ১ লক্ষ ২০ হাজার গ্রামমে নিজেদের ব্যবসা ছড়িয়ে দেওয়া। ইতিমধ্যেই ৯০ হাজার গ্রাম তারা কভার করে ফেলেছে। যা মোট গ্রামীণ বাজারের প্রায় ২৫ শতাংশ তো বটেই।

আরও পড়ুন: Amazon Bribery: ঘুষ দিয়েছে আমাজন! কোনও দুর্নীতি বরদাস্ত না করার কড়া বার্তা কেন্দ্রের

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla