টুলকিট কাণ্ড: জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আরও এক দিনের পুলিশ হেফাজতে পরিবেশকর্মী দিশা রবি

অভিযোগ, পুলিশের সঙ্গে অসহযোগিতা করছে দিশা রবি (Disha Ravi)। তিনি অন্য অভিযুক্তদের নামে দোষ চাপাচ্ছেন বলেও অভিযোগ।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 18:19 PM, 22 Feb 2021
টুলকিট কাণ্ড: জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আরও এক দিনের পুলিশ হেফাজতে পরিবেশকর্মী দিশা রবি
জামিনে মুক্ত দিশা রবি

নয়া দিল্লি: জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নতুন করে আরও এক দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হল পরিবেশকর্মী দিশা রবিকে (Disha Ravi)। গ্রেটা থুনবার্গের টুলকিট (Toolkit Case) শেয়ার করার ঘটনায় গ্রেফতার করা হয় ২২ বছর বয়সী এই পরিবেশকর্মীকে।

সোমবার দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্টে ছিল এই মামলার শুনানি। আর সেখানে দিশাকে পাঁচ দিনের হেফাজতে নিতে চেয়ে আবেদন করেছিল পুলিশ। তাঁদের অভিযোগ, জিজ্ঞাসাবাদে চাতুরির আশ্রয় নিচ্ছেন দিশা। বেঙ্গালুরুর এই কলেজ ছাত্রী বার বার এই মামলায় অপর দুই অভিযুক্ত নিকিতা ও শান্তনুর দিকে আঙুল তুলছেন বলে অভিযোগ। তাই তাঁকে ফের জেরা করতে চায় পুলিশ।

আগেই জামিনের আবেদন জানিয়েছেন দিশা রবি। সেই আবেদনের শুনানিতে অ্যাডিশনাল সলিস্যিটর জেনারেল এস ভি রাজু বলেন, দিশার শেয়ার করা টুলকিটে যে হাইপারলিংক ছিল, তা খালিস্তানিদের ওয়েবসাইটের সঙ্গে যুক্ত। তাঁর অভিযোগ ছিল, এটা নিছক একটা টুলকিট বলে মনে হলেও আসলে এটা দেশের অসম্মান ও দেশে একটা অস্থিরতা তৈরির চক্রান্ত। দিশার বিরুদ্ধে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট ডিলিট করার অভিযোগও জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে গত শুক্রবার দিশা রবিকে তিন দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয় আদালত। শুক্রবারই টুলকিট কাণ্ডের তদন্ত নিয়ে কোনও তথ্য প্রকাশ্যে আনা যাবে না বলে দিল্লি পুলিশকে নির্দেশ দেয় দিল্লি হাই কোর্ট। একইসঙ্গে সংবাদমাধ্যমগুলিকে আদালতের তরফে নির্দেশ দেওয়া হয় যাতে সঠিক সূত্র থেকে খবর নিয়ে তবেই তা সম্প্রচার করা হয়। পরিবেশকর্মী দিশা গ্রেফতার হওয়ার পর তাঁর বেশ কিছু ব্যক্তিগত চ্যাট সংবাদমাধ্যমে সম্প্রচার হচ্ছিল। তা নিয়েই আদালতে আবেদন জানিয়েছিলেন দিশা। সংবাদমাধ্যমগুলির এ ক্ষেত্রে সংবেদনশীল হওয়া উচিৎ বলেও উল্লেখ করা হয়। আগেই তিনটি সংবাদমাধ্যমকে এই বিষয়ে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। এই মামলার স্পর্শকাতরতার কথা মাথায় রেখেই পুলিশকে সতর্ক করা হয়েছে এবং সংবাদমধ্যমকে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন: অভিষেকের শ্যালিকাকে তিন ঘণ্টার ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদ, কী বলছে সিবিআই

গত ৩ ফেব্রুয়ারি কৃষক আন্দোলন নিয়ে সুইডিশ পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ একটি টুলকিট শেয়ার করেন। এরপরই টুলকিট তৈরি ও শেয়ারের অভিযোগে বেঙ্গালুরু থেকে দিশা রবিকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয় নিকিতা জেকব ও শান্তনুর বিরুদ্ধেও। গ্রেফতারি নিয়ে বিতর্ক হলেও পুলিশ সাফ জানিয়েছে যে দিশার ফোন থেকে যে তথ্য মিলেছে তাতে প্রমাণ হচ্ছে যে টুলকিট বানানোয় তাঁর হাত ছিল।