Yashwant Sinha: জল্পনার অবসান, রাইসিনার দৌড়ে বিরোধীদের প্রার্থী যশবন্ত!

Yashwant Sinha: জল্পনার অবসান, রাইসিনার দৌড়ে বিরোধীদের প্রার্থী যশবন্ত!
(ফাইল ছবি)

President Election 2022: মঙ্গলবার (২১ জুন), আসন্ন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিরোধী দলগুলির সর্বসম্মত প্রার্থী হিসাবে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী যশবন্ত সিনহার নাম ঘোষণা করা হল।

Amartya Lahiri

|

Jun 21, 2022 | 5:00 PM

নয়া দিল্লি: সব জল্পনার অবসান। আসন্ন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিরোধী দলগুলির সর্বসম্মত প্রার্থী হচ্ছেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী যশবন্ত সিনহা। মঙ্গলবার (২১ জুন), শরদ পওয়ারের ডাকে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীর নাম চূড়ান্ত করতে, দ্বিতীয়বার বৈঠকে বসেছিলেন বিরোধী দলগুলির নেতারা। বৈঠকের পর কংগ্রেস সাংসদ জয়রাম রমেশ বলেন, ‘আমরা (বিরোধী দলগুলি) সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে, রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিরোধী দলগুলির সাধারণ প্রার্থী হবেন যশবন্ত সিনহা।’ প্রসঙ্গত এর আগে শরদ পওয়ার, ফারুক আবদুল্লা, গোপালকৃষ্ণ গান্ধীর নাম উঠে এসেছিল বিরোধীদের আলোচনায়। তবে, তাঁরা কেউ রাজি না হওয়ায়, সোমবার বিকেল থেকে শোনা যাচ্ছিল যশবন্ত সিনহার নাম।

এদিন শরদ পওয়ারের নয়া দিল্লির সাবভবনে বিরোধীদের বৈঠকের পর, কংগ্রেসের রাজ্যসভার সাংসদ তথা যোগাযোগ বিষয়ক প্রধান জয়রাম রমেশ বলেন, ‘মোদী সরকার যাতে আরও ক্ষতি না করতে পারে, তার জন্য আসন্ন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে আমরা একজন সাধারণ প্রার্থী মনোনীত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আজকের বৈঠকে আমরা যশবন্ত সিনহাকে বিরোধীদের সাধারণ প্রার্থী হিসাবে বেছে নিয়েছি। আমরা সমস্ত রাজনৈতিক দলের কাছে যশবন্ত সিনহাকে ভোট দেওয়ার জন্য আবেদন করছি।’ শরদ পওয়ার জানিয়েছেন, ২৭ জুন সকাল সাড়ে এগারোটায় রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন জমা দেবে বিরোধীরা।

প্রসঙ্গত, সোমবার বিকেলেই তৃণমূল দলের সূত্রে জানা গিয়েছিল, তিন-চারটি দল যশবন্ত সিনহাকে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হিসাবে চাইছে। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও ফোনে যশবন্ত সিনহার নামে সমর্থন জানিয়েছিলেন বলে শোনা গিয়েছিল। মঙ্গলবার সকালেই তৃণমূল কংগ্রেস দল থেকে ইস্তফা দিয়ে, মোটামুটিভাবে সেই জল্পনায় সিলমোহর দিয়েছিলেন যশবন্ত নিজেই। টুইট করে তিনি বলেছিলেন, ‘টিএমসিতে আমাকে যে সম্মান ও প্রতিপত্তি দেওয়া হয়েছে, তার জন্য আমি মমতাজির কাছে কৃতজ্ঞ। এখন সময় এসেছে একটি বৃহত্তর জাতীয় উদ্দেশ্যের জন্য দল থেকে সরে বৃহত্তর বিরোধী ঐক্যের জন্য কাজ করার। আমি নিশ্চিত যে তিনি এই পদক্ষেপে সম্মতি দেবেন।’ 

প্রসঙ্গত ২০২১ সালে তৃণমূল কংগ্রেস দলে যোগ দিয়েছিলেন যশবন্ত সিনহা। দলের সহ-সভাপতি পদে ছিলেন তিনি। বিরোধীদের প্রার্থী হিসাবে যশবন্ত সিনহার নাম অনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণার পরই, তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি লিখেছেন, ‘আসন্ন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য সকল প্রগতিশীল বিরোধী দল সমর্থিত সর্বসম্মত প্রার্থী হওয়ার কারণে, আমি শ্রী যশবন্ত সিনহাকে অভিনন্দন জানাতে চাই। তিনি অত্যন্ত সম্মানীয় এবং বুদ্ধিমান মানুষ। তিনি অবশ্যই আমাদের মহান জাতির মূল্যবোধকে সমুন্নত রাখবেন!’ এদিনের বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতিনিধি ছিলেন দলের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক । তিনি বলেছেন, ‘যশবন্ত সিনহাকে ঐক্যবদ্ধভাবে বিরোধীরা মনোনীত করায় আমরা সম্মানিত। তিনি দীর্ঘদিন ধরে তৃণমূলের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।’

এর আগে দুইবার দেশের অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন যশবন্ত সিনহা। প্রথমবার, ১৯৯০ সালে চন্দ্র শেখর মন্ত্রীসভার অর্থমন্ত্রী হয়েছিলেন যশবন্ত। সেই সময় জনতা দলে ছিলেন তিনি। এরপর বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। ১৯৯৮ সালে অটলবিহারী বাজপেয়ীর আমলেও আরও একবার অর্থমন্ত্রকের দায়িত্ব সামলেছিলেন তিনি। পরে বিদেশমন্ত্রীও হয়েছিলেন।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA