Dengue: ২০ দিনেই ডেঙ্গু আক্রান্ত ৪০ জন! হু হু করে ম্যালেরিয়া রোগীর সংখ্যাও বাড়ছে তেলঙ্গনায়

Dengue outbreak in Telangana: মঙ্গলবার হায়দরাবাদের সরকারি হাসপাতালের সুপারিন্ডেন্ট ডঃ কে শঙ্কর জানান, ১ সেপ্টেম্বর থেকে এখনও অবধি ৪০ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর খোঁজ মিলেছে।

Dengue: ২০ দিনেই ডেঙ্গু আক্রান্ত ৪০ জন! হু হু করে ম্যালেরিয়া রোগীর সংখ্যাও বাড়ছে তেলঙ্গনায়
হাসপাতালে ভর্তি রোগীরা। ছবি:ANI

হায়দরাবাদ: দেশের দক্ষিণ প্রান্তেও এ বার ছড়াতে শুরু করল ডেঙ্গু (Dengue)। পশ্চিমবঙ্গ, উত্তর প্রদেশে ভয়াবহ রূপ ধারণ করার পর এ বার তেলঙ্গনা(Telangana)-তেও ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়া(Malaria)-র মতো মশাবাহিত রোগে আক্রান্তদের সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে। হায়দরাবাদের একটি হাসপাতালের সুপারিন্ডেন্ট জানিয়েছেন ১ সেপ্টেম্বর থেকে এখনও অবধি মোট ৪০ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর খোঁজ মিলেছে। বাড়ছে ম্যালেরিয়া ও ভাইরাল জ্বরে আক্রান্তদের সংখ্যাও।

রবিবারই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের (Union Health Ministry) তরফে জানানো হয়েছিল দেশজু়ড়ে প্রায় ১১টি রাজ্যে দেখা দিয়েছে ডেঙ্গু(Dengue)-র প্রকোপ। এরমধ্যে অন্ধ্র প্রদেশ, গুজরাট, কর্নাটক, কেরল, মধ্য প্রদেশ, উত্তর প্রদেশ, মহারাষ্ট্র, ওড়িশা, রাজস্থান, তামিলনাড়ু ও তেলঙ্গনায় সেরোটাইপ-২ ডেঙ্গু ধরা পড়ছে। “অতি ভয়ঙ্কর” ধরনের এই ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে আনতে কেন্দ্রের তরফে দ্রুত রোগীর চিহ্নিতকরণ, জ্বরের রোগীদের জন্য বিশেষ হেল্পলাইন তৈরি এবং পর্যাপ্ত পরিমাণ টেস্টিং কিট(Testing Kit), ওষুধ (Medicine) ও ব্লাড ব্যাঙ্কে পর্যাপ্ত রক্ত (Blood) সংগ্রহ করে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এরইমধ্যে মঙ্গলবার হায়দরাবাদ(Hyderabad)-র সরকারি হাসপাতালের সুপারিন্ডেন্ট ডঃ কে শঙ্কর জানান, ১ সেপ্টেম্বর থেকে এখনও অবধি ৪০ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর খোঁজ মিলেছে। তিনি বলেন, “আপাতত ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা কমলেও ভাইরাল জ্বর ও ম্যালেরিয়া আক্রান্তদের সংখ্যা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রতিদিনই কমপক্ষে ৪ থেকে ৫জন ম্যালেরিয়া রোগীর ভর্তি হচ্ছেন জ্বর নিয়ে।”

তিনি জানান, অধিকাংশ ডেঙ্গু রোগীই প্রবল জ্বর, প্রচন্ড মাথা ব্যাথা ও গা-হাত-পা ব্যাথা নিয়ে ভর্তি হচ্ছেন। অনেকের শরীরে ব়্যাশও দেখা যাচ্ছে।

পশ্চিমবঙ্গ, উত্তর প্রদেশ, হরিয়ানা, দিল্লি সহ একাধিক রাজ্যে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে ডেঙ্গু সংক্রমণ। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্য়াণ মন্ত্রকের তরফে এই বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে জানানো হয়, সেরোটাইপ-২ ডেঙ্গু ছড়াচ্ছে। এই সংক্রমণ অত্যন্ত জটিল আকার ধারণ করে বলেই জানানো হয়েছে। সবথেকে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে উত্তর প্রদেশে। ফিরোজাবাদ, আগ্রা, মিরাট, বারাণসী সহ একাধিক জেলায় মশাবাহিত রোগ ছড়িয়ে পড়েছে। সোমবারই মিরাটে নতুন করে ১৮ জন ডেঙ্গু রোগীর খোঁজ মিলেছে। এই নিয়ে কেবল মিরাটেই ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা ২০০ পার করেছে।

রাজ্যগুলিতে সংক্রমণের হার নিয়ন্ত্রণে রাখতে ব়্যাপিড রেসপন্স টিম পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রের তরফে। পাশাপাশি হেল্পলাইন চালু, মশা দমনের নানা প্রক্রিয়া ও বাড়ি বাড়ি গিয়ে ডেঙ্গু রোগী চিহ্নিতকরণের কাজ শুরু করতে বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন: Fire: বারান্দা থেকে ঝাঁপ দিতে গিয়েছিলেন, তার আগেই গিলে খেল আগুন! আবাসনে অগ্নিকাণ্ডে মৃত ২

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla