ফের ত্রিপুরায় আক্রান্তের অভিযোগ তৃণমূলের, বিজেপি বলল ‘ও সব গল্প দিয়ে লাভ হবে না’

Tripura: শনিবার তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবস। শুক্রবার আগরতলার মহারাজা বীর বিক্রম কলেজে চলছিল তারই প্রচার।

ফের ত্রিপুরায় আক্রান্তের অভিযোগ তৃণমূলের, বিজেপি বলল 'ও সব গল্প দিয়ে লাভ হবে না'
ছবি সংগৃহীত

আগরতলা: ফের ত্রিপুরাতে আক্রান্ত হওয়ার অভিযোগ তুলল তৃণমূল কংগ্রেস। এবার অভিযোগের আঙুল এবিভিপির দিকে। আগরতলার এক কলেজে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সদস্যদের অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদের সদস্যরা মারধর করে বলে অভিযোগ উঠেছে। মহারাজা বীর বিক্রম কলেজের এই ঘটনায় ফের উত্তপ্ত ত্রিপুরার রাজনীতি। এই ঘটনার পরই শুক্রবার ত্রিপুরা যান তৃণমূলের দুই নেতা কুণাল ঘোষ, শান্তনু সেন। সূত্রের খবর, শনিবার সকালে আহত যুব নেতাকে নিয়ে কলকাতায় ফিরবেন শান্তনু সেন। এখানেই তাঁর চিকিৎসা করাবে দল। যদিও এই ঘটনাকে সাজানো বলে দাবি বিজেপির।

শনিবার তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবস। শুক্রবার আগরতলার মহারাজা বীর বিক্রম কলেজে চলছিল তারই প্রচার। ঘাসফুল শিবিরের অভিযোগ, সেখানেই চড়াও হয় এবিভিপি। তৃণমূলের ছাত্র পরিষদ সদস্যদের পুলিশের সামনেই মারধর করা হয় বলে অভিযোগ ওঠে। ছাত্র সংগঠনের নেত্রী সোলাঙ্কি সেনগুপ্ত, যিনি এই কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী তাঁকে এবিভিপির সদস্যরা তুলে নিয়ে গিয়ে আটকে রাখে বলে অভিযোগ।

সোলাঙ্কি সেনগুপ্ত বলেন, “ওরা আমাকে তুলে নিয়ে গিয়ে একটা ঘরে ঢুকিয়ে দেয়। এর পর বাইরে থেকে তালা আটকে দেয়। ঘরের ভিতরে ওরা আমাকে নানা ভাবে উত্যক্ত করে। আমার দিকে ধেয়ে আসে, যেন মারধর করবে।” এদিকে শুক্রবার বিকেলেই ত্রিপুরায় রওনা হয়ে যান দুই তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ ও শান্তনু সেন।

তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় এই ঘটনার পর কার্যত হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, “চূড়ান্ত হতাশা থেকে ত্রিপুরায় আক্রমণ চলছে। এই গুণ্ডামি মোকাবিলা করার ক্ষমতা টিএমসিপির আছে।” পাল্টা বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, “এই সব গল্প দিয়ে ত্রিপুরায় পার্টি দাঁড়াবে না। এখানকার মিডিয়া গরম হবে। এটা লাগাতার তৃণমূল চালিয়ে যাচ্ছে। ত্রিপুরা ত্রিপুরা বললে এখানকার লোক তো ত্রিপুরায় ভোট দিয়ে জেতাতে পারবে না। হয়ত কিছু নেতা, কিছু লোক নিয়ে গিয়ে ওখানে যোগদান করিয়ে দেখানো হচ্ছে। ত্রিপুরার লোকজনের তাতে কিছু যায় আসে না। শুধু ত্রিপুরা কেন, দিল্লিতেও ওরা পালন করুক না, কে না করছে!”

শনিবার আগরতলার বনমালীপুরে মিছিল করার কথা জানিয়েছে তৃণমূল। আট দফা দাবিতে এই মিছিল। ত্রিপুরায় পা রাখার পর এই প্রথম কোনও মিছিলের ডাক দিল তৃণমূল। এসবের মধ্যেই জোর জল্পনা সুদীপ রায় বর্মন-সহ ত্রিপুরার কয়েকজন বিজেপি বিধায়ক কলকাতা আসেন বলে খবর। সূত্রের খবর, সব ঠিক থাকলে তাঁরা তৃণমূলে যোগ দিতে পারেন। আরও পড়ুন: ‘অস্বচ্ছতার প্রশ্নই নেই’! সরকারি নিয়োগে কেলেঙ্কারির পর্দা ফাঁস হতেই স্বাস্থ্যভবনে বোর্ডের চেয়ারম্যান

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla