Yogi Adityanath: সঠিক সময়ে উত্তর প্রদেশে জন সংখ্যা নিয়ন্ত্রক আইন নিয়ে আসা হবে, জানালেন যোগী

Uttar Pradesh Assembly Election 2022 রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে ২০২২ সালের উত্তর প্রদেশ বিধানসভা নির্বাচন, ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের পরিপ্রেক্ষিতে (Uttar Pradesh assembly elections 2022) শাসক বিরোধী দুই পক্ষের কাছেই ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। তাই নির্বাচন যত এগিয়ে আসবে ততই আক্রমণ ও পাল্টা আক্রমণ লেগেই থাকবে

Yogi Adityanath: সঠিক সময়ে উত্তর প্রদেশে জন সংখ্যা নিয়ন্ত্রক আইন নিয়ে আসা হবে, জানালেন যোগী
বড় চমক দিতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। ফাইল চিত্র

লখনৌ: সঠিক সময়ে রাজ্যে বলবৎ হবে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রক আইন। মঙ্গলবার এমনটাই জানালেন উত্তর প্রদেশের (Uttar Pradesh) মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Chief Minister Yogi Adityanath)। অনিয়ন্ত্রিত জনসংখ্যাকে ‘উন্নয়নের পথে অন্তরায়’ হিসেবে ব্যাখ্যা করেন যোগী। এর পাশাপাশি একজন মহিলার বারবার সন্তান জন্ম দেওয়ার সময় জন্মদাত্রী মা ও সদ্যজাত শিশুর মৃত্যুর সম্ভাবনা কমাতে এই বছরই জুলাই মাসে, জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের জন্য বেশ কিছু নিয়ম নীতি চালু করার কথা বলেছিল উত্তর প্রদেশ সরকার।

জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ আইন নিয়ে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন ” যখন এই আইন নিয়ে আসা হবে তখন সবাই দেখতেই পাবেন। সংবাদ মাধ্যমের চোখের সামনেই সব হবে। আমরা লুকিয়ে চুরিয়ে কোনও কাজ করতে বিশ্বাসী নই।”

” সব কিছুই সঠিক সময়ে করাটা প্রয়োজনীয়। এর আগে রাম মন্দির (Ram Mandir) ইস্যুতে সংবাদ মাধ্যম বারবার বিজেপি (BJP) কার্যকর্তাদের প্রশ্নবাণে জর্জরিত করতো।রাম মন্দির তৈরির কাজ কবে শুরু হবে? এটাই ছিল তাঁদের মূল প্রশ্ন। কিন্তু গত বছর অগস্ট মাসের ৫ তারিখ, করোনা মহামারীর মধ্যেও প্রধানমন্ত্রী সশরীরে অযোধ্যায় (AJODHYA) উপস্থিত হয়ে রাম মন্দিরের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেছেন। ” এক অনুষ্ঠানে এমনটাই জানিয়েছেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী । তাঁর আরও বক্তব্য ” ঠিক একই রকমভাবে কাশ্মীরে (Kashmir) ৩৭০ ধারা (Article 370) কবে রদ করা হবে সেই নিয়ে অনেক হইচই হয়েছিল। কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Narendra Modi) ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহের (Amit Shah) উদ্যোগে সেটাও বাস্তবায়িত হয়েছে।”

আরও পড়ুন Uddhav Thackeray: ‘বিজেপি শাসিত রাজ্যকে বলুন,’ ধর্ষণ কাণ্ডে বিশেষ অধিবেশন চাইতেই রাজ্যপালকে পত্রাঘাত ঠাকরের

 

২০১৯ সালের ৫ অগাষ্ট, জম্মু কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ ধারা বাতিল করে কেন্দ্রীয় সরকার। তার পরিবর্তে নতুন করে জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখ (Ladakh) নামের দুটি নতুন কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল তৈরি করা হয়।

অনুষ্ঠানে যখন তাঁর সাম্প্রতিক ‘আব্বাজান ‘ মন্তব্য নিয়ে যোগীকে প্রশ্ন করা হয়, তখন তিনি বলেন ” বিরোধীরা মুসলিমদের কাছে ভোটভিক্ষা করেন, নিজেদের মুসলিম দরদী হিসেবে তুলে ধরার চেষ্টা করেন, তখন যদি কোনও সমস্যা না হয়ে থাকে, তবে এই মন্তব্যে তাঁদের আপত্তি থাকবে কেন! ” সম্প্রতি উত্তর প্রদেশের কুশিনগর এলাকায় সমাজবাদী পার্টির (Samajwadi party) উদ্দেশে তীব্র আক্রমণ শানিয়ে যোগী বলেছিলেন, ” সে সব ব্যক্তিরা আব্বাজান শব্দটি ব্যবহার করেন, আগের সরকারের রাজত্বকালে সব সরকারী রেশন তাঁরাই হজম করে নিতেন।” যোগী এই মন্তব্যের পর তীব্র রাজনৈতিক বিতর্ক সৃষ্টি হয়।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে ২০২২ সালের উত্তর প্রদেশ বিধানসভা নির্বাচন, ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের পরিপ্রেক্ষিতে (Uttar Pradesh assembly elections 2022) শাসক বিরোধী দুই পক্ষের কাছেই ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। তাই নির্বাচন যত এগিয়ে আসবে ততই আক্রমণ ও পাল্টা আক্রমণ লেগেই থাকবে। বিশেষজ্ঞ মহল মনে করছে, উত্তর প্রদেশে জাত পাত ধর্মের রাজনীতি এখনও অনেকটাই প্রাসঙ্গিক। তাই দিন যত এগিয়ে আসবে, রাজনৈতিক দল গুলির মধ্যেই জাত, পাত , ধর্ম নিয়ে লড়াই আরও তীব্র হবে। এমনটাই মত রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের।

 

আরও পড়ুন Indo-France Diplomacy: আফগানিস্তান হয়ে উঠতে পারে জঙ্গিদের ডেরা, উদ্বিগ্ন মোদী-ম্যাক্রোঁ

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla