Kashipur: একের পর এক বাড়িতে ফাটল কাশীপুরে, বাসিন্দাদের সরানো হচ্ছে নিরাপদ আশ্রয়ে

Kashipur: একের পর এক বাড়িতে ফাটল কাশীপুরে, বাসিন্দাদের সরানো হচ্ছে নিরাপদ আশ্রয়ে
এভাবেই বাড়ছে ফাটল

Kashipur: কিছুদিন আগে বউবাজারের একাধিক বাড়িতে ফাটল দেখা গিয়েছিল। মেট্রোর কাজের জন্য সেই ফাটল দেখা দেয়।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: tannistha bhandari

Jun 20, 2022 | 1:09 PM

কলকাতা : বউবাজারের পর এবার কাশীপুর। নতুন করে বাড়িতে ফাটল দেখা দিল কলকাতা পুরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডে। রতন বাবুর ঘাট সংলগ্ন চন্দ্রকুমার রায় লেনে একাধিক বাড়িতে ফাটল দেখা গিয়েছে। ওই এলাকায় মাটির তলায় ধস নামার কারণে এই বিপত্তি তৈরি হয়েছে। পাশাপাশি আরও একাধিক বাড়িতে ধস নামতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। পুরকর্তারা মনে করছেন, পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে। মোট ৫৫ জন বাসিন্দাকে স্থানীয় একটি স্কুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এলাকার মোট ১১টি বাড়িতে ইতিমধ্যে ফাটল দেখা দিয়েছে। গত শুক্রবার থেকে ফাটল দেখা দিতে শুরু করে। জানা গিয়েছে, শনিবার গঙ্গা লাগোয়া রাস্তায় ১০ ফুট বাই ১০ ফুট ধস মেরামত করা চেষ্টা হয়। বালি দিয়ে তা মেরামত করার চেষ্টা হয়েছিল। কিন্তু ধস ক্রমশ গভীরতর হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। স্বাভাবিকভাবেই আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। এই বিষয়ে এলাকার জনপ্রতিনিধি কার্তিক মান্না কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম এবং এলাকার বিধায়ক তথা ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষের সঙ্গে কথা বলেছেন।

এলাকায় জেসিবি মেশিন নিয়ে আসা হচ্ছে। কলকাতা পুরসভা সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই রাস্তার তলা দিয়ে একটি প্রাচীন নিকাশি পাইপলাইন সরাসরি গঙ্গার সঙ্গে যুক্ত ছিল। এলাকার নিকাশি জল সরাসরি গঙ্গায় পড়ত। সম্প্রতি জাতীয় পরিবেশ আদালতের নির্দেশে সেই পাইপ লাইন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ফলে গঙ্গায় সেই জল আর পড়ছে না। এলাকার নিকাশি পাইপলাইনের জল মূল একটি নিকাশি পাইপলাইনের সঙ্গে যুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট প্রাচীন নিকাশি পাইপলাইনের সঙ্গে এখনও এলাকার বেশ কিছু নিকাশি সংযোগ রয়েছে। ফলে জল সরাসরি আটকে দেওয়া অংশে ধাক্কা খাচ্ছে।

জানা গিয়েছে, ওই এলাকার মাটির স্তরে দিনের পর দিন জল ধাক্কা খাওয়ায় ভূগর্ভস্থ মাটির স্তর দুর্বল হয়ে গিয়েছে। ফলে সেই অংশের ওপরে থাকা একাধিক বাড়িতে পরপর ফাটল দেখা দিচ্ছে। এই ফাটল ক্রমশ বাড়বে বলেই মনে করছেন কলকাতা পুরসভার নিকাশি বিভাগের কর্তারা। যে কারণে এলাকা পুরোপুরি খালি করে স্থানীয় একটি স্কুলে সব বাসিন্দাদের স্থানান্তর করা হয়েছে।

এই খবরটিও পড়ুন

এ ছাড়াও নিকাশি বিভাগের কর্তাদের মতে, গঙ্গার জল কোনও ভাবে পাইপের ভিতর থেকে বিভিন্ন ছিদ্র দিয়ে ভিতরে ঢুকে আসছে, তাতেও মাটির স্তর দুর্বল হয়ে পড়ছে। যে কারণে এত বড় বিপত্তি ঘটে গিয়েছে। এলাকায় গিয়ে দেখা গিয়েছে, কলকাতা পুরসভার কর্মী আধিকারিকরা মেরামতের কাজ শুরু করেছেন। গত দু দিন আগে যে ক’টি বাড়িতে ফাটল দেখা দিয়েছিল, সেগুলি আরও চওড়া হয়েছে। বেশ কিছু বাড়ি বসেও গিয়েছে। গঙ্গা লাগোয়া এই বাড়িগুলির ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত বলেই মনে করছেন পুরসভার কর্তারা।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA