School Student Vaccination: ‘টিকা-ছুট’ স্কুল পড়ুয়াদের খোঁজে স্বাস্থ্য ভবন, টিকাকরণের হার নিয়ে অসন্তোষ

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী

Updated on: Jan 18, 2022 | 2:41 PM

School Student Vaccination: গত ৩ জানুয়ারি থেকে বাংলায় ১৫-১৭ বছর বয়সীদের মধ্যে টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হয়েছে। স্বাস্থ্যভবনের যা পর্যবেক্ষণ, তাতে দেখা যাচ্ছে এখনও পর্যন্ত দৈনিক এক লক্ষের মতো টিকাকরণ হচ্ছে।

School Student Vaccination: 'টিকা-ছুট' স্কুল পড়ুয়াদের খোঁজে স্বাস্থ্য ভবন, টিকাকরণের হার নিয়ে অসন্তোষ
ছোটোদের টিকা! (নিজস্ব চিত্র)

কলকাতা:  স্কুল পড়ুয়াদের মধ্যে টিকাকরণের হারে অসন্তুষ্ট স্বাস্থ্য ভবন। স্বাস্থ্য দফতর সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত ১৫-১৭ বছর বয়সী ২৩ লক্ষ কিশোর-কিশোরীর টিকা হয়েছে। বকেয়া টিকা প্রাপকের সংখ্যা আরও ২৫ লক্ষ। স্বাস্থ্য দফতরের আধিকারিকদের একাংশের বক্তব্য, এখন ওই বয়সের মধ্যে প্রতিদিন গড়ে ১ লক্ষ টিকাকরণ হচ্ছে। দু’সপ্তাহে অন্তত ৩০ লক্ষ টিকাকরণ হওয়া উচিত।

গত ৩ জানুয়ারি থেকে বাংলায় ১৫-১৭ বছর বয়সীদের মধ্যে টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হয়েছে। স্বাস্থ্যভবনের যা পর্যবেক্ষণ, তাতে দেখা যাচ্ছে এখনও পর্যন্ত দৈনিক এক লক্ষের মতো টিকাকরণ হচ্ছে। কোনও দিন এমনও গিয়েছে, যেদিন মাত্র ১০ হাজার টিকাকরণ হয়েছে। মাত্র ২ দিন ৭ ও ১০ জানুয়ারি, ২ লক্ষের ওপর টিকাকরণ হয়েছে। স্বাস্থ্য ভবনের পর্যবেক্ষণ, যখন এই কর্মসূচি শুরু হয়েছিল, তখন কেবল ৯০০ টি সেন্টার ছিল। তারপর সেটা বেড়ে অন্তত ১৫০০ টি সেন্টার হওয়া উচিত ছিল। কিন্তু তা হয়নি।

১৫০০টি সেন্টার হলে, তাঁরা অনুমান করছেন, দিনে ২ লক্ষের বেশি টিকাকরণ হত। পরিসংখ্যান বলছে, রাজ্যে ১৫-১৭ বছর বয়সী ৪৮ লক্ষ কিশোর-কিশোরী রয়েছে। জানুয়ারির মধ্যে তাঁদের টিকাকরণ সম্পূর্ণ করতে চেয়েছিলেন আধিকারিকরা। কিন্তু সেটা সম্ভব হচ্ছে না।

কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে কী কারণে টিকাকরণে ঢিলেমি? স্বাস্থ্যভবনের অধিকর্তারা মূলত ২-৩টি সম্ভাবনার কথা বলছেন। প্রথম সম্ভাবনা- যেহেতু জনমানসে ধারণা তৈরি হয়েছে কোভিডে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা কম আপাতদৃষ্টিতে। আর যাঁরা আক্রান্ত হচ্ছেন, তাঁদের মধ্যেও মৃদু উপসর্গ দেখা দিচ্ছে। ফলে টিকাকরণে অতটাও গুরুত্ব দিচ্ছেন না। যেটা দ্বিতীয় ওয়েভের সময়ে বাংলায় দেখা গিয়েছিল।

দ্বিতীয় সম্ভাবনা- স্কুলের মধ্যে শিক্ষকদের তত্ত্বাবধানে টিকাকরণে অনেক গতি আসবে বলে ভাবা হয়েছিল, সেখানেও সেই আশা পূরণ হচ্ছে না। দেখা যাচ্ছে, স্কুলের খাতায় নাম থাকলেও গত দেড় বছরে অনেক ছাত্রছাত্রী রয়েছে, তারা স্কুলছুট হয়েছে। তাদের এখনও টিকা দেওয়া সম্ভব হয়নি।

আর কী কী কারণ থাকতে পারে তা নিয়ে জেলা আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলবেন স্বাস্থ্য দফতরের কর্তাব্যক্তিরা। স্কুলের বাইরে যে সেন্টারগুলি রয়েছে, সেগুলিতেও যাতে টিকাকরণের ব্যবস্থা করা যায়, সে ব্যাপারে কথা বলা হতে পারে। সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসনের তৈরি তালিকা দেখে টিকাকরণে গতি আনার চেষ্টা করা হচ্ছে। স্কুল শিক্ষা দফতরের সঙ্গে কথা বলবে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর।

আরও পড়ুন:  Calcutta National Medical College: কলকাতা ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজের হৃদরোগ বিভাগের পরিষেবায় কাটছাঁট, কারণ চমকে দেওয়ার মতন

আরও পড়ুন: Dilip Ghosh on Aparna Sen: ‘কিছু সেলেব্রেটি রয়েছেন, দেশবিরোধী আন্দোলন করেন’

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla