Cyclone Gulab: বঙ্গোপসাগরে নতুন ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা! শক্তি বাড়াচ্ছে ‘গুলাব’, আছড়ে পড়বে রবিবারই

Weather Update Cyclone Gulab: ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে উপকূল এলাকায় ভারী বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এমনটাই খবর আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে।

Cyclone Gulab: বঙ্গোপসাগরে নতুন ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা! শক্তি বাড়াচ্ছে 'গুলাব', আছড়ে পড়বে রবিবারই
রবিবার পূর্ব মেদিনীপুরে ভারী বৃষ্টির আশঙ্কা রয়েছে। কলকাতা-সহ বাকি দক্ষিণের জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে।

কলকাতা: ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে জোড়া ঘূর্ণাবর্ত দক্ষিণবঙ্গে প্রবল বৃষ্টিপাত ঘটাবে, এ খবর আর এখন অজানা নেই। কিন্তু দুর্যোগের ঘনঘটা এখানেই থেমে যাবে ভাবলে ভুল হবে। কারণ তার আগে বঙ্গোপসাগরে নতুন করে ঘূর্ণিঝড়ের (Cyclone Gulab) আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। ‘গুলাব’ নামের এই ঘূর্ণিঝড়ের নামকরণ করেছে পাকিস্তান। যা রবিবারই উপকূলে আছড়ে পড়তে পারে। যার প্রভাবে উপকূল এলাকায় ভারী বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এমনটাই খবর আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে।

যদিও এই ঘূর্ণিঝড় নিয়ে বঙ্গবাসীর গভীর উদ্বেগের কোনও এখনও পর্যন্ত নেই বলেই মনে করা হচ্ছে। কারণ, এর সম্ভাব্য গতিপথ রয়েছে ভুবনেশ্বর থেকে ভাইজ্যাকের দিকে। তাই কলকাতা বা তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় ঝড় হওয়ার তেমন সম্ভাবনা নেই। যে গতিপথ ধরে ‘গুলাব’ এগোচ্ছে, তাতে এই ঘূর্ণিঝড়ে আরও দক্ষিণে সরে যেতে পারে বলে মনে করছেন আবহাওয়াবিদরা। তবে এর প্রভাবে রবিবার পূর্ব মেদিনীপুরে ভারী বৃষ্টির আশঙ্কা রয়েছে। কলকাতা-সহ বাকি দক্ষিণের জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে।

আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, গুলাব বর্তমানে গভীর নিম্নচাপের রূপে রয়েছে। ক্রমশ তা অতি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে। এবং শেষে ঘূর্ণিঝড়ের আকার নিয়ে উপকূলে আছড়ে পড়বে। উপকূলে আছড়ে পড়ার সময় হাওয়ার গতিবেগ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৮০-৯০ কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে বলে মনে করা করছেন আবহাওয়াবিদরা।

ফলে প্রাকৃতিক দুর্যোগ যে এই মাসে অন্তত বাংলার পিছু ছাড়ছে না, সেটা এখন থেকেই স্পষ্ট। কারণ হাওয়া অফিস আগে থেকেই জানিয়ে রেখেছে, আগামী ২৬ থেকে ২৮ সেপ্টেম্বর জোড়া ঘূর্ণাবর্তের প্রভাবে ভারী বৃষ্টির সাক্ষী থাকতে চলেছে দক্ষিণবঙ্গ। ইতিমধ্যেই নবান্নর পক্ষ থেকে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। উপকূলরক্ষী বাহিনী এবং বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীকে তৈরি রাখা হয়েছে। আবহাওয়া দফতরও প্রথম দু’দিন হলুদ ও শেষদিন কমলা সতর্কতা জারি করে রেখেছে। আবহাওয়া দফতর জানিয়ে দিয়েছে, একটি সুস্পষ্ট নিম্নচাপ পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরের উপরে অবস্থান করছে। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এই নিম্নচাপ আরও শক্তি বৃদ্ধি করবে।

আরও পড়ুন: শুধুই পেটের টান নয়, শখ পূরণের জন্যও যৌন পরিষেবা দিতে ম্যাসাজ পার্লারমুখী মফস্বলের মেয়েরা

এই জোড়া ঘূর্ণাবর্তের ধাক্কায় ২৬ তারিখ থেকেই প্রবল বর্ষণ শুরু হবে দক্ষিণবঙ্গের প্রায় ১০ টি জেলায়। ২৬ ও ২৭-এর পর ২৮ তারিখ বৃষ্টির পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে। আবহাওয়া দফতরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ২৬ তারিখ শুধুমাত্র পূর্ব মেদিনীপুরে ভারী বৃষ্টি হবে। দক্ষিণের বাকি জেলাগুলোয় হালকা বৃষ্টিপাত হতে পারে। ২৭ তারিখ দুই মেদিনীপুর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ভারী বৃষ্টিপাত হবে। কিন্তু ২৮ তারিখ দুই মেদিনীপুরের পাশাপাশি দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, কলকাতা, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রামে অতিভারী বৃষ্টি হবে।

আরও পড়ুন: দুই ফুটফুটে মেয়ের মৃত্যু, আর্তনাদ, ক্ষতিপূরণ, রাজনীতি… ৪৮ ঘণ্টায় যা যা দেখল বান্ধবনগর

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla