West Bengal BJP: আরও কড়া বিজেপি! দল থেকে সাময়িক বরখাস্ত জয়প্রকাশ, রীতেশ

West Bengal BJP: আরও কড়া বিজেপি! দল থেকে সাময়িক বরখাস্ত জয়প্রকাশ, রীতেশ
জয়প্রকাশ মজুমদার ও রীতেশ তিওয়ারিকে সাময়িক বরখাস্ত করল বিজেপি। ফাইল ছবি।

BJP: রবিবার দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে বিজেপির দুই পুরনো নেতা রীতেশ তিওয়ারি ও জয়প্রকাশ মজুমদারকে শো কজ করা হয়।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: সায়নী জোয়ারদার

Jan 24, 2022 | 9:52 PM

কলকাতা: প্রথমে কারণ দর্শানোর নোটিস। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সাময়িক বরখাস্তের নোটিস দেওয়া হল রীতেশ তিওয়ারি এবং জয়প্রকাশ মজুমদারকে। সোমবারই রাজ্য বিজেপির কার্যালয় সম্পাদক প্রণয় রায় জয়প্রকাশ মজুমদার ও রীতেশ তিওয়ারিকে চিঠি পাঠান। সেখানে লেখা হয়েছে, ‘রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের নির্দেশ অনুসারে নিম্নলিখিত ব্যক্তিদ্বয়ের বিরুদ্ধে শুরু হওয়া দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাঁদের দল থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হচ্ছে।’ নিচে লেখা রীতেশ তিওয়ারি ও জয়প্রকাশ মজুমদারের নাম।

বিজেপির রাজ্য কমিটি ও সাংগঠনিক জেলা সভাপতিদের নাম ঘোষণার পর থেকেই বিজেপির অন্দরে ‘বিদ্রোহ’-এর সুর শোনা যাচ্ছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুর থেকে শুরু করে একের পর এক বিধায়ক সুর বদলেছেন। কমিটিতে কোথাও স্থান পাননি দলের বহু পুরনো নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার, রীতেশ তিওয়ারি, সায়ন্তন বসু, রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়রা। জয়প্রকাশ মজুমদার, সায়ন্তন বসু, রীতেশ তিওয়ারিরা এরপর শান্তনু ঠাকুরের বনগাঁর বাড়িতে বৈঠকও করেছেন। হয়েছে শীতকালীন পিকনিকও।

পোর্টের গেস্ট হাউজে সম্প্রতি শান্তনু ঠাকুর দলের ‘বিক্ষুব্ধ’দের নিয়ে যে বৈঠক করেছিলেন সেখানেও দেখা যায় জয়প্রকাশ মজুমদারদের প্রথম সারিতেই। এরইমধ্যে রবিবার জয়প্রকাশ মজুমদার ও রীতেশ তিওয়ারিকে কারণ দর্শানোর নোটিস দেয় দল। তাঁদের বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা ভাঙার অভিযোগ তোলা হয়। কেন সংবাদমাধ্যমে তাঁরা দলবিরোধী কথা বলেছে, তা জানতেও চাওয়া হয়।

যদিও এ বিষয়ে সোমবার পর্যন্ত রীতেশ তিওয়ারি বা জয়প্রকাশ মজুমদার দলকে কিছু জানাননি বলেই সূত্রের খবর। রীতেশ তিওয়ারি আগেই বলেছেন, “আমি যে চিঠি পেয়েছি, সেখানে বলা হয়েছে আমি নাকি দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছি। দলের বিরুদ্ধে আমি সংবাদমাধ্যমে মুখ খুলেছি। কিন্তু যে চিঠিটা পেয়েছি সেখানে উল্লেখ করা হয়নি কবে কোথায় কী বলেছি। এর কোনও ব্যাখ্যাও নেই।”

এরপরই সোমবার সন্ধ্যায় জানা যায় দুই নেতাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে দল থেকে। যদিও জয়প্রকাশ মজুমদার বা রীতেশ তিওয়ারিরা এই মুহূর্তে দলের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খুলতে নারাজ। এমনও শোনা যাচ্ছে এই চিঠির প্রতিলিপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে পাঠাবেন তাঁরা। তবে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দুই নেতাকে বরখাস্ত করার পরিকল্পনাই ছিল রাজ্য নেতৃত্বের। সেই জন্যই জবাবি চিঠির কোনও সময়সীমা বেধে দেওয়া হয়নি। শুধু রাজ্য বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার সোমবার বলেছিলেন, “দল বিষয়টি দেখছে। আমরা খুব তাড়াতাড়ি জবাব চাইছি। দলের শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটি আছে। তারা এই বিষয়ে ব্যবস্থা নেবে।” এরই মধ্যে সাময়িক বরখাস্তের নির্দেশও সামনে এল।

সোমবারই রীতেশদের সমর্থন করে সরব হয়েছেন বিজেপি নেতা তথাগত রায়। তিনি বলেন, “রীতেশ বহু পুরনো দিনের কর্মী। রীতেশ যখন পার্টিতে এসেছে, তখন পার্টি খুব ছোট ছিল। ফলে ক্ষমতার স্বাদে রীতেশ পার্টিতে আসেনি। এমন ঘটনা কখনও বিজেপিতে দেখা যায় না। পক্ষে বিপক্ষে পোস্টার। গোটা জগৎ সংসার জানে শো কজ নোটিস পেয়েছে। ‌এটা কী করে সম্ভব?”

আরও পড়ুন: Tathagata Roy : ‘খারাপ সময়ের নেতা, ক্ষমতার স্বাদে পার্টিতে আসেনি’, তথাগতর রীতেশ-পক্ষ

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA