Tea For Immunity: এই তিন হার্বাল চা আপনাকে মুক্তি দেবে শীতকালীন সর্দি-কাশির যাবতীয় ঝঞ্ঝাট থেকে!

শীতকালে সর্দি-কাশির সমস্যা বাড়ে। আবহাওয়ার কারণে সহজেই ঠান্ডা লেগে যায়। এবার সঙ্গে রয়েছে কোভিডও। তাই এই তিন চা বানিয়ে খান বাড়িতেই। উপকার পাবেন

Tea For Immunity: এই তিন হার্বাল চা আপনাকে মুক্তি দেবে শীতকালীন সর্দি-কাশির যাবতীয় ঝঞ্ঝাট থেকে!
বাড়িতেই বানিয়ে নিন হার্বাল টি

শীতের পারদ যত নামছে ততই যেন বাড়ছে রোগ-ভোগের প্রকোপ। সর্দি, কাশির সমস্যা এখন ঘরে ঘরে। কান পাতলেই টের পাওয়া যাবে হাঁচির শব্দ। সেই সঙ্গে নাক দিয়ে জল পড়া, নাক বসে থাকা, মাথা ব্যথা, হালকা জ্বর ( Omicron Symptoms) এসব তো রয়েইছে। শীতে এমনিই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়। গ্যাস, অম্বল , হজমের সমস্যাও বাড়ে। এবার তার দোসর হয়েছে করোনা। হু হু করে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। প্রতিদিন প্রচুর মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন। সাধারণ ঠান্ডা লাগা আর ওমিক্রনের উপসর্গের মধ্যে তেমন কোনও ফারাক না থাকায় অনেকেই ঠিক বুঝে উঠতে পারছেন না যে তিনি আদৌ কোভিড আক্রান্ত কিনা। যার ফলে বাড়ছে উপসর্গহীন আক্রান্তের সংখ্যাও।

যে কারণে এই সময় আমাদের পুষ্টিকর খাদ্যের প্রয়োজন। শরীরে গড়ে তোলা দরকার জোরদার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়লে তবেই কিন্তু ঠেকানো যাবে সংক্রমণ। আর তাই ডায়েটের পাশাপাশি খেতে পারেন এই কয়েকটি চা (Herbal Tea)। এই চা যেমন শরীরকে পুষ্টি দেবে তেমনই সর্দি-কফ কাশির সমস্যা থেকেও মিলবে রেহাই। কোভিডের সংক্রমণে গ্রিন টিয়ের (Green tea)  উপর জোর দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। রোজ গ্রিন টি খেতে পারলে কিন্তু সমস্যা এড়ানো যাবে অনেকটাই। তবে গ্রিন টি-এর সঙ্গে মিশিয়ে নিন শুকনো কিছু মশলা, আদা, রসুনের নির্যাস। এতে কাজ হবে আরও অনেক বেসি। দেখে নিন কী কী চা খাবেন। হার্বাল চা কিন্তু ডিটক্সিফিকেশনেও( Detoxification)  সাহায্য করে।

কাসাই- ম্যাঙ্গালোরের জনপ্রিয় চা হল এই কাসাই। এই চায়ের মধ্যে রয়েছে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। সেই সঙ্গে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল হিসেবেও কিন্তু ভাল কাজ করে এই চা। দুধ, গোটা জিরে, মৌরি, গোটা ধনে দিয়ে বানিয়ে নিন এই চা। মিষ্টি স্বাদের জন্য দিতে পারেন গুড়। শীতকালে কফ-সর্দির থেকে মিলবে আরাম। যাঁরা সর্দি-কাশির সমস্যায় ভুগছেন তাঁরা দুধ চায়ের বদলে খেতে পারেন এই চা।

মধু-রসুনের চা- কফ, সর্দির বিরুদ্ধে খুব ভাল কাজ করে রসুনও। প্রতিদিন রসুন দিয়ে বানানো এই চা খেলেও কিন্তু আরাম পাবেন। জল ফুটতে দিন। এবার তাতে থেঁতো করে রসুন, কাঁচা হলুদ আর গোলমরিচ ফেলে দিন। ফুলে উঠলে গ্রিন টি পাতা দিয়ে বন্ধ করে দিন। ৫ মিনিট পর ছেঁকে নিয়ে এক চামচ মধু আর লেবুর রস মিশিয়ে নিন। গরম গরম এই চা খান। এতে গলায় আরাম পাবেন। অতিরিক্ত কফও উঠে যাবে।

আদা-দারচিনির চা- ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখতে খুব ভাল কাজ করে দারচিনি। আর ঠান্ডা লাগার সমস্যায় আদার জুড়ি মেলা ভার। আদা আর দারচিনি একসঙ্গে থেঁতো করে নিন। এবার জল ফুটলে তাতে আদা, দারচিনি ফেলে দিন। ফুটে উঠলে চা দিয়ে চাপা দিন। ৫ মিনিট পর ছেঁকে নিন। মধু মিশিয়ে খান। দারুণ উপকার পাবেন।

তথ্য সূত্র: NDTV 

Disclaimer: এই প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য, কোনও ওষুধ বা চিকিৎসা সংক্রান্ত নয়। বিস্তারিত তথ্যের জন্য আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন। 

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla