Offbeat Beaches: একান্তে ছুটি কাটাতে চান? বঙ্গোপসাগর বরাবর অফবিট সৈকতগুলি জেনে রাখা ভাল…

বঙ্গোপসাগর বরাবর ভারতের প্রতিটি উপকূলই বেশ আকর্ষণীয় ও দর্শনীয়ও বটে। সমুদ্রের কাছাকাছি এক-দুদিন ছুটি কাটিয়ে আসতে কার না ভাল লাগে।

Offbeat Beaches: একান্তে ছুটি কাটাতে চান? বঙ্গোপসাগর বরাবর অফবিট সৈকতগুলি জেনে রাখা ভাল...
অফবিট সমুদ্র সৈকতগুলি সম্পর্কে জেনে নিন এখানে...

বঙ্গোপসাগর সবসময়ই যে কোনও ভ্রমণকারীদের কাছেই বেশ আনন্দদায়ক। বঙ্গোপসাগর বরাবর ভারতের প্রতিটি উপকূলই বেশ আকর্ষণীয় ও দর্শনীয়ও বটে। সমুদ্রের কাছাকাছি এক-দুদিন ছুটি কাটিয়ে আসতে কার না ভাল লাগে। অফবিট সমুদ্র সৈকতগুলি সম্পর্কে জেনে নিন এখানে…

শঙ্করপুর সৈকত, পশ্চিমবঙ্গ

দীঘা থেকে প্রায় ১৪ কিমি দূরে অবস্থিত এই অপূর্ব সুন্দর সৈকতটি পর্যটকদের স্বর্গস্থান। এটি যেমন একটি ভার্জিন বিচ ডেস্টিনেষন. তেমনি ফিশিং হারবার হিসেবেও গুরুত্বপূর্ণ। সন্ধ্যেবেলায়, সৈকতের মনোমুগ্ধকর ঠান্ডা আবাহওয়া এখানকার অন্যতম আকর্ষণ।

রুশিকোন্ডা সৈকত, অন্ধ্রপ্রদেশ

বিশাখাপত্তনমের মতো সুন্দর শহরে অবস্থিত রুশিকোন্ডা সমুদ্র হল ভারতের ব্লু ফ্ল্যাগ বিচগুলির মধ্যে একটি। যার অর্থ হল, ইকো-ট্যুরিজমের সর্বোচ্চ সম্মানপ্রাপ্ত একটি সমুদ্র সৈকত। প্রাকৃতিক পরিবেশ ও শান্তির অনুভূতির সঙ্গে সমুদ্র সৈকতের মনোরম আবহাওয়া, এই সৈকতে আপনার একান্তে সময় কাটানোর জন্য আদর্শ স্থান। সপ্তাহান্তে মন ভাল রাখতে কোথায় যাওয়ার প্ল্যান করলে এই সৈকত হল বেস্ট। জেট স্কিইং, সার্ফিংয়ের মতো রাইডেরও সুযোগ রয়েছে এখানে।

তাজপুর সৈকত, পশ্চিমবঙ্গ

মেদিনীপুর জেলার এই সমুদ্র সৈকত একটি হিডেন বিচ ডেস্টিনেশন হিসেবে পরিচিত। ব্যস্ততা, মানুষের ভিড় থেকে দূরে রাখতে,এই সৈকত হল আদর্শ গন্তব্যস্থল।এখানে কয়েকটি ক্যাম্পিং রিসর্ট রয়েছে, যা সুন্দর ছুটি কাটানোর জন্য উপযুক্ত। ভোরবেলা বা সন্ধ্যের আগে, সোনালি বালির উপর লাল কাঁকড়ার ঝাঁক এই সৈকতের অন্যতম আকর্ষণ।

চন্দ্রভাগা সৈকত, ওড়িশা

ওড়িশার কোনার্ক মন্দিরের কাছে এই সমুদ্র সৈকতটি একটি আন্তর্জাতিক বালুশিল্প উত্‍সবের জন্য বিখ্যাত। ভিড়, কোলাহল থেকে দূরে, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে এই সৈকত হল পারফেক্ট ডেস্টিনেশন।এখানে ক্যাম্পিং.য়ের ব্যবস্থা তো রয়েছেই, রয়েছে অ্যাডভেঞ্চার ওয়াটার স্পোর্টস।

চণ্ডীপুর সৈকত, ওড়িশা

ওড়িশার বালাসোর জেলায় অবস্থিত চণ্ডীপুর সৈকত হল অন্যতম আকর্ষণীয় ও সুন্দর গন্তব্য। পুরীর সৈকতের মতো ভিড় হয় না. কিন্তু একান্তে সময় কাটানোর জন্য এই বিচ প্রেমিক-প্রেমিকাদের কাছে দুরন্ত একটি গন্তব্যস্থল। বালাসোর স্টেশন থেকে প্রায় ১৬ কিমি দূরে অবস্থিত এই সৈকতটি অনন্য প্রাকৃতিক পরিবেশের জন্য পরিচিত। চণ্ডীপুর সমুদ্র সৈকতে যাওয়ার জন্য সেরা সময় হল নভেম্বর থেকে মার্চ।

আরও পড়ুন: Durga temples in India: ভারতের এই ৫ দুর্গামন্দিরগুলিতে একবার দর্শন না করলে জীবনটাই বৃথা!

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla