বিশ্বের ক্ষুদ্রতম হোটেলে জায়গা ধরে মাত্র দুজনের! একদিনের ভাড়া কত জানেন?

২০১১ সালে এই গাড়িটিকে হোটেলের প্রতিরূপ বানিয়ে ব্যবসা শুরু করেছেন মালাহিম। বিশ্বের ক্ষুদ্রতম হোটেলে থাকতে হলে পকেট থেকে কত খসবে, সেটাই ভাবছেন তো!

বিশ্বের ক্ষুদ্রতম হোটেলে জায়গা ধরে মাত্র দুজনের! একদিনের ভাড়া কত জানেন?
বিশ্বের ক্ষুদ্রতম হোটেল!

বিশ্বের যে কোনও প্রান্তে গজিয়ে ওঠা বিলাসবহুল থেকে সাধারণ মানের হোটেলগুলির একমাত্র লক্ষ্যই থাকে, আগত সব পর্যটক বা অতিথিদের যথাসাধ্য স্বাচ্ছন্দ্যবোধ দেওয়া, হাজারের বেশি মানুষ যাতে আরাম করে এক ছাদের তলায় থাকতে পারেন, তার সুবন্দোবস্তের সব খেয়াল রাখেন হোটেল মালিকরা। তার জন্য আকাশচুম্বি, অত্যন্ত ব্যায়বহুল হোটেল বানাতেও কসুর করেন না ব্যবসায়ীরা।

তবে ব্য়তিক্রমী হোটেলও রয়েছে। বিশ্বের বৃহত্তম ও বিলাসবহুল হোটেলের তথ্য তো জানা আছে, কিন্তু বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষুদ্র হোটেলের নাম শুনেছেন কখনও! আজকে সেই ক্ষুদ্রতম হোটেলে নিয়ে আলোচনা করা হবে। তবে এই হোটেল চিরাচরিত কোনও বিল্ডিং নয়, এই হোটেলে থাকতে হলে আশ্রয় নিতে হবে একটি পুরনো গাড়িতে!

আরও পড়ুন: সূর্যাস্ত দেখার বিখ্যাত জায়গাগুলির হদিশ রইল এখানে…

আরব দেশের জর্ডনে রয়েছে এই ক্ষুদ্র হোটেলের অবস্থান। পশ্চিম-উত্তর এশিয়ার অকোয়া বে-র পশ্চিমে এই হোটেলের ঠিকানা। একটি সময়ে মাত্র ২ জন এই হোটেলে থাকতে পারবেনন, এমনই তার আয়তন। হোটেলের মালিক, মহম্মদ আল-মালাহিম, এমনটাই দাবি করে।

জর্জিয়ান হোটেল মালিকেরদাবি, বিশ্বের অন্যতম আশ্চর্য তো বটেই, ক্ষুদ্রতম হোটেলটি একটি পুরনো ভক্সওয়াগন বিটলকে মেরামত করে বানানো হয়েছে। দুটি বড় পাথরের উপর গাড়িটিকে কোনওভাবে দাঁড় করিয়ে রাখা হয়েছে। চাকা থাকলেও গাড়িটি যে একেবারেই অচল, তা বলাউ বাহুল্য। ২০১১ সালে এই গাড়িটিকে হোটেলের প্রতিরূপ বানিয়ে ব্যবসা শুরু করেছেন মালাহিম। বিশ্বের ক্ষুদ্রতম হোটেলে থাকতে হলে পকেট থেকে কত খসবে, সেটাই ভাবছেন তো! এই হোটেলে এক রাত কাটাতে খরচ পড়বে মাত্র ৫৬ ডলার। ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় চার হাজার টাকা!

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla