Kombucha Tea Recipe: কম্বুচা চায়ের জনপ্রিয়তা বাড়ছে প্রতিদিন, জেনে নিন বাড়িতে কীভাবে এই চা বানানো যায়…

নিয়মমাফিক দুধ চা বা লিকার চা ছেড়ে অনেকেই এখন বেছে নিয়েছেন কম্বুচা টি। এখন এই চায়ের চাহিদা তুঙ্গে। কেন এত জনপ্রিয় হয়েছে এই চা? কীভাবেই বা বানাবেন বাড়িতে? বিস্তারিত জেনে নিন...

1/6
কম্বুচা মূলত একটি ফারমেন্ট করা মিষ্টি এবং সামান্য টক স্বাদের পানীয়, যা কালো বা সবুজ চা দিয়ে তৈরি করা হয়। কম্বুচা চা মাশরুম এবং চা ছত্রাক হিসাবে পরিচিত। যে পদ্ধতিতে ব্যাকটেরিয়া বা ছত্রাক দিয়ে এই চা ফারমেন্ট করা হয় তার উপরেই নাম নির্ভর করে।
কম্বুচা মূলত একটি ফারমেন্ট করা মিষ্টি এবং সামান্য টক স্বাদের পানীয়, যা কালো বা সবুজ চা দিয়ে তৈরি করা হয়। কম্বুচা চা মাশরুম এবং চা ছত্রাক হিসাবে পরিচিত। যে পদ্ধতিতে ব্যাকটেরিয়া বা ছত্রাক দিয়ে এই চা ফারমেন্ট করা হয় তার উপরেই নাম নির্ভর করে।
2/6
কম্বুচা চায়ের উৎপত্তি প্রায় ২০০০ বছর আগে, যখন এটি প্রথম চিনে তৈরি করা হয়েছিল। ধীরে ধীরে, এর অসংখ্য স্বাস্থ্য সংক্রান্ত উপকারিতা, পাশাপাশি এর অনন্য মিষ্টি এবং টক স্বাদ এই চাকে জাপান এবং রাশিয়ার মতো দেশেও জনপ্রিয় করে তুলেছে। বিশ শতকের দিকে, এই পানীয়টি ইউরোপীয় দেশগুলিতে এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।
কম্বুচা চায়ের উৎপত্তি প্রায় ২০০০ বছর আগে, যখন এটি প্রথম চিনে তৈরি করা হয়েছিল। ধীরে ধীরে, এর অসংখ্য স্বাস্থ্য সংক্রান্ত উপকারিতা, পাশাপাশি এর অনন্য মিষ্টি এবং টক স্বাদ এই চাকে জাপান এবং রাশিয়ার মতো দেশেও জনপ্রিয় করে তুলেছে। বিশ শতকের দিকে, এই পানীয়টি ইউরোপীয় দেশগুলিতে এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।
3/6
কম্বুচা চা বিভিন্ন উপায়ে তৈরি করা হয়, তবে কম্বুচা তৈরিতে ব্যবহৃত কিছু মৌলিক উপাদান হল ইস্ট, চিনি এবং কালো চা। মিশ্রণটি কয়েক সপ্তাহের জন্য ফারমেন্ট করে রেখে দেওয়া হয়। কম্বুচা ব্যাকটেরিয়া ল্যাকটিক-অ্যাসিড ব্যাকটেরিয়া অন্তর্ভুক্ত, যা একটি প্রাকৃতিক প্রোবায়োটিক হিসাবে কাজ করে।
কম্বুচা চা বিভিন্ন উপায়ে তৈরি করা হয়, তবে কম্বুচা তৈরিতে ব্যবহৃত কিছু মৌলিক উপাদান হল ইস্ট, চিনি এবং কালো চা। মিশ্রণটি কয়েক সপ্তাহের জন্য ফারমেন্ট করে রেখে দেওয়া হয়। কম্বুচা ব্যাকটেরিয়া ল্যাকটিক-অ্যাসিড ব্যাকটেরিয়া অন্তর্ভুক্ত, যা একটি প্রাকৃতিক প্রোবায়োটিক হিসাবে কাজ করে।
4/6
ফারমেন্ট প্রক্রিয়া চলাকালীন, এই ব্যাকটেরিয়া এবং অ্যাসিড একত্রিত হয়ে তরলের উপরে একটি স্তর তৈরি করে, যা SCOBY (ব্যাকটেরিয়া এবং ইস্টের সম্বাওটিক কলোনি) নামে পরিচিত। এর পর এই স্তরটি একটি চামচ ব্যবহার করে আলতো করে টেনে কম্বুচা প্রস্তুত করতে ব্যবহৃত হয়।
ফারমেন্ট প্রক্রিয়া চলাকালীন, এই ব্যাকটেরিয়া এবং অ্যাসিড একত্রিত হয়ে তরলের উপরে একটি স্তর তৈরি করে, যা SCOBY (ব্যাকটেরিয়া এবং ইস্টের সম্বাওটিক কলোনি) নামে পরিচিত। এর পর এই স্তরটি একটি চামচ ব্যবহার করে আলতো করে টেনে কম্বুচা প্রস্তুত করতে ব্যবহৃত হয়।
5/6
শুরুতে, একটি বড় কাচের জগ নিয়ে, ১.৪ কাপ চিনি দিয়ে তাতে ৩ কাপ গরম জল দিতে হবে।  চিনি সম্পূর্ণরূপে দ্রবীভূত হলে, তার পর ২টো টি ব্যাগ যোগ করতে হবে (সবুজ/কালো চা), এটি ১০ মিনিটের জন্য ভিজতে দিতে হবে।
শুরুতে, একটি বড় কাচের জগ নিয়ে, ১.৪ কাপ চিনি দিয়ে তাতে ৩ কাপ গরম জল দিতে হবে। চিনি সম্পূর্ণরূপে দ্রবীভূত হলে, তার পর ২টো টি ব্যাগ যোগ করতে হবে (সবুজ/কালো চা), এটি ১০ মিনিটের জন্য ভিজতে দিতে হবে।
6/6
টি ব্যাগগুলি সরিয়ে ১/২ কাপ ভিনিগার বা ইতিমধ্যে প্রস্তুত কম্বুচা যোগ করতে হবে।  তার পর সক্রিয় SCOBY-তে ঢালতে হবে। একটি স্তর বা ফিল্টার দিয়ে ঢেকে ১৫-২০ দিনের জন্য রাখতে হবে। একটি শীতল শুকনো জায়গায় ৬৫ থেকে ৮০ ডিগ্রিতে সংরক্ষণ করতে হবে। কম্বুচাকে যত বেশি দিন সংরক্ষণ করা হবে, তত কম মিষ্টি স্বাদ হবে।
টি ব্যাগগুলি সরিয়ে ১/২ কাপ ভিনিগার বা ইতিমধ্যে প্রস্তুত কম্বুচা যোগ করতে হবে। তার পর সক্রিয় SCOBY-তে ঢালতে হবে। একটি স্তর বা ফিল্টার দিয়ে ঢেকে ১৫-২০ দিনের জন্য রাখতে হবে। একটি শীতল শুকনো জায়গায় ৬৫ থেকে ৮০ ডিগ্রিতে সংরক্ষণ করতে হবে। কম্বুচাকে যত বেশি দিন সংরক্ষণ করা হবে, তত কম মিষ্টি স্বাদ হবে।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla