T20 World Cup 2021: ব্যাটে-বলে স্কটল্যান্ডকে গুড়িয়ে দিল আফগানিস্তান

১৯১ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে মুজিব-রশিদদের ঘূর্ণির দাপট সামাল দিতেই পারল না স্কটরা। সুপার-১২ এ নিজেদের প্রথম ম্যাচেই বড় জয় পেল আফগানিস্তান।

T20 World Cup 2021: ব্যাটে-বলে স্কটল্যান্ডকে গুড়িয়ে দিল আফগানিস্তান
T20 World Cup 2021: ব্যাটে-বলে স্কটল্যান্ডকে গুড়িয়ে দিল আফগানিস্তান

শারজা: ২২ গজে আফগানিস্তান (Afghanistan) খেলবে আর চমক থাকবে না এটা হতে পারে না। যোগ্যতা অর্জন পর্বের তিনটে ম্যাচে দাপটের সঙ্গে জেতা স্কটল্যান্ডকে (Scotland) হারিয়ে দুরন্ত জয় রশিদ খানদের। এই আফগানিস্তানকে আটকানো কঠিন। দেশ তালিবানদের দখলে। ম্যাচের আগেই আফগান অধিনায়ক জানিয়েছিলেন, নিজেদের সেরাটা মাঠে উজাড় করে দেবেন। আর করলেনও তাই। ১৯০ রানের পাহাড় গড়েছিল আফগানরা। যেখানে মাত্র ৬০ রানেই অল আউট হয়ে যায় স্কটরা।

শারজায় টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন আফগানিস্তান অধিনায়ক মহম্মদ নবি (Mohammad Nabi)। অজানা স্কটল্যান্ডের (Scotland) বিরুদ্ধে ঝোড়ো ব্যাটিংয়ের দাপটে মাত্র ৪ উইকেট হারিয়ে ১৯০ রানের বড় স্কোর কে আফগানিস্তান। দলের হয়ে সর্বোচ্চ রানের (৩৪ বলে ৫৯ রান) বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন নাজিবুল্লাহ জার্ডান (Najibullah Zardan)। তিনি ছাড়াও আফগানদের বড় রানের টার্গেট খাড়া করতে গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন হসরতউল্লাহ জাজাই, মহম্মদ শাহজাদ এবং রহমানউল্লাহ গুরবাজরা।

শুরু থেকেই দাপটের সঙ্গে স্কট বোলারদের শাসন করতে থাকেন দুই আফগান ওপেনার। ৫৪ রানের পার্টনারশিপের পর সেই জুটিতে ভাঙন ধরান সেফান শারিফ। ২২ রানে আউট হন শাহজাদ। এরপর রহমানউল্লাহ গুরবাজ ক্রিজে আসেন। জাজাইয়ের সঙ্গে জুটিতে দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন রহমানউল্লাহ। ২৮ রানের পার্টনারশিপ করার পরই দ্বিতীয় উইকেট হারায় আফগানরা। ৩০ বলে ৪৪ রান করে আউট হন জাজাই। এরপর নাজিবুল্লাহ জার্ডান ও রহমানউল্লাহ গুরবাজ মিলে দ্রুত দলের রান বাড়াতে থাকেন। হাফসেঞ্চুরির দোরগোড়ায় থাকা গুরবাজের উইকেট তুলে নেন জস ডেভি। ৩৭ বলে ৪৬ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন গুরবাজ। এরপর মাঠে আসেন আফগান ক্যাপ্টেন মহম্মদ নবি। জার্ডানের সঙ্গে শেষ পর্যন্ত দলকে ১৯০ রানে পৌঁছে দেন নবি। শেষ বলে আউট হল জার্ডান। তবে ৩৪ বলে ৫৯ রানের দুরন্ত ইনিংস তিনি সাজিয়েছিলেন ৫টি চার ও ৩টি ছয় দিয়ে। এবং, নবি ৪ বলে ১১ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন।

কাইল কোয়ের্টজারের (Kyle Coetzer) স্কটল্যান্ডের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১৯১ রান। এত বড় রান দেখে শুরু থেকেই যেন ভয় চেপে বসেছিল স্কটদের ওপর। যে স্কটল্যান্ডের ক্রিকেটাররা যোগ্যতা অর্জন পর্বের তিনটে ম্যাচেই জিতে সুপার-১২ এ এল, তাঁদের বিন্দু মাত্র খুঁজে পাওয়া গেল না। বোলিং বিভাগে দাপট দেখালেন মুজিব উর রহমান ও রশিদ খানরা। স্কটল্যান্ডের ইনিংসের চতুর্থ ওভারে ৩টি উইকেট নিয়েই থেমে থাকেননি মুজিব উর রহমান। তারপর আরও দুটি উইকেট নেন তিনি। ৪ ওভারে ২০ রানের বিনিময়ে মোট ৫ উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরা মুজিবই।

চতুর্থ ওভারে স্কটল্যান্ডকে বড়সড় ধাক্কা দেন মুজিব উর রহমান। ওই ওভারে মাত্র ১ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট নেন তিনি। চতুর্থ ওভারের দ্বিতীয় বলে স্কট ক্যাপ্টেন কাইল কোয়ের্টজারের উইকেট তুলে নেন মুজিব। ১০ রান করে সাজঘরে ফেরেন কোয়ের্টজার। ওই ওভারের তৃতীয় বলে ক্যালাম ম্যাকলয়েডকে (০) আউট করেন মুজিব। এরপর দুটো ডট বল। চতুর্থ ওভারের শেষ বলে ফের উইকেট। ওই ওভারে মুজিব উর রহমানের শেষ বলে এলবিডব্লিউ হয়ে মাঠ ছাড়েন রিচি ব্যারিংটন (০)।

এরপর ম্যাথু ক্রসও কোনও রান না করেই নবিন উল হকের শিকার হন। ফের বল হাতে নিয়েই উইকেট পান মুজিব। এ বার তার শিকার স্কট ওপেনার মুনসি। ১৮ বলে ২৫ রান করে আউট হন তিনি। তারপর বল হাতে নিয়ে আফগান তারকা স্পিনার রশিদ খান ফেরান মিচেল লিস্ককে। আবার উইকেট মুজিবের। ৩ বলে ১ রান করেই আউট হন মার্ক ওয়াট। ৮.৫ ওভারে ক্রিস গ্রিয়েভাসকে ফেরান রশিদ খান। একাদশতম ওভারের দুই উইকেট নেন রশিদ। প্রথমে জস ডেভি (৪), তারপর ব্র্যাড হোয়েল (০)। ব্যাস মাত্র ১০.২ ওভারে ৬০ রান করেই অলআউট হয়ে যায় স্কটল্যান্ড।

সোজা কথায় বলতে গেলে মুজিব-রশিদদের ঘূর্ণির দাপট সামাল দিতেই পারল না স্কটরা। সুপার-১২ এ নিজেদের প্রথম ম্যাচেই বড় জয় পেল আফগানিস্তান।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla