চল্লিশের মাহি বনাম এক ‘তরুণ’ ধোনির গল্প

ভূমিকাটা অধিনায়কের হোক বা ক্রিকেটারের, চেন্নাই নির্বাসিত হওয়ার আগে পর্যন্ত ধোনি ও চেন্নাই সুপার কিংস (Chennai Super Kings) ছিল আইপিএলের (IPL) সমার্থক। দুবছরের নির্বাসন কাটিয়ে ফেরা চেন্নাইকে আবার আইপিএলের ট্রফি উপহার দিলেন ধোনি।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 19:04 PM, 8 Apr 2021
চল্লিশের মাহি বনাম এক 'তরুণ' ধোনির গল্প
চল্লিশের মাহি বনাম এক 'তরুণ' ধোনির গল্প

প্রান্তিক দেব

২০০৮ সাল, আইপিএলের (IPL) প্রথম বছর। তার আগের বছর টি-২০ বিশ্বকাপ (T20 World cup) চ্যাম্পিয়ন অধিনায়ককে সব থেকে বেশি টাকায় দলে টেনে নিয়েছিল চেন্নাই সুপার কিংস (Chennai Super Kings)। তারপর থেকে ধীরে ধীরে ঝাড়খণ্ডের ধোনি (MS Dhoni) হয়ে উঠলেন চেন্নাইয়ের ‘থালা’। ভূমিকাটা অধিনায়কের হোক বা ক্রিকেটারের, চেন্নাই নির্বাসিত হওয়ার আগে পর্যন্ত ধোনি ও চেন্নাই সুপার কিংস ছিল আইপিএলের সমার্থক। দুবছরের নির্বাসন কাটিয়ে ফেরা চেন্নাইকে আবার আইপিএলের ট্রফি উপহার দিলেন ধোনি। সব সাফল্যের একটা শেষ থাকে। ২০২০ এর আইপিএল অনুষ্ঠিত হল আরব দেশে। কিন্তু অতীতের সব সাফল্য হঠাত্‍ করেই উধাও। আইপিএল ইতিহাসের সব থেকে খারাপ পারফরম্যান্স। দল হোক বা ধোনি নিজে সমালোচনায় জেরবার। ২০১৯ বিশ্বকাপের পর সরাসরি ২০২০ আইপিএলের মঞ্চে মাঠে নেমেছিলেন ক্যাপ্টেন কুল। অনেকের মনে হয়েছিল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার পাশাপাশি আইপিএল কেরিয়ারটাও শেষ মাহির। কিন্তু শেষ ম্যাচ আগে ধোনি জানিয়ে দিয়েছিলেন, এখনও শেষ হয়নি তাঁর সফর।

২০২‍১ আইপিএলের ঢাকে কাঠি পড়েছে। ধোনি দল নিয়ে মাঠে নেমে পড়েছেন অস্ত্রে শাণ দিতে। ক্রিকেট মহলের মতে এবারের আইপিএলেই হয়তো শেষ হতে চলেছে ধোনির বর্ণময় ক্রিকেট জীবন। কিন্তু তার আগে একটা কাজ বাকি। সেটা হল, নিজেকে প্রমাণ করে যাবতীয় সমালোচনা উড়িয়ে আবার সিংহাসনে বসা। রাজার মতোই মাঠ ছাড়তে চান মাহি। তাঁর ভক্তরাও চান তা-ই। ২০২১ আইপিএলে ধোনির সাফল্য নির্ভর করছে বেশ কয়েকটি ফ্যাক্টরের ওপর। সেগুলো কী কী?

ব্যাটসম্যান ধোনি
চেন্নাই সুপার কিংসের সাফল্য অনকেটাই নির্ভর করছে ব্যাটসম্যান ধোনির ওপর। তাঁর ব্যাট কথা বলতে শুরু করলেই বেজায় চাপ থাকবে প্রতিপক্ষের উপর। আর সেই সমীকরণ কাজটা সহজ করে দেবে দলের বাকি ক্রিকেটারদের। আইপিএলে বল গড়ানোর আগের কথা যদি বলা হয়, নেটে এবং প্র্যাক্টিস ম্যাচে ছক্কার বন্যা বইয়ে দিচ্ছেন এমএসডি। যা দেখে বেশ স্বস্তিতে আছেন ধোনি ও চেন্নাইয়ের ভক্তরা। অনেকেই বলছেন, চল্লিশের মাহিকে যেন পুরোনো ফর্মে দেখা যাচ্ছে। ঠিক ‘তরুণ’ ধোনির মতো!

ফিনিশার ধোনি
ম্যাচ শেষ করার জন্য ধোনি নিজেকে ব্যাটিং অর্ডারের নীচে নিয়ে যাচ্ছেন। ক্রিকেট মহল বলছে, সেটা করলে চলবে না। বয়স বেড়েছে। রিফ্লেক্সও কমেছে আগের থেকে। ধোনিকে চার বা পাঁচ নম্বরে এসেই দলের হালটা ধরতে হবে। শেষ পর্যন্ত তিনি ২২ গজে থাকতে পারলে ধোনির সঙ্গে হাত মিলিয়ে ফিনিশারের ভূমিকাটা সহজ ভাবে শেষ করতে পারবেন স্যাম কারানরা।

অধিনায়ক ধোনি
ব্যাটসম্যান ধোনি সফল হলেই অধিনায়ক ধোনির কাজটাও অনেকটাই সহজ হয়ে যাবে। ক্যাপ্টেন কুলকে ইদানীং মাঠে মেজাজ হারাতেও দেখা গিয়েছে। কারণটা যে চাপ, সেটা সবাই বুঝতে পারছেন। কিন্তু উইকেটের পিছনে ধোনি যদি নিজেকে মেলে ধরতে পারেন, তা হলে কিন্তু টিমের বোলারদের অর্ধেক কাজ সহজ হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন: আইপিএলের আগেই শ্রেয়সের অস্ত্রোপচার সফল

বয়স ফ্যাক্টর
নির্বাসন কাটিয়ে ফিরে আসার পর থেকেই চেন্নাইকে নিয়ে সমালোচকরা বলেছিলেন, বৃদ্ধদের দল। ধোনি, রায়না, ফাফ, ব্রাভো একাধিক তারকার বয়স হয়েছে। যদিও তাঁরা যথেষ্ট ফিট। কিন্তু ধোনির মত নয়। গতবার সাফল্যে না পাওয়ার পর তাই তীব্র সমালোচনাই হয়েছে। তাই রায়না-ব্রাভোদের মতো অভিজ্ঞদের সঙ্গে তরুণদের মিশিয়ে সঠিক কম্বিনেশন খুঁজে নিতে হবে ধোনিকে। তবে তিন বারের চ্যাম্পিয়ন হলুদ জার্সি নতুন করে ফিরতে পারবে আলোয়।

স্কাউট ধোনি
এ বারের আইপিএল শেষে ধোনি যদি অবসরও নেন, আগামী দিনে তাঁর সঙ্গে চেন্নাইয়ের সম্পর্ক যে শেষ হয়ে যাবে, এমনটা নয়। মেন্টর বা অন্য কোনও ভূমিকায় দলের সঙ্গেই থাকবেন মাহি। আগামী আইপিএলের আগে বড় নিলাম পর্ব হবে। সেখানে চেন্নাই সুপার কিংস টিম ম্যানেজমেন্ট সব থেকে বেশি নজর রাখবে ধোনির নোটবুকে। তাই আগামী দিনের জন্যেও ধোনিকে তৈরি হয়ে বর্তমানে মাঠে নামতে হবে।

ফ্যাক্টর যাই হোক না কেন। তিনি ধোনি। হারতে শেখেননি। তাই এ বারের আইপিএলে ধোনি ভক্তরা একটাই কথা শুনতে চান, ধোনি ফিনিশেস অফ ইন স্টাইল…!