চালক ছাড়াই ঘণ্টায় ১২০ কিলোমিটার বেগে ছুটবে ‘রোবোট্যাক্সি’, দেখুন ভিডিও

চালক ছাড়াই ঘণ্টায় ১২০ কিলোমিটার বেগে ছুটবে 'রোবোট্যাক্সি', দেখুন ভিডিও
এই গাড়িতে রয়েছে চারটি সিট।

এই গাড়িতে রয়েছে চারটি সিট। জানা গিয়েছে, ইলেকট্রিক গাড়িটি বাই-ডিরেকশনাল। অর্থাৎ এটিকে ফরওয়ার্ড বা ব্যাকওয়ার্ড দুই ডিরেকশনেই সমান ভাবে চালানো যাবে।

amartya mukhopadhaya

|

Dec 17, 2020 | 9:02 PM

চালক নেই। নেই স্টিয়ারিং হুইলও। এদিকে দিব্যি গড়গড়িয়ে চলছে গাড়ি। সম্প্রতি এমনই আজব গাড়ির ভিডিও প্রকাশ করেছে মার্কিং সংস্থা অ্যামাজন। সদ্যই Zoox নামের একটি সংস্থাকে অধিগ্রহণ করেছে অ্যামাজন। এই সংস্থারই নতুন প্রজেক্ট চালকহীন ইলেকট্রিক গাড়ি বানানো। তাদের এই অভিনব গাড়ির নাম রোবোট্যাক্সি।

এই গাড়িতে রয়েছে চারটি সিট। জানা গিয়েছে, ইলেকট্রিক গাড়িটি বাই-ডিরেকশনাল। অর্থাৎ এটিকে ফরওয়ার্ড বা ব্যাকওয়ার্ড দুই ডিরেকশনেই সমান ভাবে চালানো যাবে। Zoox-এর এই রোবোট্যাক্সিতে রয়েছে চারটি স্টাইলিশ চাকা। সঠিক সময়ে গন্তব্যে পৌঁছতে এবং পার্কিং লটে গাড়ি পার্ক করার ক্ষেত্রে এই অত্যাধুনিক চাকাগুলো কাজে লাগবে।

আরও পড়ুন- লঞ্চের পরই বাজিমাৎ নিসান ম্যাগনাইটের, প্রথম পাঁচ দিনে পাঁচ হাজার বুকিং

চালক ছাড়াই এই ইলেকট্রিক রোবোট্যাক্সি ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৭৫ মাইল বা ১২০ কিলোমিটার বেগে চলতে পারে। মূলত ব্যাটারিতে চলবে এই রোবোট্যাক্সি। এই গাড়ির মধ্যে রয়েছে অত্যাধুনিক ১৩৩ kWh ব্যাটারি। একবার ফুল চার্জ দিলে টানা ১৬ ঘণ্টা চলতে পারবে এই গাড়ি।

যেহেতু এই গাড়ি চালক ছাড়াই চলবে তাই এর মধ্যে ইনস্টল করা হয়েছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি। একাধিক ফিচার আর টেকনোলজির এই গাড়িতে রয়েছে বিশেষ এআই। যার সাহায্যে গাড়িতে ইনস্টল রয়েছে ট্র্যাফিক ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। রাস্তাঘাটে চলার সময় বিপদের সম্ভাবনা থাকলে আগাম আভাস পাবে এই গাড়ি।

Zoox-এর এই রোবোট্যাক্সিতে রয়েছে একাধিক ক্যামেরা, রাইডার এবং লাইডার টেকনোলজি। সব ক্যামেরাতেই সংযুক্ত রয়েছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি। রাস্তায় চলার সময় উল্টো দিক থেকে কোনও যানবাহন বা মানুষ এমনকি পশুপাখি এলেও আগাম টের পাবে এই গাড়ি। সেই পরিস্থিতিতে প্রয়োজন মতো ব্যবস্থাও নিতে পারবে এই রোবোট্যাক্সি।

গাড়িটি রাস্তায় চলার সময় আশপাশে ৩৬০ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে নজরদারি চালাতে পারবে। এছাড়াও যে কোনও অ্যাঙ্গেল থেকে ১৫০ মিটার পর্যন্ত এলাকায় নজরদারি চালাতে পারবে গাড়িটি। লুক অ্যান্ড ডিজাইনেও এই গাড়ি বেশ আকর্ষণীয়। ছোট্ট আকারের গাড়িতে যে এত সুবিধে রয়েছে তা সত্যিই অবিশ্বাস্য। আপাতত এই গাড়ি নিয়ে লাস ভেগাস এবং সান ফ্রান্সিস্কোতে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। বিশ্বে বাজারে জনসাধারণের জন্য এই গাড়ি কবে থেকে পাওয়া যাবে সে ব্যাপারে এখনও কিছু জানায়নি প্রস্তুতকারী সংস্থা।

ভিডিও সৌজন্যে- ইউটিউব 

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA