বিপন্ন প্রজাতির কুমিরের চামড়া দিয়ে রোলস রয়েসের অন্দরসজ্জা! গুরুতর অভিযোগে বাজেয়াপ্ত ‘ফ্যান্টম’ মডেল

শোনা যাচ্ছে, এই প্রথম নয়। এর আগেও বিপন্ন প্রাণীদের চামড়া এবং অন্যান্য সংরক্ষণ প্রয়োজন এমন প্রাকৃতিক জিনিস ব্যবহারের অভিযোগে বাজেয়াপ্ত হয়েছে অনেক বিলাসবহুল গাড়ি।

বিপন্ন প্রজাতির কুমিরের চামড়া দিয়ে রোলস রয়েসের অন্দরসজ্জা! গুরুতর অভিযোগে বাজেয়াপ্ত 'ফ্যান্টম' মডেল
বিলুপ্তপ্রায় এবং বিপন্ন প্রজাতির কুমিরের চামড়া দিয়ে রোলস রয়েস ফ্যান্টম গাড়ির অন্দরসজ্জা হয়েছে বলে অভিযোগ।

বিলুপ্ত প্রায় এবং বিপন্ন কুমিরের চামড়া দিয়ে তৈরি হয়েছে রোলস রয়েস গাড়ির ভিতরের বেশ কিছু অংশ। এই অভিযোগেই ইতালিতে একটি uber-luxurious Rolls Royce Phantom বাজেয়াপ্ত করেছে সেখানকার শুল্ক বিভাগ। LuxuryLaunches- এর প্রতিবেদন থেকে এমনটাই জানা গিয়েছে। সবচেয়ে আশ্চর্য্যজনক বিষয়ক হল রোলস রয়েসের মতো নামি সংস্থার official company brochure- এ এইসব বিষয়ের উল্লেখ থাকে না।

অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় যে বিলাসবহুল গাড়ি কেনার পর গ্রাহকরা পছন্দ মতো গাড়ি সাজিয়ে নেন। যাকে বলে ‘বাহিকেল কাস্টোমাইজেশন’। আর এ ক্ষেত্রে বিলাসবহুল গাড়ির ‘রহিসজাদা’ মালিকরা হয়ে ওঠেন খামখেয়ালি। কার্যত অর্থের বিনিময়ে যা ইচ্ছে হয় সেভাবেই সাজান গাড়ি। আর সেসব করতে গিয়ে নিয়ম কানুন মেনে চলার বালাই- ই থাকে না অনেকের মধ্যে। এই রোলস রয়েস ফ্যান্টম মডেলের ক্ষেত্রেও ঠিক তেমনটাই হয়েছে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

সূত্রের খবর, রোসল রয়েস ফ্যান্টম গাড়ির ভিতরের অংশে যে বিপন্ন কুমিরের চামড়া ব্যবহার করা হয়েছে, সেটা রাশিয়া থেকে ইতালিতে আমদানি করা হয়েছিল। রোমের একটি বিলাসবহুল গাড়ির শোরুমে পুনরায় বিক্রি করা হয়েছিল ওই কুমিরের চামড়া। যদিও গোটা ব্যাপারটা এখন আর ধামাচাপা নেই। বরং ইতালীয় কাস্টমসের নজরে এসেছে সবকিছুই। আর তাই রোলস রয়েস ফ্যান্টমের ওই মডেল বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

শোনা যাচ্ছে, এই প্রথম নয়। এর আগেও বিপন্ন প্রাণীদের চামড়া এবং অন্যান্য সংরক্ষণ প্রয়োজন এমন প্রাকৃতিক জিনিস ব্যবহারের অভিযোগে বাজেয়াপ্ত হয়েছে অনেক বিলাসবহুল গাড়ি। রোলস রয়েসের মডেলও ছিল সেই তালিকায়। তবে বিলুপ্ত প্রায় প্রজাতির কুমিরের চামড়ার ব্যবহার হয়েছে এই প্রথম। সূত্রের খবর, এই রোলস রয়েস ফ্যান্টম মডেলের ভিতরের অংশে ব্যবহৃত হয়েছে Hermès লেদার এবং হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জের কোয়া কাঠ। গাড়ির ড্যাশবোর্ড তৈরিতে ওই কোয়া কাঠ ব্যবহৃত হয়েছে বলে শোনা গিয়েছে।

আরও পড়ুন- ভারতে আসছে স্কোডা অটোর নতুন জেনারেশনের অক্টাভিয়া মডেল, কবে লঞ্চ হবে এই গাড়ি?

এই দুই জিনিসের ব্যবহারই বেআইনি। তাই রোলস রয়েস ফ্যান্টমের মালিককে মোটা অঙ্কের জরিমানা দেওয়ার পাশাপাশি গাড়ির ইন্টিরিয়র অর্থাৎ ভিতরের অংশে ব্যবহৃত উপাদানও বদলে ফেলতে হতে পারে।