BJP: বালুরঘাটেও নিয়োগ কেলেঙ্কারির অভিযোগ, নেতাদের লিস্ট বানাবে বলছে বিজেপি

Balurghat: বিজেপির অভিযোগ, শিক্ষক নিয়োগ থেকে বিভিন্ন নিয়োগ দুর্নীতিতে যুক্ত রয়েছেন জেলার নেতা মন্ত্রী থেকে তাবড়-তাবড় প্রভাবশালীরা।

BJP: বালুরঘাটেও নিয়োগ কেলেঙ্কারির অভিযোগ, নেতাদের লিস্ট বানাবে বলছে বিজেপি
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অবন্তিকা প্রামাণিক

Aug 03, 2022 | 9:58 AM

বালুরঘাট: নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য। কেলেঙ্কারিতে নাম জড়িয়েছে প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও তাঁর ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের। ইতিমধ্যে তাঁরা রয়েছেন ইডি হেফাজতে। তবে নিয়োগ দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে জেলাগুলি থেকেও। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলাতেও শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে ব্যাপক দুর্নীতি হয়েছে।একাধিক এজেন্সির মাধ্যমে টাকা তোলা হয়েছে।নামের লিস্ট তৈরি করছে বিজেপি। জেলাতেও তদন্ত পক্রিয়া এসে পৌঁছাক এমনটাই দাবি জেলা বিজেপি নেতৃত্বর।

বিজেপির অভিযোগ, শিক্ষক নিয়োগ থেকে বিভিন্ন নিয়োগ দুর্নীতিতে যুক্ত রয়েছেন জেলার নেতা মন্ত্রী থেকে তাবড়-তাবড় প্রভাবশালীরা। সেই নামের তালিকা তৈরি করছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা বিজেপি নেতৃত্ব। যথা সময়ে তা তুলে দেওয়া হবে আধিকারিকদের হাতে। অন্যান্য জায়গার পাশাপাশি দক্ষিণ দিনাজপুর জেলাতেও যাতে ইডি আধিকারিকরা অভিযান চালান তার জন্য আর্জি করেছে বিজেপি। ইডি অভিযান করলে বহু দুর্নীতির তথ্য সামনে আসবে।

এই বিষয় নিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে বালুরঘাট শহরের কল্যাণীঘাট এলাকায় অবস্থিত বিজেপির জেলা কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করলেন জেলা বিজেপি নেতৃত্ব। যেখানে হাজির ছিলেন বিজেপির জেলা সভাপতি স্বরূপ চৌধুরী, তপনের বিধায়ক বুধুরাই টুডু ও প্রাক্তন জেলা সভাপতি বিনয় কুমার বর্মণ। সাংবাদিক সম্মেলন থেকে বিজেপির জেলা সভাপতি স্বরূপ চৌধুরী বলেন, ‘প্রাক্তন শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ বান্ধবীর বাড়িতে থেকে উদ্ধার হয়েছে কোটি-কোটি টাকা। ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে প্রাক্তন মন্ত্রী ঘনিষ্ঠ বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে। এমনকী প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কেও গ্রেফতার করেছে ইডি। এ দিকে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে যখন রাজ্য রাজনীতি তোলপাড়, সেই সময় দক্ষিণ দিনাজপুর জেলাতে শিক্ষক সহ বিভিন্ন নিয়োগ নিয়ে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। যেখানে জড়িত আছে জেলার নেতা মন্ত্রীদের পাশাপাশি একাধিক প্রভাবশালী। তাদের নামের লিস্ট তৈরি রাখা হয়েছে। যথা সময়ে তা প্রকাশ করা হবে। তাই আমাদের দাবি এই তদন্ত পক্রিয়া দক্ষিণ দিনাজপুর জেলাতেও এসে পৌঁছক। চাকরি দিয়ে টাকার জন্য প্রচুর এজেন্সি কাজ করেছে। তাই এই জেলাতেও তদন্ত হোক। এছাড়াও এই দুর্নীতি নিয়ে চলতি মাসে একাধিক কর্মসূচি রাখা হয়েছে। একদম বুথ স্তর থেকে এই আন্দোলন শুরু হবে। যা শেষে জেলা প্রশাসনিক ভবনের সামনে বড় কর্মসূচির মধ্য দিয়ে।’

এই খবরটিও পড়ুন

অন্যদিকে, এ বিষয়ে তৃণমূল নেতা সুভাষ চাকি বলেন, ‘অভিযোগ অভিযোগই। অভিযোগকে প্রমাণিত করতে হয়।এই কথাটায় প্রমাণ করে ইডির মত তদন্তকারী সংস্থাকে বিজেপির নেতৃত্বের কথায় উঠছে বসছে। এটা বাংলার মানুষের কাছে পরিস্কার। আইনের জগতের মানুষ হওয়ায় বলতি পারি যে কেউই যে কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ আনতে পারে। তবে অভিযোগ প্রমাণিত না হলে পরে দোষী বলা যায় না কাউকেই। তবে এমন কোনও ঘটনা ঘটলে আইন আইনের পথে যাবে।’

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla