ঝাড়খণ্ডের বৃষ্টিতে বন্যার ভ্রুকুটি বঙ্গে, ৫ জেলায় সক্রিয়তা, সতর্ক থাকতে বলল নবান্ন

শনিবার দুপুরে ৯ জেলার জেলাশাসকদের নিয়ে বৈঠক করেন রাজ্যের মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী

ঝাড়খণ্ডের বৃষ্টিতে বন্যার ভ্রুকুটি বঙ্গে, ৫ জেলায় সক্রিয়তা, সতর্ক থাকতে বলল নবান্ন

কলকাতা: দক্ষিণের বেশ কয়েকটি জেলায় বৃষ্টি থেমেছে। কিন্তু গজগতির নিম্নচাপের জেরে ঝাড়খণ্ডে বৃষ্টি বেড়েছে। ডিভিসি লাগাতার জল ছাড়ছে মাইথন, পাঞ্চেত ও তেনুঘাট জলাধার থেকে। যার ফলে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে শনিবার দুপুরে ৯ জেলার জেলাশাসকদের নিয়ে বৈঠক করেন রাজ্যের মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। সূত্রের খবর, পশ্চিম মেদিনীপুর, পশ্চিম বর্ধমান, পূর্ব বর্ধমান, হুগলি ও হাওড়ার জেলাশাসককে বিশেষভাবে সতর্ক করে তিনি।

মুখ্যসচিব বলেছেন, যেভাবে একাধিক ব্যারেজ থেকে জল ছাড়া হচ্ছে, তাতে এই জেলায় থাকা সমস্ত নদীর জলস্তর ক্রমশ বেড়েই চলেছে। জেলাশাসকদের উদ্দেশ্য করে দ্বিবেদী বলেন, প্রতি আপনারা নজর রাখুন। নবান্ন সূত্রে খবর, ইতিমধ্যেই বিভিন্ন জায়গায় এনডিআরএফ ও এসডিআরএফ-এর টিম মোতায়েন করা হয়েছে। পর্যাপ্ত পরিমাণে ত্রাণের ব্যবস্থাও করতে বলা হয়েছে জেলা প্রশাসনকে। বিদপসঙ্কুল এলাকায় থাকা প্রায় ৩২ হাজার মানুষকে ইতিমধ্যেই স্থানান্তরিত করা হয়েছে অন্য অঞ্চলে।

উল্লেখ্য, শনিবার দুপুর সাড়ে ১২ টায় ৯ জেলার জেলাশাসকদের সঙ্গে জরুরি ভার্চুয়াল বৈঠক করেন মুখ্যসচিব। যে জেলাগুলিতে অতিরিক্ত বৃষ্টিপাত হচ্ছে এবং বন্যার মতো পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার দিকে, সেই জেলাশাসকদের সঙ্গেই বৈঠক করেন তিনি। বৈঠকে দার্জিলিং, কালিম্পং, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হুগলি, পশ্চিম বর্ধমান, হাওড়া, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার জেলাশাসক হাজির ছিলেন। আরও পড়ুন: ‘গডফাদার’ই ফেলল জালে, শহরে বামাল গ্রেফতার কর্পোরেট তরুণ-তরুণীরা

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla