Kurmi Agitation: ‘দলিত আদিবাসীদের দিকে নজর নেই কেন্দ্রের’, কুড়মি অবরোধ প্রসঙ্গে কেন্দ্রকে বিঁধলেন মন্ত্রী

Snehasish Chakraborty: ২৪ ঘণ্টারও বেশি রেল অবরোধ এবং কুড়মিদের এই আন্দোলন নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিলেন রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী।

Kurmi Agitation: ‘দলিত আদিবাসীদের দিকে নজর নেই কেন্দ্রের’, কুড়মি অবরোধ প্রসঙ্গে কেন্দ্রকে বিঁধলেন মন্ত্রী
রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অংশুমান গোস্বামী

Sep 21, 2022 | 7:12 PM

কোন্নগর: কুড়মি জাতিকে তফসিলি জনজাতি সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত করতে হবে এবং কুড়মালি ভাষাকে সংবিধানের অষ্টম তফসিলির অন্তর্ভুক্তির দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে কুড়মি সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিরা। মঙ্গলবর সকাল থেকেই ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়াও পশ্চিম মেদিনীপুরের বিভিন্ন রেলস্টেশন ও সড়ক অবরোধ করেন তাঁরা। যার জেরে দক্ষিণ-পূর্ব রেলের একাধিক ট্রেন বাতিল হয়েছে। প্রচুর ট্রেনের যাত্রাপথের বদল হয়েছে। বিভিন্ন সড়কেও আটকে পড়েছিল একাধিক গাড়ি। এর জেরে ব্যাপক সমস্যায় পড়েন নিত্য়যাত্রীরা। পুজোর মুখে পর্যটকরাও চরম হয়রানির শিকার। ২৪ ঘণ্টারও বেশি রেল অবরোধ এবং কুড়মিদের এই আন্দোলন নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিলেন রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী। এই উদাসীনতার জন্য কেন্দ্রকে বিঁধেছেন তিনি। আদিবাসীদের উপর আক্রমণ বিজেপির আমলে সবথেকে বেশি হয়েছে বলেও অভিযোগ তাঁর।

বুধবার হুগলির কোন্নগরে রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী বলেছেন, “কেন্দ্রের এই সরকারের আমলে সবথেকে অত্যাচার হয়েছে দলিত, আদিবাসী, জনগোষ্ঠী মানুষের উপর। বিজেপি শাসিত রাজ্যে উত্তরপ্রদেশে দলিতদের উপর সব থেকে বেশি অত্যাচার হচ্ছে। আদিবাসী মানুষেরাই হচ্ছে আমাদের এ দেশের অরিজিন। তাঁদের ভাষা সংস্কৃতি কৃষ্টি এগুলিকে তুলে ধরার জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকার প্রভূত ব্যবস্থা নিয়েছেন। তাঁদের সামাজিক ও আর্থিক মান উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন সরকারি প্রকল্প তাঁদের জন্য রয়েছে। কেন্দ্র সরকার একটা মুষ্টিমেয় মানুষের সরকার। ধনীদের, শিল্পপতিদের সরকারে পরিণত হয়েছে। তাই তাঁদের দলিত আদিবাসীদের দিকে নজর নেই। তাই প্রতিবাদ হচ্ছে। পুজোর মুখে যানবাহন ব্যাহত হওয়ায় সকলেরই অসুবিধা হচ্ছে। সেগুলি কেন্দ্রীয় সরকারের দেখা উচিত।”

রাজ্যের পর্যটন মন্ত্রীর অভিযোগ খণ্ডন করে বিজেপি সাংসদ লকেট চ্যাটার্জি বলেছেন, “উনারা যে কথা বলেছেন আর যা করেছেন, তার মধ্যে বিস্তর ফারাক। এসসি, এসটিদের জন্য নরেন্দ্র মোদীজির সরকার যে রকম নতুন নতুন প্রকল্প নিয়ে এসেছেন, তা অন্য কোনও সরকারের আমলে কখনও হয়নি। বাংলায় জঙ্গলমহল হাসছে বলে আদিবাসীদের সঙ্গে যে বেইমানি করেছে মমতা ব্যানার্জির সরকার। তা অন্য কোনও রাজ্যের সরকার করেনি। বিজেপি সকলের কথা ভাবে বলেই দেশের শীর্ষ পদে মহিলা আদিবাসীকে বসিয়েছে।”

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla