Howrah news: প্রধানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ, পঞ্চায়েত অফিসে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ তৃণমূলেরই সদস্যদের

TMC in Domjur: তৃণমূলের ৫ জন পঞ্চায়েত সদস্য এবং তাঁদের অনুগামীরা পঞ্চায়েত অফিসের সামনে এসে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। তালা ঝুলিয়ে দেন পঞ্চায়েত অফিসে।

Howrah news: প্রধানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ, পঞ্চায়েত অফিসে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ তৃণমূলেরই সদস্যদের
তালা বন্ধ পঞ্চায়েত অফিস
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Soumya Saha

Aug 08, 2022 | 5:19 PM

ডোমজুড় : তৃণমূল পরিচালিত গ্রাম পঞ্চায়েত। অথচ সেই পঞ্চায়েত অফিসেই ঢুকতে পারলেন না স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান। কারণ, পঞ্চায়েত অফিসে ঢোকার মুখেই তালাবন্ধ করে দিয়েছেন শাসক দলেরই পঞ্চায়েত সদস্যরা। তৃণমূলের বাকি পঞ্চায়েত সদস্যদের একাংশের অভিযোগ, বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়নের কাজে দুর্নীতি করেছেন এই পঞ্চায়েত প্রধান। সেই কারণেই পঞ্চায়েত অফিসে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। সোমবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে হাওড়া জেলার ডোমজুড়ের কোলড়া এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসে। পঞ্চায়েত অফিসে এদিন সকালে প্রধান ঢুকতে গেলে তাঁকে বাধা দেন তৃণমূলেরই বাকি পঞ্চায়েত সদস্যরা। বিক্ষোভের জেরে পঞ্চায়েত অফিসের বাইরেই অপেক্ষা করতে হয় প্রধানকে। পরে পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পুলিশ গেলে, বিক্ষুব্ধ পঞ্চায়েত সদস্যরা প্রধানের গ্রেফতারিরও দাবি তোলেন।

তৃণমূলের পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে তৃণমূল সদস্যদেরই বিক্ষোভ

ডোমজুড়ের কলোড়া এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত। পঞ্চায়েত চালাচ্ছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। ১২ সদস্যের এই গ্রাম পঞ্চায়েতে তৃণমূলের সদস্য রয়েছেন ৯ জন। বাকিদের মধ্যে ২ জন বিজেপির সদস্য এবং অন্যজন নির্দল সদস্য। স্থানীয় পঞ্চায়েতের প্রধান নিলুফা মল্লিক। এদিন সকালে তৃণমূলের ৫ জন পঞ্চায়েত সদস্য এবং তাঁদের অনুগামীরা পঞ্চায়েত অফিসের সামনে এসে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। তালা ঝুলিয়ে দেন পঞ্চায়েত অফিসে।

যে যে অভিযোগগুলি তোলা হয়েছে –

প্রথমত, পঞ্চায়েত প্রধান বাকি তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্যদের সঙ্গে কোনওরকম আলোচনা করেন না। উল্টে, দুই বিজেপি সদস্য এবং এক নির্দল সদস্যকে নিয়েই তিনি পঞ্চায়েত চালান বলে অভিযোগ বিক্ষুব্ধদের।

দ্বিতীয়ত, লাখ লাখ টাকার আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগও তোলা হয়েছে পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে। বিশেষ করে আমফান পরবর্তী সময়ে। এর পাশাপাশি কবরস্থানের মাটি ফেলা থেকে শুরু করে রাস্তা তৈরির কাজ এবং ১০০ দিনের কাজ সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে লক্ষ লক্ষ টাকা দুর্নীতির অভিযোগও তোলা হয়েছে। প্রসঙ্গত, একশো দিনের কাজে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় দুর্নীতির অভিযোগে ইতিমধ্যে সরব হয়েছে বঙ্গ বিজেপি শিবির।

তৃতীয়ত, স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান নিলুফা মল্লিকের স্বামী প্রতিদিন পঞ্চায়েত অফিসে এসে বসে থাকেন এবং পঞ্চায়েতের বিভিন্ন কাজে তিনি হস্তক্ষেপ করেন।

চতুর্থত, কিছুদিন আগেই পঞ্চায়েত অফিস থেকে একটি ল্যাপটপ খোয়া গিয়েছে। ওই ঘটনার পিছনেও পঞ্চায়েত প্রধানের হাত থাকতে পারে বলে অভিযোগ বিক্ষুব্ধ পঞ্চায়েত সদস্যদের।

এই খবরটিও পড়ুন

কী বলছেন পঞ্চায়েত প্রধান?

স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান নিলুফা মল্লিক অবশ্য এদিন তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা এই অভিযোগগুলি পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন। যাবতীয় অভিযোগ মিথ্যা বলেও জানিয়েছেন তিনি। পঞ্চায়েত প্রধান বলেন, ” পঞ্চায়েত বোর্ড গঠন হওয়ার পর থেকেই এই সমস্যা চলছে। চারজন সদস্য এবং তাঁদের কিছু লোক আমাদের বাড়িতে গিয়েছিল। ওদের কিছু দাবি ছিল। কিন্তু সেটা আমাদের পক্ষে মানা সম্ভব নয়। আমার সিদ্ধান্ত ছিল, পঞ্চায়েতের ১২ জন সদস্য একসঙ্গে কাজ করব। কিন্তু সেই সিদ্ধান্ত ওদের পছন্দ হয়নি। অফিসের মিটিং-এ বার বার সমস্যা করে। দুর্নীতির অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা।”

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla