গ্রামবাসীর নালিশে মেজাজ বিগড়ল মন্ত্রীর, ধমক খেলেন বিডিও

অভিযোগ শুনেই গ্রামবাসীদের সামনে দাঁড়িয়ে মন্ত্রী ফোন করেন বানারহাটের বিডিওকে। তাঁকে ধমকের সুরে বলেন, কেন সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে ভারতীয় সীমান্ত এলাকার মানুষজন?

গ্রামবাসীর নালিশে মেজাজ বিগড়ল মন্ত্রীর, ধমক খেলেন বিডিও
নিজস্ব চিত্র
TV9 Bangla Digital

| Edited By: সৈকত দাস

Jun 04, 2021 | 3:57 PM

বানারহাট: গ্রামবাসীদের নালিশের মুখে পড়ে সরকারি অধিকারিককে ধমক দিলেন মন্ত্রী। বুধবার বানারহাট ব্লকের অন্তর্গত ভারত-ভুটান সীমান্ত লাগোয়া গ্রাম চামুর্চিতে এসে গ্রামবাসীদের একাধিক প্রশ্নের মুখে পড়েন রাজ্যের অনগ্রসর শ্রেণি কল্যাণ ও আদিবাসী উন্নয়ন মন্ত্রী বুলু চিক বড়াইক। মন্ত্রীকে কাছে পেয়ে গ্রামবাসীরা নানা অভিযোগ তুলে ধরেন। আর তাতেই ক্ষুব্ধ মন্ত্রী বিডিও-র উপর উগরে দিলেন ক্ষোভ।

এদিন চামুর্চি গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত এলাকা পরিদর্শনে আসেন মন্ত্রী। গ্রামবাসীরা অভিযোগ করেন, একশো দিনের কাজ পাচ্ছেন না তাঁরা। এমনকি রেশনও ঠিকমত দেওয়া হচ্ছে না। যেখানে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দুয়ারে রেশন প্রকল্প চালু করেছেন সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে ভারত-ভুটান সীমান্ত এলাকার মানুষ সঠিকভাবে রেশন না পাওয়ার অভিযোগ পেয়ে রীতিমতো ক্ষুব্ধ হন মন্ত্রী। এই অভিযোগ শুনেই গ্রামবাসীদের সামনে দাঁড়িয়ে মন্ত্রী ফোন করেন বানারহাটের বিডিওকে। তাঁকে ধমকের সুরে বলেন, কেন সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে ভারতীয় সীমান্ত এলাকার মানুষজন? এখানেই শেষ নয়। সরেজমিনে এসে এলাকাবাসীর সমস্যা শুনে দ্রুত সমস্যার সমাধান করতে বলেন মন্ত্রী।

উল্লেখ্য,কিছুদিন আগেই ধূপগুড়িতে গ্রামীণ হাসপাতালে পরিদর্শনে এসে হাসপাতালের পরিকাঠামো দেখে ধূপগুড়ি ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক ডা: সুরজিৎ ঘোষকে ধমক দিতে দেখা গিয়েছিল মন্ত্রীকে। এদিন চামুর্চি গ্রাম পঞ্চায়েত ছাড়াও চা-বাগান-সহ বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেন তিনি। বানারহাটের হাতির নালা ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ডিভিশন লাইনে কালভার্ট পরিদর্শন করে এলাকাবাসীর সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ কথা বলেন, তাঁদের সমস্যার কথা শোনেন। সেসব নথিবদ্ধ করে বানারহাটের সদ্য দায়িত্ব পাওয়া ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক পল্লাদ বিশ্বাসকে ফোন করেন। ধমক দিয়ে তাঁকে বলেন, একশো দিনের কাজ ও রেশন যাতে সাধারণ মানুষ সঠিক ভাবে পান তা যেন দেখা হয়।

মন্ত্রী বুলিচিক বড়াইক বলেন, আমি ভারত ও ভুটান সীমান্তবর্তী লাগোয়া চামুর্চির গ্রাম পঞ্চায়েত সহ চা-বাগান পরিদর্শন করে এলাকাবাসীর মুখে অভিযোগ শোনামাত্রই ঘটনাস্থল থেকেই বিডিওকে ফোন করি। দ্রুত পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আমার দফতর থেকেও যত ধরনের সুযোগ সুবিধা আছে দেওয়া হবে বলে আশ্বস্ত করা হয়েছে তাঁদের।

এ দিকে এই ঘটনার পর বানারহাটের বিডিও প্রহ্লাদ বিশ্বাস কে ফোন করা হলে তাকে ফোনে পাওয়া যায় না।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla