‘যে কোনও সময় খুন হয়ে যেতে পারি’, অর্জুন সিং-কে Z ক্যাটাগরি নিরাপত্তা দিল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক

Arjun Singh: বোমাবাজির ঘটনার পর অর্জুন সিংয়ের ছেলে পবন সিংয়ের সঙ্গে ফোনে দীর্ঘক্ষন কথা বলেছেন এনআইএ-এর এক কর্তা।

'যে কোনও সময় খুন হয়ে যেতে পারি', অর্জুন সিং-কে Z ক্যাটাগরি নিরাপত্তা দিল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক
পরপর দু'দিন বোমা ছোড়া বোমাবাজি হয়েছে অর্জুন সিং-এর বাড়ি লক্ষ্য করে

ব্যারাকপুর: এক সপ্তাহের মধ্যে পরপর দু’দিন বোমাবাজির ঘটনার জেরে নিরাপত্তা বাড়ল বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং-(Arjun Singh)এর। এত দিন পর্যন্ত Y+( ওয়াই প্লাস) ক্যাটাগরি নিরাপত্তা পেতেন তিনি। এবার সেই নিরাপত্তা আরও বাড়ানো হল। অর্জুনকে Z (জেড ক্যাটাগরি)  নিরাপত্তা দেওয়া হল। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের (Home Ministry) তরফে তাঁর নিরাপত্তা বাড়ানো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অর্জুন সিং জানিয়েছেন, তাঁর ওপর বারবার হামলার ঘটনা ঘটেছে। রাজ্য সরকার তাঁকে হত্যার পরিকল্পনা করছে বলেও অভিযোগ জানিয়েছেন অর্জুন।

নিরাপত্তা বাড়ানো প্রসঙ্গে অর্জুন সিং বলেন, ‘যে কোনও সময় খুন হয়ে যেতে পারি।’ তাঁর দাবি, আগেও একাধিকবার এই দাবি করেছেন তিনি। রাজ্যের পুলিশ তথা প্রশাসনের তরফে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলেই তিনি দাবি করেছেন। সাংসদের কথায়, ‘নবান্নে বসে আমাকে মারার পরিকল্পনা হচ্ছে।’ তিনি বলেন, ‘রাজ্য সরকার আমার কথা শোনেনি। কেন্দ্রকে জানিয়েছিলাম। কেন্দ্র বুঝতে পেরেছে যে আমার ওপর বারবার হামলা হচ্ছে। সরকার মেরে দেওয়ার প্ল্যান করছে। তাই নিরাপত্তা বাড়িয়েছে।

কী এই Z ক্যাটাগতি নিরাপত্তা?

এই শ্রেণির নিরাপত্তায় নিযুক্ত থাকে ২২ জনের বাহিনী। এর মধ্যে ৪ থেকে ৬ জন এনএসজি কমান্ডো থাকে। এ ছাড়া এই নিরাপত্তায় কেউ দেখা করতে চাইলে দুবার তাঁকে চেক করে তবে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়।

কেন বাড়ানো হল নিরাপত্তা?

সেপ্টেম্বরে একই সপ্তাহে পরপর দু’বার বোমাবাজি হয়েছে অর্জুন সিং-এর বাড়ি লক্ষ্য করে।  ৮ ই সেপ্টেম্বর সাংসদের বাড়িতে বোমা মারার ঘটনা ঘটে। তা নিয় এনআইএ আধিকারিকদের সঙ্গে কথা হয়। এরপর ফের বোমাবাজি হয়। সিআইএসএফ প্রহরার মাত্র দেড় ফুটের মধ্যেই সাংসদ অর্জুন সিংয়ের বাড়িতে বোমাবাজি হয়। তবে প্রথমবার নয়, ভোট পরবর্তী পর্যায়ে জুলাই মাসেও অর্জুনের বাড়িতে বোমাবাজি হয়েছিল।

বর্তমানে সাংসদ অর্জুন সিং ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তা পান। আর তাঁর ছেলে বিধায়ক পবন সিং-এর ওয়াই ক্যাটাগরি নিরাপত্তার দায়িত্বে আছে সিআইএসএফ। সাংসদের বাড়িতে এবং তাঁর বাড়ির দরজায় কেউ প্রবেশ করতে গেলে তাঁর মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে চেকিং, সারা শরীর চেকিং করা হয়। এমনকি সবার পকেট চেকিং হওয়ার পর তবেই প্রবেশের অনুমতি মেলে। বাড়ির সামনে ‘নো পার্কিং জোন’। সাধারণের প্রবেশ নিষিদ্ধ। এই অবস্থায় দুষ্কৃতীরা কীভাবে বারে বারে বোমাবাজি করে? নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন সাংসদের পুত্র পবন সিংও।

ঘটনার পর ঘটনার তদন্তে তৎপর হয় এনআইএ। পবন সিংয়ের সঙ্গে ফোনে দীর্ঘক্ষণ কথা বলেন এনআইএ-এর এক কর্তা। গত ৮ ই সেপ্টেম্বর সাংসদের বাড়িতে বোমা মারার ঘটনা নিয়ে কথা বলেন তিনি।

আরও পড়ুন: Arjun Singh: সাংসদের বাড়ি থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে উদ্ধার ৩টি তাজা বোমা! অনুসন্ধানে পুলিশ কুকুর

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla