Jitendra Tiwari: ‘শিক্ষামন্ত্রী আজীবন নাটক করলেন, এখন শিক্ষা নিয়ে নাটক করছেন’

Asansol: ব্রাত্য বসুকে 'ব্যর্থ বসু' বলে কটাক্ষ করে বিজেপি এই নেতা জানান শিক্ষামন্ত্রী কোনও সিদ্ধান্ত নিতে পারেন না।

Jitendra Tiwari: 'শিক্ষামন্ত্রী আজীবন নাটক করলেন, এখন শিক্ষা নিয়ে নাটক করছেন'
ব্রাত্য বসুকে কটাক্ষ জিতেন্দ্র তিওয়ারির (নিজস্ব ছবি)
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অবন্তিকা প্রামাণিক

Jan 31, 2022 | 4:01 PM

আসানসোল: করোনায় সবই চলছে। মেলা, অনুষ্ঠান, রেস্তোঁরা, সিনেমাহল সবই। শুধু বন্ধ স্কুল-কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়। সবই যখন খুলছে তখন কেন বন্ধ স্কুল কলেজ তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিরোধীরা। স্কুল খোলার পক্ষে সওয়াল করেছেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ও চিকিৎসকেরাও। এদিকে, একটানা স্কুল বন্ধের জেরে ক্রমেই বাড়ছে ড্রপআউটের সংখ্যা। তাই শিশুদের পড়াশোনায় ফিরিয়ে আনতে ‘পাড়ায় শিক্ষালয়’ চালু করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্যবসু। তবে এরপরও তিনি খুশি করতে পারেননি বিরোধীদের। বিজেপি নেতা জিতেন্দ্র তিওয়ারি কটাক্ষ করে ব্রাত্য বসুকে বলেছেন, “আজীবন নাটক করলেন, এখন শিক্ষা নিয়ে নাটক করছেন।”

সোমবার স্কুল খোলার দাবিতে বিক্ষোভ করল বিজেপি আসানসোল জেলা কমিটি। জিতেন্দ্র তিওয়ারি, কৃষ্ণেন্দু মুখোপাধ্যায় জেলা সভাপতি দিলীপ দের নেতৃত্বে বিক্ষোভ কর্মসূচি হয় আসানসোল ডিআই অফিসে। এরপর আসানসোল সুকান্ত ময়দানে অবস্থিত অফিসে ডিআই অনুপস্থিত থাকায় অন্য আধিকারিকের হাতে স্মারক লিপি তুলে দেয় বিজেপি নেতৃত্ব। এদিন দুপুরে বিজেপির এই বিক্ষোভ কর্মসূচি হয়।

এরপর জিতেন্দ্র তিওয়ারি বলতে শুরু করেন। বলেন, “আগে নতুন-নতুন স্কুল খোলার জন্য আন্দোলন করতে হত। এখন স্কুলে পঠন পাঠন শুরু করার জন্য আন্দোলন করতে হচ্ছে। এখানে শিক্ষকরা বেতন পাচ্ছেন। মিড-ডে মিলের চাল আসছে। সবই হচ্ছে, অথচ ক্লাস বন্ধ। আর শিশুদের স্কুলে নিয়ে আসার জন্য যে আমাদের আন্দোলন করতে তা কোনওদিন ভাবিনি। তবে মদের দোকানের জন্য কোথাও আন্দোলন করতে হচ্ছে না। উপরন্তু বাড়িতে মদ পৌঁছানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। ভারতবর্ষের কোনও রাজ্যে এইভাবে স্কুল বন্ধ নেই। ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষা নিয়ে শিক্ষামন্ত্রীর এই নাটক বন্ধ হোক। করোনার অজুহাতে সব হচ্ছে। মানুষকে মিথ্যে মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়া যাচ্ছে, করোনার মধ্যে লুঠপাট চলেছে। শুধু করোনায় স্কুল খুললেই দোষ। ”

এরপর ব্রাত্য বসুকে ‘ব্যর্থ বসু’ বলে কটাক্ষ করে বিজেপি এই নেতা জানান শিক্ষামন্ত্রী কোনও সিদ্ধান্ত নিতে পারেন না। ফলে রাজ্যে ছাত্রদের ভবিষ্যত খারাপ হচ্ছে। রাজ্যের শিক্ষাব্যবস্থা একেবারে ভেঙে পড়েছে। অবিলম্বে স্কুল কলেজ খোলার দাবি তারা রাখেন।

আরও পড়ুন: Budget 2022: করোনাকালে চাহিদা বাড়লেও ব্যবসায় ভাগ বসাচ্ছে চিন, বাজেট থেকে কী আশা রাখছে সাইকেল শিল্প?

আরও পড়ুন: Bengal BJP: মরিচঝাঁপিতে অগ্নিমিত্রার সঙ্গে দুই মতুয়া বিধায়ক! শান্তনুকে রুখতেই পাল্টা কৌশল?

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla