Kanthi Municipality: বেনামে সম্পত্তি থাকার অভিযোগ, অধিকারি-ঘনিষ্ঠ পুরসভার ইঞ্জিনিয়ারের লকার তল্লাশির অনুমোদন কোর্টের

West Bengal: এর আগে দিলীপবাবুর হিসাব-সম্পত্তি দেখে রীতিমত হতবাক হতে হয় পুলিশ আধিকারিকদের। একাধিক বিমা সংস্থায় লক্ষ-লক্ষ টাকা তিনি রেখেছেন বলে দাবি পুলিশের।

Kanthi Municipality: বেনামে সম্পত্তি থাকার অভিযোগ, অধিকারি-ঘনিষ্ঠ পুরসভার ইঞ্জিনিয়ারের লকার তল্লাশির অনুমোদন কোর্টের
দিলীপ বেরা (নিজস্ব ছবি)
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অবন্তিকা প্রামাণিক

Aug 03, 2022 | 1:19 PM

কাঁথি: হিসাব বহির্ভূত সম্পত্তির জেরে গ্রেফতার করা হয় অধিকারী পরিবারের ঘনিষ্ঠ কাঁথি পুরসভার সহকারি ইঞ্জিনিয়ার দিলীপ বেরা। এবার তাঁরই ব্যাঙ্কের লকার তল্লাশির অনুমোদন পেল কাঁথি থানার পুলিশ। মঙ্গলবার পূর্ব মেদিনীপুর জেলার তমলুক আদালত এই অনুমতি দিয়েছে বলে খবর।

এর আগে দিলীপবাবুর হিসাব-সম্পত্তি দেখে রীতিমত হতবাক হতে হয় পুলিশ আধিকারিকদের। একাধিক বিমা সংস্থায় লক্ষ-লক্ষ টাকা তিনি রেখেছেন বলে দাবি পুলিশের। এবার কাঁথির জনমঙ্গল সমবায় সমিতির লকারে এই ইঞ্জিনিয়ারের কত টাকা ও সম্পত্তি রয়েছে তা খতিয়ে দেখার জন্য কাঁথি পুলিশকে অনুমোদন দিল আদালত। ঘটনার বিষয়ে পুলিশ আধিকারিক সোমনাথ সাহা বলেন, ‘আদালতে আবেদন জানানো হয়েছিল। তা মঞ্জুর হয়েছে। তদন্ত চলছে এর থেকে বেশি কিছু বলা সম্ভব নয় এই মুহূর্তে।’

পুলিশ সূত্রে খবর, বর্তমানে পুলিশ হেফাজতে থাকা কাঁথি পুরসভা সহকারী ইঞ্জিনিয়ার দিলীপ বেরা সম্পত্তির পরিমাণ ৩ কোটি ১৯ লক্ষ ৫২ হাজার ৯৪৭ টাকা। আনুমানিক ভাবে জানা যাচ্ছে ২০০০ সালের আগে দিলীপ বেরা কাঁথি পুরসভা কাঁথি পুরসভার কাজে যোগ দেন। তখন অধিকারী পরিবারের সদস্যরা পুরপ্রধানের দায়িত্ব সামলেছেন। জানা গিয়েছে, ৩০ এপ্রিল ২০২২ সাল পর্যন্ত বেতন বাবদ অ্যাকাউন্টে ঢুকেছে ৮৯ লক্ষ ৯৫ হাজার ৮৬৯ টাকা। তারপরেও কী করে নিজের ও স্ত্রীর নামে বিপুল সম্পত্তি এল তা তদন্ত করে দেখছে কাঁথি থানার পুলিশ ও জেলা পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্তা ব্যক্তিরা ।

বস্তুত, গত ২৯ শে জুন কাঁথি শহরের রাঙামাটি শ্মশানে স্টল নির্মাণের দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সরব হন কাঁথি পুরসভার বর্তমান পুরপ্রধান সুবল কুমার মান্না। লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে নাম উঠে আসে প্রাক্তন পুরপ্রধান তথা রাজ্যের বিরোধী শুভেন্দু অধিকারীর ছোট ভাই সৌমেন্দু অধিকারীর। এছাড়াও পুরসভার সহকারী ইঞ্জিনিয়ার দিলিপ বেরা, পুরসভার ঠিকাদার সতীনাথ দাস অধিকারী। পুলিশ তদন্তে নেমে প্রথমে পুরসভার সহকারী ইঞ্জিনিয়ার দিলীপ বেরাকে গ্রেফতার করে।

এরপর ঠিকাদার সতীনাথ দাস অধিকারীর ম্যানেজার অলক সাহু ও সৌমেন্দু অধিকারীর গাড়ির চালক গোপাল সিংকেও গ্রেফতার করা হয়। যদিও কাঁথি আদালত শর্তসাপেক্ষে চারজনকে জামিনে মুক্তি দেন। হাইকোর্ট থেকে রক্ষাকবচ পান সৌমেন্দু অধিকারী।

পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, ইঞ্জিনিয়ার দিলীপ বেরার সম্পত্তি দেখে চক্ষু চড়ক গাছ আধিকারিকদের। বিমা, ফিক্সড ডিপোজিট ওই ইঞ্জিনিয়ারের স্ত্রীর নামে প্রায় দু’কোটি টাকা রয়েছে। ১ কোটি ৩০ লক্ষ টাকা দিয়ে জমি কিনেছেন । গাড়ি, সোনা কিনে ব্যায় করেছেন আরও ৮ লক্ষ টাকা। শুধুমাত্র কাঁথি সেন্টাল বাসস্ট্যাণ্ড জনমঙ্গল সমিতিতে রয়েছেন ১ কোটি ২৭ লক্ষ ১৩ হাজার ৭১৭ টাকা। স্ত্রীর নামে একটি বেসরকারি ব্যাঙ্কের ফিক্সড ডিপোজিট পরিমাণ ১৭ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা। এছাড়াও একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের নিজের ফিক্সড ডিপোজিট রয়েছে ১৫ লক্ষ টাকা। এছাড়াও একাধিক বিমার সংস্থার কাছে লক্ষ লক্ষ টাকা রেখেছেন বলে পুলিশ তদন্তে উঠে এসেছে।

এই খবরটিও পড়ুন

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla