পরপর দু’দিন ছুটি কাটিয়ে কাজে ফিরে দেখলেন নোটিস! ভোট আবহেই অথৈ জলে হাজার পাঁচেক শ্রমিক

রবিবার সকালে বজবজ (Budge Budge) জুটমিলের (Jute Mill) বন্ধের নোটিস টানিয়ে দেয় কর্তৃপক্ষ।

পরপর দু'দিন ছুটি কাটিয়ে কাজে ফিরে দেখলেন নোটিস! ভোট আবহেই অথৈ জলে হাজার পাঁচেক শ্রমিক
নিজস্ব চিত্র

দক্ষিণ ২৪ পরগনা: ভোট আবহের মধ্যেই বন্ধ হয়ে গেল বাংলার আরও একটি জুটমিল (Jute Mill)। রবিবার সকালে বজবজ (Budge Budge) জুটমিলের (Jute Mill) বন্ধের নোটিস টানিয়ে দেয় কর্তৃপক্ষ। এক লহমায় বেকার হয়ে গেলেন পাঁচ হাজারেরও বেশি শ্রমিক।

দুদিন ছুটির পর রবিবার সকালে শ্রমিকরা কাজের যোগ দিতে এসেছিলেন। দেখা যায়, মিলের গেট বন্ধ ও গেটের ঝুলছে বন্ধের নোটিস। কোনও আলোচনা ছাড়াই কর্তৃপক্ষের এ হেন সিদ্ধান্তে ক্ষোভে ফেটে পড়েন শ্রমিকরা। অনির্দিষ্টকালের জন্য ‘সাসপেনশন অফ ওয়ার্ক’ এর নোটিস ঝলানো হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

যদিও কর্তৃপক্ষের মারফত খবর যে, জুটমিলে উৎপাদন ক্ষমতা কমে গিয়েছিল, লকডাউন পরবর্তী পরিস্থিতিতে আরও খারাপ দিকে এগোয় ব্যবসা। শ্রমিকদের হঠাৎ অনুপস্থিতিকেই এর জন্য দায়ী করছে কর্তৃপক্ষ। যদিও শ্রমিকদের পক্ষ থেকে জানা গিয়েছে, প্রধানত কাঁচামালের দামের মূল্য বৃদ্ধি ও তার জেরে খারাপ মানের কাঁচামাল দিয়ে কাজ করাই এই কারণ।ক্ষণাবেক্ষণের ক্ষেত্রেও কর্তৃপক্ষের গাফিলতির অভিযোগ তুলেছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন: আসছে বৃষ্টি! কলকাতা-সহ এই জেলাগুলিতে সুখবর

শ্রমিক মালিক অসন্তোষ ছিলই। শ্রমিকদের বক্তব্য, কর্তৃপক্ষ তাঁদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে পারত। কিন্তু একেবারেও কোনও আলোচনা ছাড়া কর্তৃপক্ষের এত বড় সিদ্ধান্তে অথৈ জলে পড়েছেন শ্রমিকরা।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla