Flesh Trade: সামনের শোকেসে নানান ধরনের ম্যাসাজ-স্পা ক্রিমের কৌটো, বিউটি পার্লারের কেবিনে চলত অন্য ‘খেলা’

Flesh Trade: ঘটনায় গ্রেফতার চার মহিলা সহ মোট পাঁচজন।বারুইপুরের ঘটনা।

Flesh Trade: সামনের শোকেসে নানান ধরনের ম্যাসাজ-স্পা ক্রিমের কৌটো, বিউটি পার্লারের কেবিনে চলত অন্য 'খেলা'
বিউটি পার্লারের আড়ালে দেহ ব্যবসা চালানোর অভিযোগ
TV9 Bangla Digital

| Edited By: শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী

Aug 05, 2022 | 1:14 PM

দক্ষিণ ২৪ পরগনা: ঝা চকচকে বিউটি পার্লার। সামনে কাচের শোকেস। তাতে বিভিন্ন নামিদামী ব্র্যান্ডের স্পা-ম্যাসাজ ক্রিম। রয়েছে শ্যাম্পুও। দোকানের ভিতরে বেশ কয়েকটি চেয়ার। পার্লারের ভিতরের ঘরে একটি ছোট্ট কেবিন। সেখানেই চলত আসল ব্যবসা। পার্লারে নিত্য নতুন ছেলেমেয়েরা আসতেন। কিন্তু তার ভিতরেই যে এসব হত, তা ঘুনাক্ষরেও টের পাননি আশপাশের দোকানিরাও। পুলিশের গাড়িটা যখন দোকানের সামনে এসে দাঁড়িয়েছিল, তখনই সজাগ হয়ে যান তাঁরা। পরে পুলিশ কর্মীদের কানাঘুষোতেই স্পষ্ট নয় আসল কারণ। জানা যায়, বিউটি পার্লারের আড়ালেই চলত দেহব্যবসা। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত মোট পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধৃতদের মধ্যে চার জন মহিলা রয়েছে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুরে।

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে, বৃহস্পতিবার বারুইপুর পৌরসভার ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের একটি বিউটি পার্লারে হানা দেয় বারুইপুর থানার পুলিশ। আশপাশের দোকানিরা স্তম্ভিত হয়ে যান। ভিতরে ঢুকে পুলিশের চক্ষু চড়কগাছ। তাঁরা দেখতে পান, পার্লারের ভিতরেই ছোট্ট একটি কেবিন। আর সেখানেই রমরমিয়ে চলছে দেহ ব্যবসা।

হাতেনাতে পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জানা যাচ্ছে, পুলিশের কাছে দীর্ঘদিন ধরেই খবর আসছিল। সেই মোতাবেক অতর্কিতে তল্লাশি চালান তদন্তকারীরা। সেই কেবিন থেকেই বাজেয়াপ্ত হয়েছে বেশ কিছু যৌন মিলনের কাজে ব্যবহৃত কিছু সামগ্রী ও মদের বোতল। পুলিশ ওই পার্লারের মালকিন, ম্যানেজার-সহ মোট পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে।

এই খবরটিও পড়ুন

তদন্তে জানা গিয়েছে, মালকিনের বাড়ি বারুইপুর হলেও বাকিদের বাড়ি সোনারপুর ও মগরাহাট থানা এলাকায়। ধৃতদের বিরুদ্ধে প্রিভেশন অব্ ইমমোরাল ট্রাফিক অ্যাক্টে মামলা রুজু করেছে পুলিশ। ধৃতদের শুক্রবার বারুইপুর মহাকুমা আদালতে পেশ করা হবে।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla