Bangladesh: কুুমিল্লার তাণ্ডবে কড়া বাংলাদেশ পুলিশ, শুধু ঢাকাতেই ৪ হাজার জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের

Cumilla Incident: শুধুমাত্র রাজধানী ঢাকাতেই এখনও পর্যন্ত চার হাজার জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

Bangladesh: কুুমিল্লার তাণ্ডবে কড়া বাংলাদেশ পুলিশ, শুধু ঢাকাতেই ৪ হাজার জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের
বাংলাদেশ পুলিশের কড়া পদক্ষেপ (ফাইল ছবি)

ঢাকা: কুমিল্লার ঘটনার পর আরও সজাগ বাংলাদেশ সরকার। যারা এই তাণ্ডব চালিয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থার নির্দেশ দিয়েছেন বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর সেই মতো কাজও শুরু করে দিয়েছে সেখানকার পুলিশ। শুধুমাত্র রাজধানী ঢাকাতেই এখনও পর্যন্ত চার হাজার জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

কুমিল্লার দুর্গামণ্ডপে তাণ্ডবের পর সেই আঁচ ছড়িয়ে পড়ে গোটা বাংলাদেশে। বাদ যায়নি রাজধানী ঢাকাও। সেখানেও বাংলাদেশের আধা সেনার সঙ্গে রীতিমতো খণ্ড যুদ্ধে জড়িয়ে পড়েন উত্তেজিত বিক্ষোভকারীরা। ওই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত চার হাজার জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের রয়েছে। এদের মধ্যে অনেকের নাম রয়েছে বাংলাদেশ পুলিশের হাতে, আবার অজ্ঞাতপরিচয় অনেকের বিরুদ্ধেও অভিযোগ রয়েছে তালিকায়।

বাংলাদেশ প্রশাসনের আধিকারিক সূত্রে খবর, রাজধানীর পল্টন, রামনা এবং চকবাজার – এই তিন থানা এলাকা থেকেই মূলত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তাণ্ডব চালানো, আধা সেনার উপর চড়াও হওয়া এবং সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে।

বাংলাদেশের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, পল্টন থানার ওসি মহম্মদ সালাউদ্দিন মিয়া জানিয়েছেন, সেখানে ১১ জন অভিযুক্তকে শনাক্ত করা হয়েছে এবং তাদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। এর পাশাপাশি প্রায় দুই – আড়াই হাজার অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া পাঁচ জনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে।

কড়া ব্যবস্থা নিচ্ছে রামনা মডেল থানাও। সেখানকার ওসি মহম্মদ মনিরুল ইসলাম জানিয়েছেন, সেখানে ১০ জনকে শনাক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। সবমিলিয়ে প্রায় ১৪০০-১৫০০ অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে এই থানায়। রামনা থানায় এখনও পর্যন্ত ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এই ঘটনায়।

এদিকে চকবাজার থানার তদন্তকারী আধিকারিক তসলিমা আখতার জানিয়েছেন, সেখানে এখনও পর্যন্ত পাঁচ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে এবং তাদের প্রত্যেককে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর পাশাপাশি আরও ৩৫-৪০ জন অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

কুমিল্লার ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন শেখ হাসিনা। বাংলাদেশে সম্প্রীতির ইতিহাসের কথাও তুলে ধরেছিলেন তিনি। বলেন, “বাংলাদেশের ইতিহাসে এটা আছে যে এদেশের মানুষ সবসময় প্রতিটি উৎসব সামিল হয়ে একসঙ্গে সেই আনন্দ উপভোগ করে। মাঝে মাঝে কিছু দুষ্ট চক্র এই ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে মানুষের মধ্যে এই চেতনাকে নষ্ট করতে চায়। এটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক।

তিনি আরও জানান, কিছুদিন আগে কুমিল্লায় যে ঘটনা ঘটেছে ইতিমধ্যেই তার তদন্ত শুরু হয়েছে। ব্যাপকভাবে তদন্ত চলছে। অনেক তথ্য ইতিমধ্যেই প্রশাসনের হাতে এসেছে। এই ধরনের ঘটনা যারা ঘটাবে, তাদের আমরা খুঁজে বের করবই। সে যেই হোক না কেন, যে ধর্মেরই হোক না কেন, তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা অবশ্যই যথাযথভাবে নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন : Bangladesh: ‘ধর্ম যাঁর যাঁর, কিন্তু উৎসব সবার, রাষ্ট্র সবার’, কুমিল্লার ঘটনায় কড়া প্রতিক্রিয়া শেখ হাসিনার

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla