Immortal Human: ‘অমর’ হবে মানুষ? চাবিকাঠি লুকিয়ে গলদা চিংড়িতে

বার্ধক্যজনিত কারণে মৃত্যু হয় না লবস্টার বা গলদা চিংড়ির। এই অবিশ্বাস্য দীর্ঘ জীবনের রহস্য হল 'টেলোমারেজ়' এনজ়াইম।

Immortal Human: 'অমর' হবে মানুষ? চাবিকাঠি লুকিয়ে গলদা চিংড়িতে
প্রতীকী ছবি
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Amartya Lahiri

Sep 22, 2022 | 10:43 AM

ওয়াশিংটন: “জন্মিলে মরিতে হবে, অমর কে কোথা কবে…”, এটা শুধু কবিতার পঙক্তিই নয়, এটাই জীবনের সার সত্য। আবার এটাও ঠিক, জীবনের এই সবথেকে বড় সত্যিটাকে বদলে দিতে প্রায় সভ্যতার শুরু থেকেই চেষ্টা করে আসছে মানুষ। আর সাম্প্রতিক আবিষ্কারের ফলে সেই বাসনা পূরণও হবে বলে দাবি করছেন বিজ্ঞানীরা। তাঁদের দাবি মানুষও অমর হতে পারে। আর সেই লক্ষ্যে পৌঁছনোর চাবিকাঠি হল লবস্টার (গলদা চিংড়ির জাতীয় প্রাণী)।

পৃথিবীর সব প্রজাতির মতোই মানুষেরও প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার একটি নির্দিষ্ট পর্যায় পর্যন্ত শরীরের বিকাশ ঘটে। শরীরের যাবতীয় ক্ষয়-ক্ষতি মেরামত করতে পারে। কিন্তু, তারপর থেকে মানবদেহ ধীরে ধীরে নিজের মেরামত করার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে। ক্ষয়-ক্ষতি সব জমা হতে শুরু করে। আর একটা সময় চিরতরে বন্ধ হয়ে যায় এই শরীর যন্ত্র।

লবস্টার (ছবি সৌজন্য – পেক্সেল)

একমাত্র লবস্টার বা গলদা চিংড়িরা ব্যতিক্রম। বার্ধক্যজনিত কারণে তাদের মৃত্যু হয় না। হয় খাদ্য হিসেবে মানুষ তাদের মেরে ফেলে। আর নয়তো, বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে খোলস প্রতিস্থাপন করার সময়, পুরনো খোলস গলানোর প্রক্রিয়ার সময়, ক্লান্তিতে মারা যায়। লবস্টারের এই অবিশ্বাস্য দীর্ঘ জীবনের রহস্য হল ‘টেলোমারেজ়’ এনজ়াইম। এই এনজ়াইমটি ‘অমরত্বের এনজ়াইম’ নামেই পরিচিত।

কোনও কোষের মৃত্যুর আগে বা সেটি নিষ্ক্রিয় হয়ে যাওয়ার আগে, অর্থাৎ যে পর্যায়ে মানবদেহ ভেঙে পড়তে শুরু করে এবং শেষ পর্যন্ত মৃত্যু হয়, সেই পর্যায়ে কোষ বিভাজনের সংখ্যা বাড়ায় টেলোমারেজ়। এই এনজ়াইমটি লবস্টারের দেহের বহু কোষে উপস্থিত। মানবদেহের অল্প কিছু কোষে সক্রিয় টেলোমারেজ় থাকে। বিশেষ করে স্টেম সেলে এই এনজ়াইমটি পাওয়া যায়। এই কারণেই স্টেম সেল দীর্ঘ সময় ধরে নিজেদের মেরামত করতে পারে। ফল এদের জীবনকাল বেশি হয়। কিন্তু, আমাদের দেহের অন্যান্য কোষের জীবনকাল অনেক কম। স্বাভাবিকভাবেই অনুমান করা হয়, দীর্ঘ জীবনের চাবিকাঠি হত আমাদের দেহে টেলোমারেজ় ধারণকারী কোষের সংখ্যা বৃদ্ধি। বিজ্ঞানীরা এখন তারই উপায় খুঁজছেন।

সমস্যা হল, টেলোমারেজ়ের সঙ্গে ক্যান্সারের সংযোগ রয়েছে। নিউ সাউথ ওয়েলস বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন ও স্বাস্থ্য বিভাগের ‘ল্যাবরেটরি ফর এজিং রিসার্চের’ প্রধান ডা. লিন্ডসে উ বলেছেন, “এই কৌশল সম্পর্কে সবথেকে বড় উদ্বেগ হল, টেলোমারেজ় সাধারণত বেশিরভাগ প্রাপ্তবয়স্ক কোষে তৈরি হয় না। তবে প্রায়শই ক্যান্সার কোষে টেলোমারেজ় তৈরি হয়। এই এনজ়াইম ক্যান্সারকে অমর করে তোলে। কাজেই লবস্টার বা গলদা চিংড়ির মতো দীর্ঘ জীবন বা অমরত্ব পেতে টেলোমারেজ় ব্যবহার করার আগে, ক্যান্সারের সঙ্গে এই এনজ়াইমের সম্পর্ককে আরও ভালভাবে বুঝতে হবে।”

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla