Budget 2022: দুর্দশা ঘোচাতে নির্মলার কাছে পাঁচ দরবার দালাল স্ট্রিটের

Budget 2022: স্টক মার্কেট সম্পর্কিত যে করগুলি রয়েছে, তার উপর ছাড় দেওয়া বা অবলুপ্তির প্রস্তাবই দেওয়া হয়েছে বাজার বিশেষজ্ঞদের তরফে। তাদের দাবি, দীর্ঘমেয়াদী মূলধন লাভের কথা মাথায় রেখেই শেয়ার বাজারে কর ব্যবস্থা চালু করা হয়েছিল। কিন্তু বিগত কয়েক বছর ধরে বাজার ভারতীয় বিনিয়োগকারীদের জন্য খুব একটা লাভজনক না হওয়ায়, আপাতত এই করে ছাড় বা সম্পূর্ণরূপে তুলে দেওয়াই শ্রেয়।

Jan 21, 2022 | 3:40 PM
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Shubhendu Debnath

Jan 21, 2022 | 3:40 PM

করোনার (COVID-19) একেকটা ঢেউ যখনই আছড়ে পড়েছে, তখনই ব্যপক ধসের মুখে পড়েছে শেয়ার বাজার (Share Market)। এবারের বাজেটে (Budget 2022) তাই দালাল স্ট্রিটের আশা এমন এক বাজেট আনা হোক যেখানে সঠিক লক্ষ্যে অগ্রগতি ও সংস্কারের উপরই জোর দেওয়া হবে। গত বছরের বাজেটের মতোই এবারের বাজেটেও যাতে শেয়ার বাজারে সংস্কার ও উন্নতি হয়, তার উপরই জোর দেওয়া হয়েছে।

করোনার (COVID-19) একেকটা ঢেউ যখনই আছড়ে পড়েছে, তখনই ব্যপক ধসের মুখে পড়েছে শেয়ার বাজার (Share Market)। এবারের বাজেটে (Budget 2022) তাই দালাল স্ট্রিটের আশা এমন এক বাজেট আনা হোক যেখানে সঠিক লক্ষ্যে অগ্রগতি ও সংস্কারের উপরই জোর দেওয়া হবে। গত বছরের বাজেটের মতোই এবারের বাজেটেও যাতে শেয়ার বাজারে সংস্কার ও উন্নতি হয়, তার উপরই জোর দেওয়া হয়েছে।

1 / 5
শিল্প, পরিকাঠামো সহ একাধিক ক্ষেত্রে সরকারের তরফে বিগত এক বছর ধরে একাধিক ঘোষণা করা হয়েছে এবং আগামিদিনেও করা হবে।  তবে রিয়েল এস্টেট ও অটো সেক্টরে আরও আর্থিক বিনিয়োগ ও উন্নয়ন প্রয়োজন। কারণ এই দুটি ক্ষেত্রই বর্তমানে সবথেকে বেশি চাকরি তৈরি করছে এবং এর প্রভাবেই বাকি ক্ষেত্রগুলিতেও ব্যপক বৃদ্ধি হচ্ছে।  আয় বাড়লে স্বাভাবিকভাবেই বিনিয়োগ বাড়বে, তাই প্রথমেই বাজারে চাকরি তৈরির প্রয়োজন, এমনটাই মত বিশেষজ্ঞদের।

শিল্প, পরিকাঠামো সহ একাধিক ক্ষেত্রে সরকারের তরফে বিগত এক বছর ধরে একাধিক ঘোষণা করা হয়েছে এবং আগামিদিনেও করা হবে। তবে রিয়েল এস্টেট ও অটো সেক্টরে আরও আর্থিক বিনিয়োগ ও উন্নয়ন প্রয়োজন। কারণ এই দুটি ক্ষেত্রই বর্তমানে সবথেকে বেশি চাকরি তৈরি করছে এবং এর প্রভাবেই বাকি ক্ষেত্রগুলিতেও ব্যপক বৃদ্ধি হচ্ছে। আয় বাড়লে স্বাভাবিকভাবেই বিনিয়োগ বাড়বে, তাই প্রথমেই বাজারে চাকরি তৈরির প্রয়োজন, এমনটাই মত বিশেষজ্ঞদের।

2 / 5
বিগত কয়েক বছরে করোনা সংক্রমণের কারণে সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রায় ব্যপক পরিবর্তন এসেছে। বেড়েছে বাড়ি কেনার ঝোঁক। সেই কারণেই সরকারের উচিত গৃহ ঋণের ক্ষেত্রে করে বিশেষ সুযোগ-সুবিধার ঘোষণা করা। বিগত কয়েক বছর ধরে গৃহ ঋণের উপর কর একই পর্যায়ে আটকে রয়েছে। গত বছর দেশের অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে সরকারের তরফে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হলেও, সরাসরি উপভোক্তার সংখ্যা বৃদ্ধির উপর জোর দেওয়া হয়নি। সেই কারণেই এবারের বাজেটে মধ্যবিত্ত বেতনভোগীদের কথা মাথায় রেখে বিশেষ কিছু ঘোষণা করা হতে পারে। এরমধ্যে অন্যতম হল গৃহ ঋণে কর বা সুদের ছাড়।

বিগত কয়েক বছরে করোনা সংক্রমণের কারণে সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রায় ব্যপক পরিবর্তন এসেছে। বেড়েছে বাড়ি কেনার ঝোঁক। সেই কারণেই সরকারের উচিত গৃহ ঋণের ক্ষেত্রে করে বিশেষ সুযোগ-সুবিধার ঘোষণা করা। বিগত কয়েক বছর ধরে গৃহ ঋণের উপর কর একই পর্যায়ে আটকে রয়েছে। গত বছর দেশের অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে সরকারের তরফে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হলেও, সরাসরি উপভোক্তার সংখ্যা বৃদ্ধির উপর জোর দেওয়া হয়নি। সেই কারণেই এবারের বাজেটে মধ্যবিত্ত বেতনভোগীদের কথা মাথায় রেখে বিশেষ কিছু ঘোষণা করা হতে পারে। এরমধ্যে অন্যতম হল গৃহ ঋণে কর বা সুদের ছাড়।

3 / 5
শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ বাড়াতে সরকারের সম্পত্তির হিসাব ও বিভাজনের নীতিতে স্বচ্ছতা আনা প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন বাজার বিশেষজ্ঞরা। সরবরাহ ক্ষেত্রে যেহেতু একাধিক সঙ্কট দেখা দিয়েছে, সেই কারণে ভারতও নানা চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে পারে। সেই কারণে সরকারের প্রয়োজন আসন্ন বাজেটে বিভিন্ন নীতি সম্পর্কে স্বচ্ছতা আনা।

শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ বাড়াতে সরকারের সম্পত্তির হিসাব ও বিভাজনের নীতিতে স্বচ্ছতা আনা প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন বাজার বিশেষজ্ঞরা। সরবরাহ ক্ষেত্রে যেহেতু একাধিক সঙ্কট দেখা দিয়েছে, সেই কারণে ভারতও নানা চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে পারে। সেই কারণে সরকারের প্রয়োজন আসন্ন বাজেটে বিভিন্ন নীতি সম্পর্কে স্বচ্ছতা আনা।

4 / 5
স্টক মার্কেট সম্পর্কিত যে করগুলি রয়েছে, তার উপর ছাড় দেওয়া বা অবলুপ্তির প্রস্তাবই দেওয়া হয়েছে বাজার বিশেষজ্ঞদের তরফে। তাদের দাবি, দীর্ঘমেয়াদী মূলধন লাভের কথা মাথায় রেখেই শেয়ার বাজারে কর ব্যবস্থা চালু করা হয়েছিল। কিন্তু বিগত কয়েক বছর ধরে বাজার ভারতীয় বিনিয়োগকারীদের জন্য খুব একটা লাভজনক না হওয়ায়, আপাতত এই করে ছাড় বা সম্পূর্ণরূপে তুলে দেওয়াই শ্রেয়। বাজারের পরিস্থিতি বিনিয়োগ উপযোগী হলে, তারপরই করের উপর জোর দেওয়া উচিত, এমনটাই জানিয়েছেন দালাল স্ট্রিটের কর্মচারীরা।

স্টক মার্কেট সম্পর্কিত যে করগুলি রয়েছে, তার উপর ছাড় দেওয়া বা অবলুপ্তির প্রস্তাবই দেওয়া হয়েছে বাজার বিশেষজ্ঞদের তরফে। তাদের দাবি, দীর্ঘমেয়াদী মূলধন লাভের কথা মাথায় রেখেই শেয়ার বাজারে কর ব্যবস্থা চালু করা হয়েছিল। কিন্তু বিগত কয়েক বছর ধরে বাজার ভারতীয় বিনিয়োগকারীদের জন্য খুব একটা লাভজনক না হওয়ায়, আপাতত এই করে ছাড় বা সম্পূর্ণরূপে তুলে দেওয়াই শ্রেয়। বাজারের পরিস্থিতি বিনিয়োগ উপযোগী হলে, তারপরই করের উপর জোর দেওয়া উচিত, এমনটাই জানিয়েছেন দালাল স্ট্রিটের কর্মচারীরা।

5 / 5

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla