IT Sector : ১২০ শতাংশ পর্যন্ত বেশি মাইনে, আগ্রাসী নিয়োগ তথ্য ও প্রযুক্তি ক্ষেত্রে

Job Opportunity : করোনা পরবর্তী পরিস্থিতিতে তথ্য ও প্রযুক্তি ক্ষেত্রে কর্মীর চাহিদা বেড়েছে প্রায় ৪০০ শতাংশ।

IT Sector : ১২০ শতাংশ পর্যন্ত বেশি মাইনে, আগ্রাসী নিয়োগ তথ্য ও প্রযুক্তি ক্ষেত্রে
কাজের সুযোগ বাড়ছে আইটি সেক্টরে
Soumya Saha

|

Sep 18, 2021 | 3:14 PM

নয়াদিল্লি : করোনা প্রথম ঢেউ, তারপর দ্বিতীয় ঢেউ। টানা লকডাউন। মুখ থুবড়ে পড়েছে একাধিক সংস্থা। আর এর জেরেই কাজ হারিয়েছেন অনেকে। বিগত দেড় বছরের অতিমারিতে কর্মচ্যূত হয়েছেন বহু বেসরকারি সংস্থার কর্মী। তবে এখন পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হতেই ঘুর দাঁড়াতে শুরু করেছে তথ্য ও প্রযুক্তি সংস্থাগুলি (IT Farms)।

করোনার তৃতীয় ঢেউ নিয়ে আশঙ্কা রয়েছে। তবে তার মধ্যেই নতুন উদ্যমে কর্মী নিয়োগ শুরু করেছে একাধিক সংস্থা। প্রতিভাবান তরুণদের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে কাজের। দেওয়া হচ্ছে ইনক্রিমেন্টও। বিশেষ করে করোনা পরবর্তী পরিস্থিতিতে তথ্য ও প্রযুক্তি ক্ষেত্রে কর্মীর চাহিদা বেড়েছে প্রায় ৪০০ শতাংশ।

উল্লেখ্য, মাসখানেক আগেও পরিস্থিতি এমন ছিল না। বিশেষ করে করোনা অতিমারির বাড়বাড়ন্তের সময়ে তথ্য ও প্রযুক্তি ক্ষেত্রে নতুন চাকরির সুযোগ প্রায় ৫০ শতাংশ কমে গিয়েছিল। আর এখন তা একধাক্কায় অনেকটা বেড়েছে। বিশেষ করে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত টেকনিক্যাল ক্ষেত্রে চাকরির সুযোগ সবথেকে বেশি। অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপার, লিড কনসালট্যান্ট, সেলসফোর্স ডেভেলপার এবং সাইট রিলায়েবিলিটি ইঞ্জিনিয়দের চাহিদা ১৫০ – ৩০০ শতাংশ বেড়েছে। ২০২০ সালের জানুয়ারি মাস থেকে ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত সবথেকে বেশি চাহিদা বেড়েছে এই ক্ষেত্রগুলিতে।

নতুন কর্মী নিয়োগের জন্য সংস্থাগুলি এতটাই আগ্রাসী হয়ে উঠেছে যে শুধুমাত্র নতুন চাকরির সুযোগই তৈরি হয়েছে এমনটা নয়, চাকরির ক্ষেত্রে বেতনও বেড়েছে। গতবছর যে প্যাকেজে কর্মী নিয়োগ করা হত, এখন তার থেকে বেশি প্যাকেজে নিয়োগ করা হচ্ছে কর্মীদের।

এছাড়া আগের সংস্থা ছেড়ে নতুন সংস্থায় এলে তথ্য ও প্রযুক্তি ক্ষেত্রে ৭০ – ১২০ শতাংশ বেশি মাসহারা দেওয়ার পথে হাঁটছে একাধিক সংস্থা। এই বিশাল অঙ্কের লাফ কিন্তু অনেকটাই ইঙ্গিত দিচ্ছে, কতটা আগ্রাসী হয়ে উঠেছে সংস্থাগুলি। আগের বছর পর্যন্তও একটি সংস্থা থেকে অন্য সংস্থায় এলে ২০ – ৩০ শতাংশ পর্যন্ত মাস মাহিনা বাড়ানো হত।

তথ্য ও প্রযুক্তি সংস্থা টিসিএস সম্প্রতি ঘোষণা করেছিল তারা মহিলা কর্মীদের নিয়োগের দিকে বাড়তি জোর দিচ্ছে। বিশেষ করে যে মহিলারা আগে কর্মরত ছিলেন এবং লকডাউন পরিস্থিতির কারণে কাজ হারিয়েছেন, তাঁদের জন্য বাড়তি সুবিধা দিচ্ছে টিসিএস। শুধু টিসিএসই নয়, উইপ্রো, ইনফোসিস… প্রত্যেক তথ্য ও প্রযুক্তি সংস্থাই একই পথে হাঁটছে।

২০২২ সালে কর্মীদের বেতন সংক্রান্ত বিষয়ে ১৬০ কোটি থেকে ১৭০ কোটি ডলার পর্যন্ত খরচ করতে পারে তথ্য ও প্রযুক্তি ক্ষেত্রগুলি। সুতরাং, আপনি যদি তথ্য ও প্রযুক্তি ক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত হন, তাহলে এটাই আপনার জন্য সুবর্ণ সুযোগ। এছাড়া বেঙ্গালুরু, হায়দরাবাদ, চেন্নাইয়ের মতো শহরগুলি, যেখানে তথ্য ও প্রযুক্ত ক্ষেত্রের চাহিদা বেশি, সেই সব শহরগুলিতে রিয়েল এস্টেটের ব্যবসাও ফুলে ফেঁপে উঠতে পারে বলে আশা করছেন অনেকে।

আরও পড়ুন : Swiggy-Zomato : জিএসটি গুনবে সুইগি-জ়োম্যাটো, বাড়বে কি অনলাইনে খাবারের দাম?

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla