Health Tips: ফল খাওয়ার পরে জল পান করেন? শরীরে বদহজমের সমস্যা নিজেই তৈরি করছেন

ফল এবং জল দুটোই আমাদের শরীরের পক্ষে খুব উপকারী। কিন্তু ফল খাওয়া শেষ করেই যদি আপনি জল পান করেন তাহলে হিতে বিপরীত হতে পারে। তাহলে জেনে নিন ফল খাওয়ার পর কেন জল পান করবেন না।

Health Tips: ফল খাওয়ার পরে জল পান করেন? শরীরে বদহজমের সমস্যা নিজেই তৈরি করছেন

ফল এবং জল দুটোই আমাদের শরীরের পক্ষে খুব উপকারী। কিন্তু ফল খাওয়া শেষ করেই যদি আপনি জল পান করেন তাহলে হিতে বিপরীত হতে পারে। ফল খাওয়ার ঠিক পরেই যদি আপনি জল পান করেন, তবে এটি কেবল হজম প্রক্রিয়াকে বাধা দেবে না, এমনকি আপনার স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রেও জটিলতা তৈরি করবে। তাহলে জেনে নিন ফল খাওয়ার পর কেন জল পান করবেন না।

বদহজমের সমস্যা তৈরি হতে পারে- আপনি যদি ফল খাওয়ার পর জল পান করেন তাহলে বদহজমের সমস্যা দেখা দিতে পারে। এটি পরবর্তী সময় অ্যাসিডিটিতে পরিণত হয়। উপরন্ত ফলের সব পুষ্টি শোষিত হয়ে যায়। এই সব কারণে আপনার শরীরে অস্বস্তিও হয়। তাই ফল খাওয়ার এক ঘণ্টা পরে জল পান করুন।

অম্লতা তৈরি হয়- যে কোনও ধরণের ফল খাওয়ার পরপরই জল পান করলে হজমের রস এবং এনজাইমের স্বাস্থ্যকর কার্যকারিতা বিঘ্নিত হয়। হজম তন্ত্রের এই অনুপযুক্ত কার্যকারিতার ফলে শরীরে গুরুতর অম্লতা সৃষ্টি হতে পারে।

পেটে ব্যথা এবং পেট ফুলে যেতে পারে- যেহেতু ফলগুলির মধ্যে প্রচুর বেশি পরিমাণে ফ্রুক্টোজ এবং ইস্ট থাকে, যার জন্য ফল খাওয়ার পরে জল পান করলে পেটের অ্যাসিড গুলি হ্রাস পায়। এর ফলে পেটে গ্যাস তৈরি হয়, কারণ এটি ইস্টের উন্নতির জন্য একটি পরিবেশ তৈরি করে। পরে, এখান থেকে পেটে ব্যথা এবং পেট ফুলে যাওয়ার মত সমস্যা তৈরি হয়।

রক্তে শর্করার মান বাড়িয়ে তুলতে পারে-  উপরোক্ত, ফল খাওয়ার ঠিক পরে জল পান করলে হজম প্রক্রিয়ায় বাধা সৃষ্টি হয় এবং সিস্টেমের কার্যকারিতা সঠিক ভাবে করার ক্ষেত্রে দেরি হয়। হজম না হওয়া খাবারগুলি চর্বিতে রূপান্তরিত হয়, যার ফলে উচ্চ ইনসুলিনের মাত্রা তৈরি হয়। এর অর্থ হল এটি শরীরে রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়িয়ে তোলে। সুতরাং এই কারণে আপনার পরে ডায়াবেটিস এবং স্থূলতার মত সমস্যা সম্মুখীন হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

পিএইচ লেভেলে সমস্যা তৈরি হয়- যখন আপনি ফল খাওয়ার ঠিক পরে জল পান করেন, বিশেষ করে উচ্চ জলের পরিমাণের ফল যেমন তরমুজ, মাস্কমেলন, শসা, কমলা এবং স্ট্রবেরি হজম তন্ত্রের পিএইচ স্তরকে বিঘ্নিত করে। এটি ফলের উচ্চ জলের পরিমাণের কারণে ঘটে, যা পিএইচ মাত্রাকে সমস্যায় ফেলতে পারে। যার ফলে আপনার পেট কম অ্যাসিডিক হয়ে যায়।  এটি আসলে পেটের স্বাস্থ্যের জন্য কোনও ভাল পুষ্টি সরবরাহ করে না বরং আপনার শরীরের ক্ষতি করে।

আরও পড়ুন: সঠিক সময়ে যোগাসন করেন তো? তা না হলে ফল কিন্তু মিলবে না!

আরও পড়ুন: পুজোর সময় যদি শরীর খারাপ হয়ে যায়? আগে থেকেই নিন ব্যবস্থা!

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla