Type 2 Diabetes: এই লোভনীয় ৬ খাবারেই বাড়ছে আপনার সুগার,বাদ না দিলে বিপদ!

Diabetes Food: কোনও অবস্থাতেই ফাস্ট ফুড আমাদের শরীরের জন্য ভাল নয়। ফাস্ট ফুড খেলে ওজন বাড়ে, কোলেস্টেরল জমে। বাড়ে ট্রাইগ্লিসারাইডের মাত্রাও

Type 2 Diabetes: এই লোভনীয় ৬ খাবারেই বাড়ছে আপনার সুগার,বাদ না দিলে বিপদ!
যে সব খাবার বাদ দেবেন একেবারেই
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Reshmi Pramanik

Aug 04, 2022 | 7:32 AM

ভারত সহ সারা বিশ্বেই যে ভাবে বাড়ছে ডায়াবেটিস তাতে উদ্বিগ্ন চিকিৎসকেরা। ডায়াবেটিসের সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে বিভিন্ন রোগের, যা আরও বিপদ বাড়াচ্ছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা প্রায় রোজদিনই নতুন করে সতর্ক করছেন মানুষকে, তবুও হুঁশ ফিরছে কই! একবার রক্তশর্করা বাড়তে শুরু করলে তাকে নিয়ন্ত্রণে রাখা বেশ কঠিন। খুব কম বয়স থেকেই আজকাল জাঁকিয়ে বসছে ডায়াবেটিস। রোজকার জীবনযাত্রা এবং খাদ্যাভ্যাসের গুণে ডায়াবেটিসও বাড়ছে চড়চড়িয়ে। সুগার একবার ধরলে তা ডায়েট এবং শরীরচর্চার মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণে রাখা যায় মাত্র। কখনই সম্পূর্ণ সারিয়ে তোলা যায় না। আর তাই ডায়াবেটিসে ডায়েটস খুবই গুরুত্বপূর্ণ। নিয়মিত এবং পরিমিথ খাবারের পাশাপাশি সময় মেনে খেতে হবে। তবে ওষুধ ছাড়াই যদি সুগারে সুস্থ থাকতে চান তাহলে এই সব খাবার আগে থেকেই বাদ রাখুন-

বেকারির খাবার- মাস ছয়েক আগে ব্লাড সুগার ধরা পড়েছে, চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে ওষুধ খাচ্ছেন তবে কিছুতেই কেক, পেস্টি আর ক্রিম রোলের লোভ সামলে চলতে পারছেন না। কেক, কুকিজ আর বানে যে পরিমাণ শর্করা থাকে তা আমাদের ইনসুলিনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয় অনেকখানি। বেকড যে কোনও খাবারই সুগার রোগীদের কাছে বিষের সমান।

ফাস্ট ফুড – কোনও অবস্থাতেই ফাস্ট ফুড আমাদের শরীরের জন্য ভাল নয়। ফাস্ট ফুড খেলে ওজন বাড়ে, কোলেস্টেরল জমে। বাড়ে ট্রাইগ্লিসারাইডের মাত্রাও। সেই সঙ্গে ফ্রেঞ্চ ফ্রাই, বার্গার, পাস্তা, প্যাকেট ফুড এসব এড়িয়ে চলুন। এই সব খাবারের মধ্যে থাকে প্রচুর পরিমাণ কার্বোহাইড্রেট, শর্করা। আর এই সব খাবারের গ্লাইসেমিক ইনডেক্সও বেশি। তাই ফাস্ট ফুড আজই বাদ দিন তালিকা থেকে।

ফ্লেভারড দই- টকদই শরীরের জন্য খুব ভাল। তবে আজকাল বাজারে নানা ফ্লেভারড দই পাওয়া যায়। আম, ব্লুবেরি, স্ট্রবেরি- আর এই সব দই খেতে ভাল লাগলেও শরীরের জন্য একেবারেই ভাল নয়। কারণ এর মধ্যে থাকে অতিরিক্ত পরিমাণ শর্করা। থাকে প্রচুর চিনি। সেই সঙ্গে এই সব ইয়োগার্ট পুরোটাই কৃত্রিম। এড়িয়ে চলতে পারলেই সবচাইতে ভাল। সুগার বাড়ার পাসাপাশি একাধিক সমস্যাও হতে পারে।

ফ্যাট মিল্ক- স্কিমড মিল্কের কোনও স্বাদ নেই। আর তাই অনেকেই ফুল খ্যাট মিল্ক খেতে পছন্দ করেন। এই দুধের মধ্যে থাকে স্যাচুরেটেড ফ্যাট। যা শরীরের ইনসুলিন প্রতিরোধ ক্ষমতাকে খারাপ করে দেয়। আর তাই চর্বি কম, এমন দুধই খান রোজ। ফ্যাট তোলা দুধ শরীরের জন্য সবচাইতে ভাল।

মধু- মধু স্বাস্থ্যকর তবে ডায়াবেটিস থাকলে মধু একেবারেই চলবে না। মধুর মধ্যে প্রাকৃতিক শর্করা থাকে, যা আমাদের শরীরে সুগারের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। তাই চেষ্টা করুন মধু থেকে দূরে থাকতে। মধু রয়েছে এমন কাবারও কিন্তু খাবেন নাষ এতে আপনারই বিপদ বাড়বে।

এই খবরটিও পড়ুন

ফলের রস- প্যাকেটবন্দি যয়ে সব ফলের রস বিক্রি হয় তার মধ্যে চিনির পরিমাণ বেশি। এই রসগুলির মধ্যে থাকে ফ্রুক্টোজ। যা আমাদের শরীরে রক্তশর্করা বাড়িয়ে দেয়। তাই ডায়াবেটিস থাকলে এই ফলের রস একেবারেই চলবে না। এছাড়াও আপনি যদি ডায়েট করেন তাহলে কিন্তু ফলের রস একেবারেই নয়।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla