Fatty Liver: লিভারের ফ্যাট গলাতে এই অভ্যাসই সেরা, বলছে নতুন সমীক্ষা…

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: Reshmi Pramanik

Updated on: Jul 11, 2022 | 2:50 PM

Food For Fatty Liver: যদি লিভারে ফ্যাট অতিরিক্ত থাকে তাহলে ভাল ফ্যাট খেলেই আপনি উপকার পাবেন। এক্ষেত্রে বিপাকীয় ক্রিয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ

Fatty Liver: লিভারের ফ্যাট গলাতে এই অভ্যাসই সেরা, বলছে নতুন সমীক্ষা...
ফ্যাটি লিভার রুখতে যে ডায়েট মেনে চলবেন...

অনিয়ম আর মাত্রাতিরিক্ত জাঙ্ক ফুডই যে ফ্যাটি লিভারের অন্যতম কারণ একথা একবাক্যে স্বীকার করেছেন সব চিকিৎসকই। বর্তমানে লাইফস্টাইল ডিজিজ হয়ে দাঁড়িয়েছে এই ফ্যাটি লিভার। সুগার, প্রেশার আর থাইরয়েডের মত ঘরে ঘরে খোঁজ মিলছে ফ্যাটি লিভার আক্রান্তের। কারণ আর কিছুই নয়, সারাদিন এক জায়গায় বসে কাজ, খাওয়া এবং কোনও রকম শরীরচর্চা না করা। নন অ্যালকোহলিক ফ্যাটি লিভারে আক্রান্তের সংখ্যাই সবচাইতে বেশি। রক্ত পরীক্ষা, ইউএসজি এবং আরও নানা ক্লিনিক্যাল পরীক্ষার পর যখন ফ্যাটি লিভার ধরা পড়ে তখন ওষুধের পাশাপাশি প্রথমেই কিন্তু চিকিৎসকেরা রাশ টানতে বলেন রোজকার খাবারে। খাবার থেকে ফ্যাট ঐর কার্বোহাইড্রেট একেবারেই বাদ দিয়ে দিতে হবে। প্রোটিন, ফল এসব বেশি করে খেতে হবে। সঙ্গে শরীরচর্চা আবশ্যক।

ইন্টারন্যাশনাল লিভার কংগ্রেস ( ILC) 2022-এ এই ফ্যাটি লিভার নিয়েই অধিকাংশ আলোচনা হয়েছে। সেই আলোচনা থেকে উঠে এসেছে, ১৮ বছর বয়স থেকেই আজকাল দেখা দিচ্ছে ফ্যাটি লিভারের সমস্যা। গবেষণা চালানো হয়েছিল মোট ১৬৫ জনের উপর। এঁদের প্রত্যেকেরই বয়স ১৮-৭৮ বছরের মধ্যে। সকলেই টাইপ ২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত, সঙ্গে নন অ্যালকোহলিক ফ্যাটি লিভার। এরপর এখান থেকে ১১০ কে বেছে নিয়ে তাঁদের প্রত্যেককে একটি নির্দিষ্ট ডায়েট চার্ট দেওয়া হয়।

তাঁদের সেই চার্টে তাঁদের কার্বোহাইড্রেট এবং ফ্যাটযুক্ত খাবার খেতে দেওয়া হয়। বলা হয়েছিল যতক্ষণ না মন ভরছে ততক্ষণ পর্যন্ত তাঁরা খেয়ে যেতে পারেন। আর বাকি ৫৫ জনের খাবার একেবারে বেঁধে দেওয়া হয়েছিল। কড়া ডায়েট, মেপে খাওয়া একটুও অতিরিক্ত কিছু নয়। এই ভাবে কয়েক মাস ডায়েট চালানোর পর দেখা যায়, যাঁদের কম কার্বোহাইড্রেট যুক্ত খাবার খেতে বলা হয়েছিল তাঁরা তাঁদের রোজকার ক্যালোরির চাহিদা পূরণ করেছেন শরীরে সঞ্চিত অতিরিক্ত ফ্যাট থেকেই। এরপর দেখা যায় যাঁরা ভাল ফ্যাট বেশি পরিমাণে খেয়েছেন, তাঁদের ক্ষেত্রে কিন্তু ফ্যাটি লিভারের সমস্যার অনেকখানি সমাধান হয়েছে। সেই সঙ্গে নিয়ন্ত্রণে এসেছে সুগার লেভেলও। তুলনায় যাঁরা ক্যালোরি মেপে খেয়েছেন তাঁদের ক্ষেত্রে কাজের কাজ কিছুই হয়নি। এর আগেও চিকিৎসকেরা একাধিকবার বলেছেন যে যে সব খাবারের মধ্যে ট্রান্স ফ্যাট বা সম্পৃক্ত চর্বি থাকে তা শরীরের জন্য একেবারেই ভাল নয়। তুলনায় অনেক ভাল অসম্পৃক্ত চর্বি। বাদাম, অলিভ অয়েল, অ্যাভোগাডো, স্যামন মাছের মধ্যে থাকে এই ভাল ফ্যাট।

এই খবরটিও পড়ুন

এভাবে ৬ মাস চলার পর দেখা গেল যাঁরা ভাল ফ্যাট বেশি পরিমাণে খেয়েছেন তাঁদের ক্ষেত্রে ওজনও কমেছে অনেকটাই। প্রায় ৫.৮ শতাংশ। গবেষণার সঙ্গে যুক্ত ডালবি হ্যানসেন বলেন, ‘যদি লিভারে ফ্যাট অতিরিক্ত থাকে তাহলে ভাল ফ্যাট খেলেই আপনি উপকার পাবেন। এক্ষেত্রে বিপাকীয় ক্রিয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ’। যে কারণে সম্পৃক্ত ফ্যাট খেতে বলেন বিশেষজ্ঞরা। তবে খাওয়ার আগে অবশ্যই চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে নেবেন।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla