Depression: আত্মহত্যার হুমকিও কি মানসিক অবসাদের লক্ষণ? যা বলছেন বিশিষ্ট মনোচিকিৎসক

Depression: আত্মহত্যার হুমকিও কি মানসিক অবসাদের লক্ষণ? যা বলছেন বিশিষ্ট মনোচিকিৎসক
মানসিক সমস্যা আর ডিপ্রেশন একেবারেই আলাদা দুটি সমস্যা

Suicide: কোনও মানুষ অবসাদে ভুগলে তাঁর আত্মহত্যার প্রবণতা থাকে। তিনি কখনও অন্য মানুষের ক্ষতি করতে চান না। অন্যকে মেরে নিজে মরতে চান না

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Reshmi Pramanik

Jun 21, 2022 | 7:08 PM

রেশমী প্রামাণিক
সম্প্রতি কলকাতার পার্ক সার্কাসে বাংলদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের বাইরে এলোপাথাড়ি গুলি চালানোর পর আত্মঘাতী হয়েছেন এক পুলিশকর্মী। প্রায় ১০ রাউন্ড গুলি ছোড়ার পর নিজের গলা লক্ষ্য করে ট্রিগার চালিয়ে দেন চোদুপ লেপচা। প্রাথমিক তদন্তের পর কলকাতা পুলিশ জানিয়েছে, উত্তরবঙ্গের কালিম্পংয়ের বাসিন্দা তথা কলকাতা সশস্ত্র পুলিশের পঞ্চম ব্যাটালিয়নে কর্মরত চোদুপ লেপচা তীব্র মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। তীব্র মানসিক অবসাদ আর বিষণ্ণতা থেকে এই ধরনের ভয়ঙ্কর ঘটনা (কাউকে আঘাত করা অথবা আত্মঘাতী হওয়া) শুধু পুলিশের মতো যথেষ্ট ‘চাপ-এর কাজ’-এই নয়, যে কোনও চরম ব্য়স্ত মানুষের জীবনেই কি যে কোনওদিন ঘটে যেতে পারে? বিষয়টি নিয়ে TV9 বাংলার তরফে যোগাযোগ করা হয়েছিল মনোরোগ বিশেষজ্ঞ অনিরুদ্ধ দেবের সঙ্গে।
পার্ক সার্কাসের ঘটনা প্রসঙ্গে ডাঃ দেব বলেন, “কোনও মানুষ অবসাদে ভুগলে তাঁর আত্মহত্যার প্রবণতা থাকে। তিনি কখনও অন্য মানুষের ক্ষতি করতে চান না। অন্যকে মেরে নিজে মরতে চান না। আর তাই পার্ক সার্কাসের ঘটনাকে মানসিক অবসাদ থেকে দুর্ঘটনা এরকমটা বলা যায় না। তবে আশপাশের মানুষ সতর্ক থাকলে এমন দুর্ঘটনা এড়ানো যায়।” মানসিক সমস্যা থাকলেই কি মানসিক অবসাদ আসবে? এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, “মানসিক সমস্যা আর অবসাদ সম্পূর্ণ আলাদা দু’টি রোগ। দু’টি রোগের চিকিৎসা পদ্ধতিও আলাদা। আর তাই কারও মানসিক সমস্যা হয়েছে মানেই তিনি মানসিক আবসাদগ্রস্ত, এরকমটা একেবারেই নয়।”
এই প্রসঙ্গে ডাঃ দেব আরও বলেন, “আমরা প্রায়শই শুনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্কুলে বন্দুকবাজদের হামলার ঘটনা। যাঁরা স্কুলে এসে এলোপাথাড়ি গুলি চালান, তাঁদের লক্ষ্য থাকে ছোট্ট-ছোট্ট বাচ্চারা। কোনও কারণে ওই বন্দুকবাজ হয়তো ছোটবেলায় অসম্মানিত হয়েছিলেন। স্কুলে বুলিং-এর শিকার হয়েছেন বা স্কুলের সঙ্গে জড়িয়ে আছে খারাপ কোনও স্মৃতি। আর সেই রাগের বহিঃপ্রকাশ হল এই ঘটনা। আমেরিকার মতো দেশে খুব সহজেই বন্দুক রাখার লাইসেন্স পাওয়া যায়, যা আমাদের দেশে সম্ভব নয়।” তাঁর মতে, মনের মধ্যে যদি প্রতিহিংসা থাকে, তাহলে তা কোনও না কোনও কথা কিংবা আচরণে ধরা পড়ে। এই অসঙ্গতি থেকেই আমাদের সচেতন হতে হবে।
আত্মঘাতী পুলিশকর্মী চোদুপ লেপচার আচরণেও কখনও নিশ্চয়ই প্রকাশ পেয়েছে তাঁর সেই মানসিক অস্থিরতার। আর তা-ই এরকম মানুষের হাতে কখনও বন্দুক তুলে দেওয়া উচিত নয়। বরং ‘Fit For Duty Without Fire’ হিসেবে তাঁকে অন্যত্র কাজের দায়িত্ব দেওয়া উচিত ছিল। তুলনায় হালকা কাজে তাঁকে নিযুক্ত করা উচিত।  এ ব্যাপারে তাঁর ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ এবং সহকর্মীদের নজর রাখাও প্রয়োজন ছিল বলে অভিমত ডাঃ দেবের।
চোদুপ লেপচা মানসিক রোগী ছিলেন না। তাঁর পরিবারের তরফেও এমনটা জানানো হয়নি। এমনকী অবসাদের চিকিৎসা চলেছে এরকমটাও নয়। কিন্তু সেই সময়ের স্ট্রেসটা তিনি নিতে পারেননি। সেখান থেকেই এমন দুর্ঘটনা। STRESS এখনকার দিনে দৈনন্দিন জীবনের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ: PART OF LIFESTYLE। আর তাই স্ট্রেস কাটিয়ে ওঠার জন্য প্রথমে সেই পরিবেশ থেকেই বেরিয়ে আসার পরামর্শ দিচ্ছেন মনোচিকিৎসক অনিরুদ্ধ দেব।
“কেন আপনার স্ট্রেস হচ্ছে, সেই উৎস খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা করুন। গান শুনলে, ছবি আঁকলে আর বন্ধুদের সঙ্গে কথা বললেই স্ট্রেস কমানো যায় না। প্রত্যেক মানুষের কাছে রিল্যাক্সিং-এর অর্থ মানেই গান শোনা নয়। আর তাই মানুষকেই বুঝতে হবে কী করলে তিনি ভাল থাকবেন। কোন কাজ করলে তাঁর অযথা স্ট্রেস হবে না। বাড়ির লোককেও এ ব্যাপারে নজর দিতে হবে। রেকুপারেশনের (Recuperation) জন্য সময় রাখুন,” বলছেন ডাঃ দেব।
গ্রাফিক্স- অভীক দেবনাথ 

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA