Dengue Prevention: আসছে ডেঙ্গু-ম্যালেরিয়ার সিজন, সুস্থ থাকতে ঘরোয়া পরামর্শ নিউট্রিনিস্ট রুজুতা দিওয়েকরের

Dengue Prevention: আসছে ডেঙ্গু-ম্যালেরিয়ার সিজন, সুস্থ থাকতে ঘরোয়া পরামর্শ নিউট্রিনিস্ট রুজুতা দিওয়েকরের
ডেঙ্গি রুখতে রুজুতার ঘরোয়া পরামর্শ

Nutritionists Tips: বর্ষায় বাড়ে পেটের সমস্যা। সেই সঙ্গে ডায়রিয়া, গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল সমস্যা এইসব লেগেই থাকে। আর তায় বর্ষায় সাবধানে থাকতে হবে। জল ফুটিয়ে খেতে পারলে সবচাইতে ভাল...

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Reshmi Pramanik

Jun 20, 2022 | 6:39 AM

দেশজুড়ে ঢুকে পড়েছে বর্ষা। বিভিন্ন রাজ্যেই শুরু হয়েছে বৃষ্টিপাত। ইতিমধ্যে উত্তরবঙ্গে ফুঁসছে নদী। শুক্রবার থেকে বর্ষা প্রবেশ করেছে দক্ষিণবঙ্গেও। বর্ষা মানেই চারপাশে আবর্জনার স্তূপ, নোংরা জল জমতে থাকে। ভরে যায় নালা-নর্দমা। খাবারের জলের সঙ্গে এই নোংরা জল মিশে জলদূষণ তো হয়ই তেমনই বর্ষাকালের জমা জলে বংশবৃদ্ধি করে মশারা। চাঁদিফাটা রোদ্দুর থেকে হঠাৎ বৃষ্টি শুরু হওয়ায় আবহাওয়া আগের তুলনায় ঠান্ডা হয়েছে ঠিকই সঙ্গে বেড়েছে ভাইরাস ব্যাকটেরিয়ার উপদ্রব। বর্ষাকাল মানেই ঘরে ঘরে অবধারিত পেটের সমস্যা। সেই সঙ্গে বাড়ে মশাবাহিত রোগের প্রকোপ। তাই এই সময় যেমন মশারি টাঙিয়ে ঘুমনো আবশ্যক তেমনই মনে চলতে হবে কিছু ঘরোয়া নিয়ম। পরামর্শ দিচ্ছেন পুষ্টিবিদ রুজুতা দিওয়েকর।

প্রতি বছর বর্ষাতে প্রচুর মানুষ ভোগেন ডেঙ্গু-ম্যালেরিয়ার সমস্যায়। গত দু’বছর কোভিডের প্রকোপে অনেকেই ভুলতে বসেছিলেন এই দুই রোগকে। কিন্তু ডেঙ্গু-ম্যালেরিয়া এখনও বহাল তবিয়তে রয়েছে। আর তাই বর্ষা পড়তেই সকলকে সচেতন হতে হবে। অ্যানোফিলিস মশার কামড় থেকে ম্যালেরিয়া এবং এডিশ মশার থেকে ডেঙ্গু ছড়ায়। হাই-ফিভার, গায়ে-হাতে-পায়ে ব্যথা, গাঁট ফুলে যাওয়া, অস্বস্তি, মলের সঙ্গে রক্ত, পেট ব্যথা, বমি-বমি ভাব, বিভিন্ন গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল উপসর্গ-এসবই হল ম্যালেরিয়া. ডেঙ্গুর প্রধান লক্ষণ। কিছুক্ষেত্রে ম্যালেরিয়া আর ডেঙ্গু একসঙ্গেও হতে পারে। আর তাই এই সব সমস্যার প্রতিকার হিসেবে বেশ কয়েকটি ঘরোয়া টোটকা মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন রুজুতা-

গুলকন্দ খান

গোলাপের পাপড়ি থেকে গুলকন্দ তৈরি করা হয়। মোরব্বার মত খেতে লাগে। সুগন্ধ আর মিষ্টি স্বাদের জন্য অনেকের কাছেই এটি খুব প্রিয়। শরীর ঠাণ্ডা রাখতে ভূমিকা রয়েছে এই গুলকন্দের। বেশ কিছু ওষুধ তৈরিতেও তা ব্যবহার করা হয়। অ্যাসিডিটি, বমি বমি ভাব, দুর্বলতা এবং বেশ কিছু রোগের প্রকোপ থেকে এই গুলকন্দ আমাদের রক্ষা করে। পুষ্টিবিদরা বলছেন ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়ার হাত থেকেও রক্ষা করে এই গুলকান্দ। খালিপেটে বা খাবারের মাঝখানে রোজ একটামচ করে গুলকন্দ খান

দুধ, হলুদ, জাফরান আর জায়ফলের মিশ্রণ

ম্যালেরিয়া বা ডেঙ্গুতে পেশীর ব্যথা থাকে খুব। এই সমস্যার হাত থেকে রেহাই পেতে সবচেয়ে ভাল ঘরোয়া প্রতিকার হল দুধ, হলুদ, জাফরান, দায়ফল একসঙ্গে খাওয়া। এতে শরীরের বিভিন্ন ব্যথার হাত থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। একই সঙ্গে কমে জ্বালাভাবও। একগ্লাস দুধে একগ্লাস জল, হলুদ, জাফরান আর জায়ফল গুঁড়ো মিশিয়ে ভাল করে ফুটিয়ে নিন যতক্ষণ পর্যন্ত না তা অর্ধেক হয়ে যাচ্ছে। ইচ্ছে হলে স্বাদে বদল আনতে এর মধ্যে একটু গুড়ও মেশাতে পারেন। ঠান্ডা বা গরম অবস্থায় খান এই দুধ।

চালের আটা ম্যালেরিয়া বা ডেঙ্গুতে শরীরের ডিহাইড্রেশনের সমস্যা থাকে। শরীর থেকে অতিরিক্ত পরিমাণ জল বাইরে বেরিয়ে যায়। ফলে শরীরে জলের অভাব দেখা যায়। আর তাই এই সময় চালের আটা থেকে তৈরি রুটি খেতে পারলে শরীরে জলের চাহিদা পূরণ হয়। সেই সঙ্গে খিদেও বাড়ে। এছাড়াও ফ্যানা ভাতের সঙ্গে একটু নুন, ঘি আর হিং মিশিয়ে খেতে পারলেও রুচি বাড়ে। শরীরে জলের সমতা ঠিক থাকে।

পর্যাপ্ত পরিমাণে জল খান

শরীর সুস্থ রাখতে প্রচুর পরিমাণে জল খেতে হবে। জল যত বেশি খাবেন ততই শরীর থেকে টক্সিন বেরিয়ে যাবে। এছাড়াও উলের রস, ডাবের জল এসবও কিন্তু খেতে হবে। শরীরে জল কম হলে অন্যান্য রোগ জীবাণুরাও বাসা বাঁধার সুযোগ পেয়ে যায়। শরীর আরও বেশি দুর্বল লাগে। সঙ্গে চেষ্টা করুন প্রস্রাবের রং যাতে পরিষ্কার থাকে। প্রস্রাব হলুদ হওয়া কিন্তু ভাল ইঙ্গিত নয়। এরই সঙ্গে বৃদ্ধকোনাসন করার পরামর্শ দিচ্ছেন রুজুতা। এতে পিঠ আর শরীরের ব্যথা কমে অনেকখানি। পাশাপাশি ক্লান্তি থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়। কমে দুর্বলতাও।

এই খবরটিও পড়ুন

Disclaimer: এই প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য, কোনও ওষুধ বা চিকিৎসা সংক্রান্ত নয়। বিস্তারিত তথ্যের জন্য আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA