Uric Acids: হঠাৎ করে বেড়ে গিয়েছে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা? ভয় না পেয়ে শুনুন করিনার পুষ্টিবিদের কথা

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: megha

Updated on: Jun 26, 2022 | 5:06 PM

Health Tips: ইউরিক অ্যাসিড বাড়ালেই খাওয়া-দাওয়া ত্যাগ করে দেন অনেকেই। কিন্তু পুষ্টিবিদরা তা আর মানেন না।

Uric Acids: হঠাৎ করে বেড়ে গিয়েছে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা? ভয় না পেয়ে শুনুন করিনার পুষ্টিবিদের কথা
এই উপায়ে নিয়ন্ত্রণে থাকবে ইউরিক অ্যাসিড...

বর্তমানে ডায়াবেটিস, কোলেস্টেরল, ব্লাড প্রেশারের মতই শরীরে জাঁকিয়ে বসেছে এই ইউরিক অ্যাসিডের সমস্যা। শরীরের দূষিত রেচক হল এই ইউরিক অ্যাসিড। শরীরে পিউরিন ভেঙে তৈরি হয় ইউরিক অ্যাসিড। ইউরিক অ্যসিড রক্তে দ্রবীভূত হয়ে প্রস্রাবের সঙ্গে কিডনি দিয়ে যায়। কিন্তু অনেক সময় তা বেরোতে না পেরে রক্তেই জমা হতে শুরু করে। আর রক্তে ইউরিক অ্যাসিড একবার বাড়তে শুরু করলেই শরীরে নানা সমস্যা দেখা দেয়। হঠাৎ পায়ের পাতা ফুলে যাওয়া, পা ঠিকমতে ফেলতে না পারা, পায়ে ব্যথা, কোমরে ব্যথা বা কিডনির সমস্যার পিছনে দায়ী এই ইউরিক অ্যাসিড।

ইউরিক অ্যাসিড বাড়ালেই খাওয়া-দাওয়া ত্যাগ করে দেন অনেকেই। কিন্তু পুষ্টিবিদরা তা আর মানেন না। এখন নির্দিষ্ট কিছু খাবার ছাড়া, পরিমিত সব ধরনের খাবারই খাওয়া যায় ইউরিক অ্যাসিডে। একই ভাবে অনেকেই মনে করেন টমেটো ও পালং শাক খেলে বেড়ে যেতে পারে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা। কিন্তু সেটা নয়। এই বিষয়ের উপর পক্ষপাত করেছেন করিনা কাপুর খানের ডায়েটিশিয়ান ও নিজস্ব পুষ্টিবিদ রুজুতা দিবাকর।

রুজুতার মতে, মহিলাদের মধ্যে সাধারণ ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা 2-6 mg/dL এবং পুরুষদের মধ্যে 3-7 6 mg/dL হওয়া উচিত। আর ইউরিক অ্যাসিড বেড়ে যাওয়ারও প্রধান তিনটি কারণ রয়েছে। সেগুলো হল- ধূমপান, অ্যালকোহল এবং দীর্ঘ সময় ধরে এক জায়গায় বসে থাকা। এই কারণে পুষ্টিবিদরা পরামর্শ দিচ্ছে শরীরচর্চা করার। নিয়মিত ব্যায়াম করুন। এর জন্য কী-কী ব্যায়াম করবেন, চলুন জেনে নেওয়া যাক-

প্রথমত বসা এবং দাঁড়ানোর অভ্যাস করুন। প্রতি ৩০ মিনিটের জন্য বসুন এবং ৩ মিনিটের জন্য উঠে দাঁড়ান। প্রতিদিন অন্তত দু’বার করে একটি তলায় সিঁড়ি বেয়ে উঠুন। ইউরিক অ্যাসিডকে বশে রাখার জন্য প্রতিদিন স্ট্রেচিং এবং যোগব্যায়াম করা জরুরি,

ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা বেড়ে গেলে প্রচুর পরিমাণে জল পান করুন। দিনে অন্তত ৩-৪ লিটার জল পান করা আবশ্যিক। এর পাশাপাশি রাতে ঘুমানোর আগে এক গ্লাস হলুদ দুধ করুন। এতে ঘুম ভাল হবে।

পুষ্টিবিদদের মতে, ইউরিক অ্যাসিড বাড়লে এমন খাবার এড়ানো উচিত যা ওজন বাড়িয়ে দেয়। এর জন্য কেচাপ, টেট্রা প্যাক জুস, চকলেট, চিপস, বিস্কুট, আইসক্রিম, সব ফ্যাটি খাবার এবং প্রায় সব প্যাকেটজাত খাবার এড়িয়ে চলুন। এতে বেড়ে যেতে পারে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা।

এই খবরটিও পড়ুন

Disclaimer: এই প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য, কোনও ওষুধ বা চিকিৎসা সংক্রান্ত নয়। বিস্তারিত তথ্যের জন্য আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla