Liver Health: শুধুমাত্র অ্যালকোহল নয়, এই ৫ খাবারেও চরম ক্ষতি হয় লিভারের! খাওয়ার আগে একবার ভাবুন

Which food is not good for liver: শরীরের যাবতীয় গুরুত্বপূর্ণ কাজ হয় লিভারের মাধ্যমেই। আর তাই লিভারের যত্ন নিতে ভুলবেন না। অতিরিক্ত মশলাদার খাবার, ফাস্টফুড প্রথম থেকেই এড়িয়ে চলুন

Jun 27, 2022 | 7:00 AM
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Reshmi Pramanik

Jun 27, 2022 | 7:00 AM

শরীরের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ কাজটি করে লিভার। পরিপাকতন্ত্র থেকে আসা রক্তে ফিল্টার করে। এছাড়াও শরীরের যাবতীয় হজম প্রক্রিয়া আর ডিটক্সিফিকেশনের কাজ হয় এই লিভারের মাধ্যমেই। চর্বি ঝরাতে, কার্বোহাইড্রেটের সঞ্চয়কারী হিসেবে এবং প্রোটিন তৈরিতেও সাহায্য করে লিভার। যে কারণে লিভারকে যত্নে রাখা প্রয়োজন। তবে শুধুমাত্র অ্যালকোহল নয়, এই পাঁচ খাবারও কিন্তু বাড়ায় লিভার সমস্যার ঝুঁকি।

শরীরের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ কাজটি করে লিভার। পরিপাকতন্ত্র থেকে আসা রক্তে ফিল্টার করে। এছাড়াও শরীরের যাবতীয় হজম প্রক্রিয়া আর ডিটক্সিফিকেশনের কাজ হয় এই লিভারের মাধ্যমেই। চর্বি ঝরাতে, কার্বোহাইড্রেটের সঞ্চয়কারী হিসেবে এবং প্রোটিন তৈরিতেও সাহায্য করে লিভার। যে কারণে লিভারকে যত্নে রাখা প্রয়োজন। তবে শুধুমাত্র অ্যালকোহল নয়, এই পাঁচ খাবারও কিন্তু বাড়ায় লিভার সমস্যার ঝুঁকি।

1 / 6
লিভারের সমস্যা অনেকের ক্ষেত্রে জেনেটিক। বিভিন্ন কারণে লিভারের ক্ষতি হয়। তা ভাইরাস ঘটিত হতে পারে, খাবার অভ্যাসের জন্যও হতে পারে। কিংবা অ্যালকোহল বেশি মাত্রায় খেলে সেখান থেকেও লিভারের ক্ষতি হয়। লিভারের সমস্যা হলে সেখান থেকে হতে পারে লিভার অফ সিরোসিস। এমনকী লিভার ফেইলিওরের ঝুঁকিও থেকে যায়।

লিভারের সমস্যা অনেকের ক্ষেত্রে জেনেটিক। বিভিন্ন কারণে লিভারের ক্ষতি হয়। তা ভাইরাস ঘটিত হতে পারে, খাবার অভ্যাসের জন্যও হতে পারে। কিংবা অ্যালকোহল বেশি মাত্রায় খেলে সেখান থেকেও লিভারের ক্ষতি হয়। লিভারের সমস্যা হলে সেখান থেকে হতে পারে লিভার অফ সিরোসিস। এমনকী লিভার ফেইলিওরের ঝুঁকিও থেকে যায়।

2 / 6
লিভারের সমস্যা হলেই সেখান থেকে শরীরে আসে একাধিক দুর্বলতা। ক্ষুধামন্দা, বমি, সারাদিন ক্লান্ত লাগা, ঠিকমতো ঘুম না হওয়া, দ্রুত ওজন কমে যাওয়া- এসব মোটেই ভাল লক্ষণ নয়। আর এই লক্ষণ দেখা দিলে ফেলে না রেখে দ্রুত চিকিৎসকের কাছে যান। এতে তাড়াতাড়ি চিকিৎসা শুরু হবে। সঙ্গে রোজকারের খাবারেও আনুন পরিবর্তন। ফ্রেঞ্চফ্রাইস, বার্গার, পিৎজা- এসবের মধ্যে থাকে প্রচুর পরিমাণে স্যাচুরেটেড ফ্যাট। তাই এই সব খাবার থেকে দূরে থাকুন। এতে লিভারের চরম ক্ষতি হয়। হতে পারে সিরোসিস অফ লিভারও।

লিভারের সমস্যা হলেই সেখান থেকে শরীরে আসে একাধিক দুর্বলতা। ক্ষুধামন্দা, বমি, সারাদিন ক্লান্ত লাগা, ঠিকমতো ঘুম না হওয়া, দ্রুত ওজন কমে যাওয়া- এসব মোটেই ভাল লক্ষণ নয়। আর এই লক্ষণ দেখা দিলে ফেলে না রেখে দ্রুত চিকিৎসকের কাছে যান। এতে তাড়াতাড়ি চিকিৎসা শুরু হবে। সঙ্গে রোজকারের খাবারেও আনুন পরিবর্তন। ফ্রেঞ্চফ্রাইস, বার্গার, পিৎজা- এসবের মধ্যে থাকে প্রচুর পরিমাণে স্যাচুরেটেড ফ্যাট। তাই এই সব খাবার থেকে দূরে থাকুন। এতে লিভারের চরম ক্ষতি হয়। হতে পারে সিরোসিস অফ লিভারও।

3 / 6
যে কোনও প্যাকেটজাত খাবার থেকে দূরে থাকুন। চিপস, চানাচুর এসবের মধ্যে থাকে প্রচুর পরিমাণ নুন। সঙ্গে থাকে হিডেন সুগারও। যা শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকারক। বাজে চর্বি জমতে থাকে লিভারে।

যে কোনও প্যাকেটজাত খাবার থেকে দূরে থাকুন। চিপস, চানাচুর এসবের মধ্যে থাকে প্রচুর পরিমাণ নুন। সঙ্গে থাকে হিডেন সুগারও। যা শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকারক। বাজে চর্বি জমতে থাকে লিভারে।

4 / 6
রেড মিট একেবারেই খাবেন না। এর মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ প্রোটিন। লিভার এই প্রোটিনকে সহজে ভেহে ফেলতে পারে না। যে কারণে চাপ পড়ে মস্তিষ্কে। সেই সঙ্গে এড়িয়ে চলুন মিষ্টিও। মিষ্টির মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে চর্বি। রোজ মিষ্টি খেলে সেখান থেকে আসতে পারে ফ্যাটি লিভারের সমস্যা। তাই মিষ্টির লোভ সামলাতে নিতান্তই না পারলে মেপে খান।

রেড মিট একেবারেই খাবেন না। এর মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ প্রোটিন। লিভার এই প্রোটিনকে সহজে ভেহে ফেলতে পারে না। যে কারণে চাপ পড়ে মস্তিষ্কে। সেই সঙ্গে এড়িয়ে চলুন মিষ্টিও। মিষ্টির মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে চর্বি। রোজ মিষ্টি খেলে সেখান থেকে আসতে পারে ফ্যাটি লিভারের সমস্যা। তাই মিষ্টির লোভ সামলাতে নিতান্তই না পারলে মেপে খান।

5 / 6
ড্রাই ফ্রুট শরীরের জন্য ভাল। কিন্তু তাও পরিমাণের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখুন। বেশি পরিমাণে কাজু, কিশমিশ, বেরি খেলে সেখান থেকে একাধিক স্বাস্থ্য সমস্যা আসে। ফ্যাটি লিভার এবং ওজন বৃদ্ধির কারণও কিন্তু এই কিশমিশ। কিশমিশের মধ্যে থাকে ফ্রুক্টোজ, যা আমাদের শরীরে রক্ত শর্করার পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়। ফলে বাড়ে রক্তে চর্বির পরিমাণও।

ড্রাই ফ্রুট শরীরের জন্য ভাল। কিন্তু তাও পরিমাণের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখুন। বেশি পরিমাণে কাজু, কিশমিশ, বেরি খেলে সেখান থেকে একাধিক স্বাস্থ্য সমস্যা আসে। ফ্যাটি লিভার এবং ওজন বৃদ্ধির কারণও কিন্তু এই কিশমিশ। কিশমিশের মধ্যে থাকে ফ্রুক্টোজ, যা আমাদের শরীরে রক্ত শর্করার পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়। ফলে বাড়ে রক্তে চর্বির পরিমাণও।

6 / 6

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla