‘শাহি ফোনালাপে’ই হল কাজ, আলোচনার মাধ্যমে সীমানা সমস্যা মেটানোর বার্তা মিজোরামের

গত ২৬ জুলাই অসম ও মিজোরামের মধ্য়ে দীর্ঘ দশক ধরে চলা সীমানা সমস্য়া ফের একবার ভয়াবহ আকার ধারণ করে। দুই পক্ষের পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষে ৬ জন অসম পুলিশকর্মী সহ মোট ৭ জনের মৃত্য়ু হয়।

'শাহি ফোনালাপে'ই হল কাজ, আলোচনার মাধ্যমে সীমানা সমস্যা মেটানোর বার্তা মিজোরামের
ফাইল চিত্র।

গুয়াহাটি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনে বার্তালাপের পরই সুর নরম করলেন মিজোরামের মুখ্যমন্ত্রী জোরামথাঙ্গা। এ দিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মার সঙ্গে ফোনে বার্তালাপের পরই তিনি টুইট করে লেখেন, অসমের সঙ্গে সীমানা বিরোধ আলোচনার মাধ্যমেই সমাধান করা হবে। মিজোরামবাসীকে তিনি অশান্তি এড়িয়ে যাওয়ার অনুরোধও করেছেন।

এ দিন মিজোরামের মুখ্যমন্ত্রী টুইট করে লেখেন, “স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও অসমের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনে বার্তালাপের পর আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে আলোচনার মাধ্যমেই অসম-মিজোরাম সীমানা সমস্যার সমাধান করা হবে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে দুই রাজ্য সরকারের মধ্যে নতুনভাবে আলোচনা শুরু করা হয়েছে।”

গত ২৬ জুলাই অসম ও মিজোরামের মধ্য়ে দীর্ঘ দশক ধরে চলা সীমানা সমস্য়া ফের একবার ভয়াবহ আকার ধারণ করে। দুই পক্ষের পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষে ৬ জন অসম পুলিশকর্মী সহ মোট ৭ জনের মৃত্য়ু হয়। আহত হন ৫০ জনেরও বেশি মানুষ।  দুই রাজ্যের তরফেই একে অপরকে দোষারোপ করা হয়। চলতি সপ্তাহেই মিজোরাম পুলিশের তরফে অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা সহ আরও ২০ জনের বিরুদ্ধে সংঘর্ষে উস্কানি দেওয়ার অভিযোগে এফআইআর দায়ের করা হয়। গতকাল অসমের মুখ্যমন্ত্রীও জানান, তিনি তদন্তে সবরকমের সাহায্য করবেন।

গতকালই তিনি টুইট করে লেখেন, “যে কোনও ধরনের তদন্তে সহযোগিতা করতে রাজি আমি। তবে এই মামলার তদন্ত কোনও নিরপেক্ষ কর্তৃপক্ষের হাতে কেন তুলে দেওয়া হচ্ছে না, যেখানে অসমের জমিতেই এই সংঘর্ষ হয়েছে? এই বিষয়টি ইতিমধ্যেই মিজোরামের মুখ্যমন্ত্রী জোরামথাঙ্গাজীকে জানিয়েছি।”  আরও পড়ুন: পেগাসাস ইস্যুতে সাড়া সুপ্রিম কোর্টের, আগামী সপ্তাহেই হতে চলেছে প্রথম শুনানি 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla