Supreme Court Of India: ‘গাছ কাটা হয়নি, শুধু জঙ্গল পরিষ্কার করা হয়েছে’, সুপ্রিম কোর্টকে জানাল মেট্রো কর্তৃপক্ষ

Supreme Court Of India: এমএমআরসিএল কর্তৃপক্ষের হয়ে শীর্ষ আদালতে সওয়াল করেন সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা। যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি জানিয়েছেন ওই এলাকায় কোনও গাছ কাটা হচ্ছে না।

Supreme Court Of India: 'গাছ কাটা হয়নি, শুধু জঙ্গল পরিষ্কার করা হয়েছে', সুপ্রিম কোর্টকে জানাল মেট্রো কর্তৃপক্ষ
সুপ্রিম কোর্ট
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অরিজিৎ দে

Aug 05, 2022 | 3:42 PM

নয়া দিল্লি: মুম্বই মেট্রো রেলওয়ে কর্পোরেশন (Mumbai Metro Railway Corporation) শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টকে (Supreme Court Of India) জানিয়েছে, শহরের আরে বনাঞ্চলে কোনও গাছ কাটা হয়নি। সমাজকর্মী ও স্থানীয় বাসিন্দাদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার শীর্ষ আদালতে শুনানি ছিল। বিচারপতি ইউইউ ললিত, এস রবীন্দ্র ভাট এবং অনিরুদ্ধ বসুর বেঞ্চে এই মামলার শুনানি হয়েছে। আবেদনে তারা অভিযোগ জানিয়েছিল, ২০১৯ সালের নভেম্বের শীর্ষ আদালতের নির্দেশের পর মুম্বইয়ের আরে বনাঞ্চলে আবার গাছ কাটা শুরু হয়েছে। আবদেনকারীদেরর পক্ষে আদালতে সওয়াল করেছিলেন প্রবীণ আইনজীবী চন্দর উদয় সিং। শীর্ষ আদালতকে তিনি জানিয়েছিলেন, স্থিতাবস্থা বজায় রাখার নির্দেশের পরও মেট্রোর কারশেড প্রোজেক্টের জন্য আরে অঞ্চলে গাছ কাটার কাজ শুরু হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন কাঞ্জুরমার্গে মেট্রো প্রজেক্টে চালু করার জন্য সংশ্লিষ্ট কমিটি যে সুপারিশ করেছিল তা অগ্রাহ্য করে আরে বনাঞ্চলে জঙ্গল সাফাইয়ের কাজ শুরু করেছে মেট্রো কর্তৃপক্ষ। বিচারপতি ললিত জানিয়েছেন, শুনানির পরবর্তী দিনে এই মামলা বিস্তারিত শোনা হবে।

এমএমআরসিএল কর্তৃপক্ষের হয়ে শীর্ষ আদালতে সওয়াল করেন সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা। যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি জানিয়েছেন ওই এলাকায় কোনও গাছ কাটা হচ্ছে না। সলিসিটর জেনারেল জানিয়েছেন, ২০১৯ সালের নভেম্বরে স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে সুপ্রিম কোর্ট যে নির্দেশ দিয়েছিল, তারপর থেকে আরে বনাঞ্চলে কোনও গাছ কাটা হয়নি। তিনি জানিয়েছেন, ২০১৯ সালের ওই নির্দেশের সেখানে ঝোপ, গুল্ম ও গাঁজা গাছ জন্মেছিল, মেট্রো রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ শুধুমাত্র সেইগুলি পরিষ্কার করেছে। সরকারি সংস্থার হয়ে আদালতে হলফনামাও পেশ করেছেন সলিসিটর জেনারেল। সওয়াল-জবাব শেষে শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, এমএমআরসিএলের অবস্থান স্পষ্টবভাবে জানার পর এই মামলায় কোনও অন্তর্বর্তীকালীন নির্দেশের প্রয়োজন নেই। ১৩ অগস্ট মামলার নিষ্পত্তির জন্য পরবর্তী শুনানি হবে। সলিসিটর জেনারেল জানিয়েছন, প্রবীণ আইনজীবীকে তাঁর মক্কেলরা বিস্তারিতভাবে মামলার তথ্য দেয়নি।

২০১৯ সালে মেট্রো কারশেড প্রজেক্টের জন্য নির্বিচারে গাছ কাটার বিরুদ্ধে আইনের বেশ কিছু ছাত্রের পাঠানো পিটিশন চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্ট স্বতঃপ্রণোদিতভাবে একটি মামলা নথিভুক্ত করেছিল। মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে সমাজকর্মী এবং স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছিল। এমনকী গাছ কাটার প্রতিবাদে তারা পথেও নেমেছিলেন।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla