TMC-Congress Spat: ‘নকল করছে’, ৪০ শতাংশ আসনে মহিলা প্রার্থীর ‘ক্রেডিট’ও কংগ্রেসকে দিতে চায় না তৃণমূল

TMC : মহিলাদের জন্য এই ৪০ শতাংশ আসন -- এটা কিন্তু একেবারেই প্রিয়ঙ্কা গান্ধীর মস্তিস্কপ্রসূত নয়। বরং এটাও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কৃতিত্ব।

TMC-Congress Spat: 'নকল করছে', ৪০ শতাংশ আসনে মহিলা প্রার্থীর 'ক্রেডিট'ও কংগ্রেসকে দিতে চায় না তৃণমূল
প্রিয়ঙ্কা গান্ধী ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (ফাইল ছবি)

নয়া দিল্লি: বিজেপি বিরোধী জোটের আদৌ কি কোনও ভবিষ্যৎ রয়েছে? যত দিন এগোচ্ছে, তত এই প্রশ্নটাই যেন আরও বেশি করে উঠে আসছে। সৌজন্যে কংগ্রেস (Congress) আর তৃণমূলের (TMC) বিবাদমান অবস্থা। কার নেতৃত্ব লড়াই হবে, লড়াইয়ে জিতলে কে পরবে রাজার মুকুট — তাই নিয়ে দ্বন্দ্ব ক্রমেই বাড়ছে। গতকাল প্রিয়ঙ্কা গান্ধী (Priyanka Gandhi) ঘোষণা করেছেন, উত্তর প্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনে এবার ৪০ শতাংশ আসনে টিকিট দেওয়া হবে মহিলাদেরই। কিন্তু এই ‘ক্রেডিটও’ প্রিয়ঙ্কাকে দিতে নারাজ তৃণমূল। আজ দলের অফিশিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকে তৃণমূল জানিয়ে দিল, মহিলাদের জন্য এই ৪০ শতাংশ আসন — এটা কিন্তু একেবারেই প্রিয়ঙ্কা গান্ধীর মস্তিস্কপ্রসূত নয়। বরং এটাও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কৃতিত্ব।

তৃণমূলের বক্তব্য, বিগত লোকসভা ভোটে ৪০ শতাংশ আসনে মহিলা প্রার্থীদের সুযোগ দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সুতরাং প্রিয়ঙ্কা গান্ধী নন, তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই নারী ক্ষমতায়নের এই পথ দেখিয়েছেন। তৃণমূলের তরফে আরও বলা হয়েছে, এই কঠিন সময়ে কংগ্রেস তা অনুধাবন করেছে এবং তৃণমূলকে নকল করার চেষ্টা করছে। আশা, এটি কংগ্রেসের কোনও টোকেন সিদ্ধান্ত হবে না এবং বিষয়টি নিয়ে গুরুত্ব দিয়ে ভাবছে তারা। আর যদি তাই হয়ে থাকে, তাহলে অন্যান্য রাজ্যের ভোটেও একইভাবে ৪০ শতাংশ মহিলা প্রার্থী দিক কংগ্রেস।

এখনও পর্যন্ত যা শোনা যাচ্ছে, তাতে উত্তর প্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনে প্রিয়ঙ্কাকে সামনে রেখেই লড়বে কংগ্রেস। তবে তিনিই মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী কি না, তা নিয়ে এখনও স্পষ্ট কোনও ইঙ্গিত দেওয়া হয়নি। আর এরই মধ্যে উত্তর প্রদেশের মহিলা ভোটারদের আরও কাছে টানতে উদ্যোগী হলেন প্রিয়ঙ্কা গান্ধী। জানিয়ে দিয়েছেন, ৪০ শতাংশ আসনে প্রার্থী হবেন মহিলারাই।

তিনি বলেন, “মহিলারাই পারেন পরিবর্তন আনতে এবং এর জন্য তাঁদের এগিয়ে আসা প্রয়োজন।” প্রিয়ঙ্কা আরও বলেন, “এই সিদ্ধান্ত উত্তর প্রদেশের মেয়েদের জন্য। এই সিদ্ধান্ত সেই সব মেয়েদের জন্য, যাঁরা পরিবর্তন আনতে চান।

উত্তর প্রদেশের রাজনীতির ইতিহাস বলছে, বছরের পর বছর ধরে জাত-পাতের উপর ভিত্তি করে সেখানে ভোট হয়ে আসছে। এবারও আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে প্রতিটি দল নিজের নিজের ঘুঁটি সেভাবেই সাজাতে শুরু করেছে। কিন্তু এই সবের থেকে একেবারে একশো আশি ডিগ্রি ঘুরে এবার প্রিয়ঙ্কা গান্ধী জোর দিলেন মহিলা ভোটারদের দিকে।

আরও পড়ুন : Uttar Pradesh: ৪০ শতাংশ আসনে মহিলা প্রার্থী, উত্তর প্রদেশে যোগীর ‘ক্যারিশ্মা’কে জোর টক্কর দেবে প্রিয়ঙ্কার ‘গার্ল পাওয়ার’

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla