PFI Twitter Blocked: PFI-র ঘাড়ে এবার ডিজিটাল ব্যানের খাঁড়া, বন্ধ হল সমস্ত ওয়েবসাইট ও টুইটার অ্যাকাউন্ট

PFI Twitter Blocked: দেশজুড়ে পিএফআই সংগঠনের বিরুদ্ধে এনআইএ-ইডির অভিযান চালানোর পরই বুধবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে পাঁচ বছরের জন্য পপুলার ফ্রন্ট অব ইন্ডিয়াকে নিষিদ্ধ বলে ঘোষণা করা হয়। কেন্দ্রের তরফে পিএফআই-র সমস্ত ওয়েবসাইট ও সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলি বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।

PFI Twitter Blocked: PFI-র ঘাড়ে এবার ডিজিটাল ব্যানের খাঁড়া, বন্ধ হল সমস্ত ওয়েবসাইট ও টুইটার অ্যাকাউন্ট
বন্ধ হল নিষিদ্ধ সংগঠন পিএফআই-র টুইটার ও ওয়েবসাইট।
TV9 Bangla Digital

| Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

Sep 29, 2022 | 10:15 AM

নয়া দিল্লি: পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞার পর এবার পিএফআই-র উপরে নেমে এল ডিজিটাল ব্যানের খাঁড়া। বন্ধ করে দেওয়া হল পপুলার ফ্রন্ট অব ইন্ডিয়ার সমস্ত টুইটার অ্যাকাউন্ট। বৃহস্পতিবার সকালেই জানা যায়, টুইটার কর্তৃপক্ষের তরফে নিষিদ্ধ সংগঠন পপুলার ফ্রন্ট অব ইন্ডিয়ার অফিশিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

দেশজুড়ে পিএফআই সংগঠনের বিরুদ্ধে এনআইএ-ইডির অভিযান চালানোর পরই বুধবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে পাঁচ বছরের জন্য পপুলার ফ্রন্ট অব ইন্ডিয়াকে নিষিদ্ধ বলে ঘোষণা করা হয়। বেআইনি কার্যকলাপ (প্রতিরোধ) আইনের অধীনেই এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। কেরল সহ একাধিক রাজ্যে আগে থেকেই নিষিদ্ধ এই সংগঠনের উপরে জাতীয় স্তরে নিষেধাজ্ঞা জারির কারণ হিসাবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে বিবৃতিতে জানানো হয়, পপুলার ফ্রন্ট অব ইন্ডিয়া নামক উগ্র মৌলবাদী সংগঠনের সঙ্গে বাংলাদেশের জঙ্গি সংগঠন জামাত-উল-মুজাহিদ্দিন ও সিরিয়ার আইসিস সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের যোগ পাওয়া গিয়েছে। দেশবিরোধী কার্যকলাপের সঙ্গে জড়িত থাকায় ও সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপে আর্থিক মদত দেওয়ার কারণেই এই সংগঠনকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

গতকালই কেন্দ্রের তরফে পিএফআই-র সমস্ত ওয়েবসাইট ও সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলি বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। পাশাপাশি পিএফআই-র সঙ্গে যুক্ত সিএফআই, অল ইন্ডিয়া ইমাম কাউন্সিল, রিহ্যাব ইন্ডিয়া ফাউন্ডেশন, ন্যাশনাল ওমেন্স ফ্রন্টের সোশ্যাল মিডিয়া ও ওয়েবসাইটগুলিকে বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।

বন্ধ হল PFI-র টুইটার

উল্লেখ্য, গত  সপ্তাহেই পপুলার ফ্রন্ট অব ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে দেশজুড়ে ১৫টি রাজ্যের ৯৩টি জায়গায় তল্লাশি অভিযান চালিয়েছিল ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি ও এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। দিল্লি, উত্তর প্রদেশ, তামিলনাড়ু, অন্ধ্র প্রদেশ, কর্নাটক, কেরল, পশ্চিমবঙ্গ সহ একাধিক রাজ্যে অভিযান চালিয়ে ১০০-রও বেশি পিএফআই সদস্য ও সমর্থকদের গ্রেফতার করা হয়। পরে চলতি সপ্তাহের মঙ্গলবারও ফের একাধিক রাজ্যে হানা দেয় ইডি ও এআইএ। এখনও অবধি মোট ২৫০-রও বেশি পিএফআই সদস্যদের গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

অন্যদিকে, কেন্দ্রীয় সরকার পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়ার উপর পাঁচ বছরের জন্য নিষেধাজ্ঞা জারির পরই দিল্লিতে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। রাজধানীতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে দিল্লি পুলিশকে অতি তৎপর ও সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। বিভিন্ন এলাকায় পুলিশি নজরদারিও জোরদার করা হয়েছে। স্পর্শকাতর এলাকা, যেমন সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলাকাগুলিতে হাই অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla