World Bank chief praises India: করোনার টিকাকরণে ভারতের সাফল্যের প্রশংসা বিশ্ব ব্যাংকের

Covid Vaccination in India: আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে টিকাকরণে ভারত যে ভূমিকা নিয়েছে, তারও প্রশংসা করেন বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট।

World Bank chief praises India: করোনার টিকাকরণে ভারতের সাফল্যের প্রশংসা বিশ্ব ব্যাংকের
ভারতের প্রশংসায় বিশ্ব ব্যাংক (ফাইল ছবি)

ওয়াশিংটন: করোনার টিকাকরণের (Covid Vaccination) সাফল্যের জন্য ভারতের (India) প্রশংসা করলেন বিশ্ব ব্যাংকের (World Bank) প্রেসিডেন্ট ডেভিড মালপাস (Davis Malpass)। আমেরিকা সফরে গিয়ে বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্টের মুখোমুখি হয়েছিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী (Finance Minister) নির্মলা সীতারামন (Nirmala Sitharaman)। সেই বৈঠকেই কোভিডের টিকাকরণ নিয়ে ভারতের ভূমিকার প্রশংসা করেন তিনি। শুধুমাত্র দেশের মধ্যে টিকাকরণই নয়, অন্যান্য দেশে ভ্যাকসিন পাঠিয়ে ভারত যে ভূমিকা নিয়েছে, তার জন্যও ধন্যবাদ জানান ডেভিড মালপাস। ওয়াশিংটনে বিশ্বব্যাংকের সদর দফতরে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সীতারামন। সেখানেই উঠে আসে এই প্রসঙ্গ।

শুধুমাত্র টিকাকরণ নয়, জলবায়ু পরিবর্তন নিয়েও ভারতের করা পদক্ষেপের প্রশংসা করেছেন তিনি। জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলবে এরকম প্রকল্পে উৎসাহিত করেছেন বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট। উল্লেখ্য, করোনার টিকা বিভিন্ন দেশে বিতরণ করার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিয়েছে ভারত। তবে পরে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের সময় রফতানি বন্ধ করে দেয় ভারত। দেশ জুড়ে টিকাকরণ বাড়াতেই সেই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। তবে সম্প্রতি আবারও সেই রফতানি শুরু করেছে কেন্দ্র। গতমাসে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্য জানিয়েছেন ভ্যাকসিন রফতানি শুরু করছে ভারত।

আগামী সপ্তাহেই ১০০ কোটি টিকার লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করবে দেশ। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী জানিয়েছেন, ২০২০ সালের মার্চ মাসে যখন লকডাউন হয়, তখন ভারত পিপিই, ভেন্টিলেটর সহ অন্য়ান্য মে়ডিক্যাল সামগ্রীর জন্য বিদেশ থেকে আমদানির উপরই নির্ভরশীল ছিল। কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যেই দেশেই এই প্রয়োজনীয় সামগ্রীগুলির উৎপাদন শুরু করে দেওয়া হয়। ফলে বর্তমানে আমরা তুলনামূলকভাবে অনেক বেশি প্রস্তুত কঠিন পরিস্থিতির সঙ্গে লড়াই করতে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্য জানিয়েছেন, এখনও পর্যন্ত মোট ৯৭ কোটিরও বেশি করোনা টিকা দেওয়া হয়েছে গোটা দেশে। দেশের গবেষক, চিকিৎসক, বৈজ্ঞানিকদের উপর উপর ভরসা করেছেন সাধারণ মানুষ, সেই কারণেই তাদের নিরন্তর প্রচেষ্টায় করোনা টিকা উৎপাদন করা সম্ভব হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

এর আগে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনকে ঐতিহাসিক করে রাখতে বিজেপি ও কেন্দ্রীয় সরকার দু কোটি কোভিড ডোজ দেওয়ার লক্ষ্য আগে থেকেই নিয়েছিল। প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে রেকর্ড টিকাকরণের সঙ্গে জন পরিষেবায় নরেন্দ্র মোদীর ২০ বছরের অবদানকে স্মরণীয় করে রাখতে ২০ দিন ব্যাপী সেবা ও সমর্পণ অভিযান নিয়েছিল বিজেপি। প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে রেকর্ড সংখ্যক টিকা দেওয়ার জন্য আগেভাগেই স্বেচ্ছাসেবকদের তৈরি করে রেখেছিল বিজেপি। একদিনে এই বিপুল টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য ৮ লক্ষ স্বেচ্ছাসেবককে প্রশিক্ষণও দেয় বিজেপি।

এরই মধ্যে ছোটদের ভ্য়াকসিনে  মিলেছে ছাড়পত্র। ২ থেকে ১৮ বছর বয়সিদের দেওয়ার জন্য কোভ্যাক্সিনকে ছাড়পত্র দিয়েছে ড্রাগ কন্ট্রোল জেনারেল অব ইন্ডিয়া।

আরও পড়ুন: Vaccine Anthem: টিকাকরণে কেন্দ্রের নয়া উদ্যোগ, যাবতীয় দ্বিধা দূর করবে ভ্যাকসিন সঙ্গীত

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla