CBI: আসানসোলে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতে তদন্তকারী দলের ২ অফিসার, নেপথ্যে কী কারণ?

CBI: সূত্রের খবর, এদিন বীরভূমের বোলপুর থেকেই আসানসোলে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতে আসেন দুই অফিসার। সঙ্গে ছিল একটি ব্যাগ। সেই ব্যাগ নিয়ে সোজা চলে যান সিবিআইয়ের আইনজীবী রাকেশ কুমারের কাছে।

CBI: আসানসোলে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতে তদন্তকারী দলের ২ অফিসার, নেপথ্যে কী কারণ?
TV9 Bangla Digital

| Edited By: জয়দীপ দাস

Aug 17, 2022 | 11:52 PM

আসানসোল: নিয়োগ কেলেঙ্কারি থেকে শুরু করে গরু পাচার, একাধিক মামলায় বর্তমানে জোরদার তদন্ত চালাচ্ছে সিবিআই-ইডি(CBI-ED)। বর্তমানে জেলে রয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee), সিবিআই হেফাজতে রয়েছেন বীরভূমের তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল (Anubrata Mondal)। এমতাবস্থায় এবার বুধবার বিকেল চারটে নাগাদ আসানসোলে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতে এসে পৌঁছান গরু পাচার মামলায় সিবিআইয়ের তদন্তকারী দলের দুই অফিসার। 

সূত্রের খবর, এদিন বীরভূমের বোলপুর থেকেই আসানসোলে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতে আসেন দুই অফিসার। সঙ্গে ছিল একটি ব্যাগ। সেই ব্যাগ নিয়ে সোজা চলে যান সিবিআইয়ের আইনজীবী রাকেশ কুমারের কাছে। তাঁকে বেশ কিছু নথিপত্র দিয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে। তবে ঠিক কী কারণে তাঁদের আগমন তা এখনও স্পষ্ট হয়নি। এদিকে গ্রেফাতারির পর আসানসোলে সিবিআইয়ের এই বিশেষ আদালতেই কিছুদিন আগে তোলা হয়েছিল অনুব্রতকে। সেখানেই এবার ফের সিবিআই আধিকারিকদের আচমকা আগামন ঘিরে বাড়ছে রহস্য। 

এই খবরটিও পড়ুন

তবে সিবিআইয়ের আইনজীবী রাকেশ কুমারের সঙ্গে বেশ কিছুক্ষণ কথা বলার পর বিকাল পাঁচটা নাগাদ আদালত থেকে বেরিয়ে বোলপুরের উদ্দেশ্যে চলে যান তদন্তকারীরা। যদিও কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার একটা সূত্র মারফত খবর, অনুব্রত মণ্ডলের দেহরক্ষী সায়গল হোসেন বর্তমানে রয়েছেন আসানসোলের জেলে। সূত্রের খবর, সায়গল হোসেনের সম্পত্তি সম্পর্কিত কিছু তথ্য আদালতে জমা দিতেই এদিন এসেছিলেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। অন্যদিকে গরু পাচার মামলায় তদন্তে অসহযোগিতার অভিযোগে বর্তমানে সিবিআই হেফাজতে রয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল। তাঁকেও লাগাতার জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এই প্রেক্ষাপটে আসানসোল আদালতে তদন্তকারীদের আগমন ঘিরে নতুন করে চর্চা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলেও। 

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla