Suicide in Metro: চুপচাপ দাঁড়িয়েছিলেন, মেট্রো আসতে দেখেই ঝাঁপ দিলেন লাইনে! ব্যাহত মেট্রো পরিষেবা

Man Committed Suicide in Metro station: মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার সকাল ৭টা ৪৫ মিনিট নাগাদ এক ব্যক্তি আচমকাই মেট্রো লাইনে ঝাঁপ দেন।

Suicide in Metro: চুপচাপ দাঁড়িয়েছিলেন, মেট্রো আসতে দেখেই ঝাঁপ দিলেন লাইনে! ব্যাহত মেট্রো পরিষেবা
উদ্ধার করা হয়েছে দেহটি।

কলকাতা: সাতসকালেই মরণঝাঁপ মেট্রোয় (Kolkata Metro)। এদিন  সকালে এসপ্ল্যানেড মেট্রো স্টেশনে এক ব্যক্তি রেললাইনে ঝাঁপ (Suicide) দেন। এরপরই বন্ধ করে দেওয়া হয় মেট্রো চলাচল (Metro Service)। ইতিমধ্যেই মেডিকেল টিম এসে পৌঁছেছে। তারা দেহটি উদ্ধার করার কাজ চালাচ্ছেন। সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ ধীরে ধীরে সচল হতে শুরু করে মেট্রো চলাচল।

মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার সকাল ৭টা ৪৫ মিনিট নাগাদ এক ব্যক্তি আচমকাই মেট্রো লাইনে ঝাঁপ দেন। দূর থেকে মেট্রো আসতে দেখেই তিনি ঝাঁপ দেন বলে জানা গিয়েছে। মনে করা হচ্ছে, বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে তাঁর মৃত্যু হয়েছে। মৃত ব্যক্তির পরিচয় এখনও জানা না গেলেও, তাঁর বয়স আনুমানিক ৪০-৪৫ বছর বলে মনে করা হচ্ছে। ওই ব্যক্তির কাছে একটি ব্যাগ থাকলেও, তা খুঁজে কোনও পরিচয় জানা যায়নি। উদ্ধার হয়েছে কিছু টাকা। পুলিশি তদন্তের পরই মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষের তরফে এই বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে।

এদিকে, মেট্রোর লাইনে ঝাঁপ আত্মহত্যার পরই বন্ধ করে দেওয়া হয় মেট্রো চলাচল। মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে, ডাউন লাইনে ওই ব্যক্তি ঝাঁপ দিয়েছিলেন। বড় বিপত্তি এড়াতেই সঙ্গে সঙ্গে লাইনে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়। ফলে গোটা মেট্রো চলাচলই স্থগিত হয়ে যায়। আপাতত ময়দান থেকে কবি সুভাষ পর্যন্ত মেট্রো চালানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। বাকি অংশ অর্থাৎ ময়দান থেকে দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত মেট্রো চলাচল বন্ধ রয়েছে। ধীরে ধীরে পরিষেবা সচল করা হবে।

লাইনে যাত্রীর ঝাঁপ দেওয়ার পরই সঙ্গে সঙ্গে মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষকে খবর দেওয়া হয়। সকাল ৮টা ২০ মিনিট নাগাদ মেডিকেল টিমের সদস্যরা এসে পৌঁছন। এরপর লাইন থেকে দেহটি উদ্ধার করা হয়। হাই ভোল্টেজ লাইনে ঝাঁপ দেওয়ায় সঙ্গে সঙ্গেই বছর ৪০-৪৫-র ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয় বলে জানা গিয়েছে। বর্তমানে মেডিকেল টিম দেহটি পরীক্ষা করছে। পুলিশেও খবর দেওয়া হয়েছে। শেষ খবর অনুযায়ী, সকাল ১০টা নাগাদ ওই ব্যক্তির দেহ মেট্রো স্টেশন থেকে বের করে নিয়ে যাওয়া হয়।

সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ দেহ উদ্ধারের পর ফের ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয় মেট্রো পরিষেবা। বর্তমানে স্বাভাবিক রয়েছে মেট্রো পরিষেবা, এমনটাই জানা গিয়েছে।

রাজ্যে ফের একবার করোনা সংক্রমণ বাড়তেই ফের একবার পুরনো বিধিনিষেধ ফিরে এসেছে। কেবলমাত্র স্মার্টকার্ড ব্যবহার করেই যাত্রীরা মেট্রোয় যাতায়াত করতে পারছেন, বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে টোকেন পরিষেবা। পাশাপাশি মেট্রো যাতায়াতের সময় রাতে ৩০ মিনিট করে কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্য়ের সরকারি ও বেসরকারি অফিসগুলি এখনও ৫০ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ চালাচ্ছে বলে সকালে ভিড় ছিল মেট্রো স্টেশনগুলি। ঘণ্টাখানেক মেট্রো পরিষেবা বন্ধ থাকায় সমস্যায় পড়তে হয় যাত্রীদেরও।

আরও পড়ুন: Bikaner-Guwahati Express Train Accident: ‘মানুষের প্রাণ নিয়ে ছেলেখেলা…সিবিআই তদন্ত হোক’ 

Published On - 8:37 am, Fri, 14 January 22

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla